এম.জিয়াবুল হক, চকরিয়া:

চকরিয়া পৌরসভার মেয়রের দপ্তরে জায়গা সংক্রান্ত অভিযোগ দায়ের করার জের ধরে দুর্বৃত্তরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের এক শিক্ষককে পিটিয়ে মাথা ফাটিয়ে দিয়েছে। শনিবার সন্ধ্যায় ৬ টায় চকরিয়া পৌরশহরের উত্তর কাহারিয়া ঘোনায় এ ঘটনা ঘটে। আহত শিক্ষকের নাম খাইরুল ইসলাম মানিক(৪২)। বর্তমানে ওই শিক্ষক চকরিয়া সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এ ঘটনায় তার স্ত্রী সহকারি শিক্ষিকা মুর্শেদা বেগম বাদী হয়ে থানায় লিখিত এজাহার দায়ের করেছেন।

জানা গেছে, চকরিয়া পৌরশহরের কাহারিয়া ঘোনায় এলাকায় জমিজমার বিরোধ নিয়ে একই এলাকার মৃত রমিজ আহমদের পুত্র মাস্টার খাইরুল ইসলাম মানিক বাদী হয়ে মুক্তার আহমদের পুত্র মনচুর আলম, আলী হোসেনের পুত্র বশির আহমদ, এমদাদ আহমদের পুত্র মো: শাহআলমসহ কয়েকজনের বিরুদ্ধে পৌর মেয়রের কাছে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

অভিযোগের প্রেক্ষিতে পৌর কর্তৃপক্ষ গত ৬ মে অভিযুক্তদেরকে নিকট নোটিশ প্রদান করে। ভুক্তভোগি মাস্টার খাইরুল ইসলাম মানিক জানান, নোটিশ পাওয়ার পর আসামী ক্ষিপ্ত হয়ে প্রকাশ্যে হাকা-বকা করতে থাকে। তার ধারাবাহিকতায় গতকাল শনিবার সন্ধ্যায় মাস্টার খাইরুল ইসলাম মানিক মসজিদে যাওয়ার পথে পূর্ব থেকে উতপেতে থাকা দুর্বৃত্তরা আকস্মিক হামলা করে। দুর্বৃত্তরা খাইরুল ইসলাম মানিকের মাথায় আঘাত করে মাথা ফাটিয়ে দেয়। আঘাতের ফলে মানিক মাঠিতে পড়ে জ্ঞান হারিয়ে ফেলে মাঠিতে পড়ে থাকে। এসময় তার শোর চিৎকারে এলাকার লোকজন এগিয়ে তাকে উদ্ধার করে চকরিয়া সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসার ভর্তি করায়। এ ব্যাপারে তার স্ত্রী বাদী হয়ে মনচুর আলম, বাশির আহমদ, মো: শাহ আলম ও শাহেনা বেগম সসহ ৪জনকে আসামী করে থানায় এজাহার দায়ের করেছেন। #

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •