ছবি ও প্রতিবেদন: শাহেদ মিজান 
কক্সবাজার শহরের ঐতিহ্যবাহী গোলচত্বর খেলার মাঠ ‘দখলে’ নিয়েছে গণপূর্ত বিভাগ। মাঠ ‘দখলে’ নিয়ে তারা সীমানা দেয়াল দিচ্ছে। এই সীমানা দেয়াল দিতে কোনো ধরণের নিয়মনীতি মানা হয়নি বলে দাবি স্থানীয়দের। যেনতেন ভাবে কাজ করে গণপূর্ত’র কর্মকর্তারা প্রকল্পের বানিয়ে বিপুল টাকা আত্মসাতের পাঁয়তারা করছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। যার ‘জ্বলন্ত’ উদাহরণ হলো- এই মাঠের পশ্চিম দিকে ইউএনএইচসিআর’র সীমানা দেয়াল থাকলেও সেখানে একদম আড়াআড়ি করে নতুন করে সীমানা দেয়াল দিচ্ছে গণপূর্ত। এই সীমানা দেয়াল অনর্থক দিচ্ছে বলে অভিযোগ করা উঠেছে। পশ্চিম পাশের ‘অহেতুক’ এই দেয়াল নির্মাণ নিয়ে সমালোচনার ঝড় চলছে। সাধারণ লোকজনের প্রশ্ন- এটি কী উন্নয়ন, না অপচয়?

অন্যদিকে দেয়াল করতে গিয়ে কোনো পরিকল্পনা নেয়নি গণপূর্ত। একদম সড়ক লাগোয়া করে সীমানা দেয়ালগুলো তৈরি করা হচ্ছে। রাখা হয়নি কোনো ড্রেন। এতে একদিকে সড়ক সংকুচিত হয়ে দুর্ঘটনা ও অন্যদিকে পানি বাধাপ্রাপ্ত হয়ে মাঠে জলাবদ্ধতা সৃষ্টির আশঙ্কা রয়েছে। এই নিয়ে কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের পক্ষ থেকে বাধা দেয়া হয়। তবে ‘যখন সমস্যা হবে তখন সীমানা দেয়াল ভেঙে ফেলা হবে’ বলে গণপূর্ত বিভাগ থেকে জানানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন কউকের এক শীর্ষ কর্মকর্তা।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •