কক্সবাজারে হতে পারে ‘বাংলাদেশ জাদুঘর’- মহাপরিচালক, বাংলা একাডেমি

আব্দুল আলীম নোবেল:

বর্তমানে দেশে শীর্ষস্থানীয় বুদ্ধিজীবি, খ্যাতিমান লেখক, গবেষক, বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক প্রফেসর ড. শামসুজ্জাম খানের সাথে প্রতিবেদকের একান্ত আলাপ চারিতায় তিনি বলেন, পর্যটন জেলা কক্সবাজারে হতে পারে বাংলাদেশ জাদুঘর নামে একটি জাদুঘর। ইহা বাস্তবায়ন হলে কক্সবাজার সহ দেশের জন্য বহুলাংশে লাভবান হবে। বাংলাদেশ, মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস, কক্সবাজারের ইতিহাস ঐতিহ্য, সাহিত্য সাংস্কৃতি, লোকজসহ বিশেষ করে এই জনপদের ঐতিহ্য সেখানে স্থান পাবে। দেশিবিদেশী পর্যটকরা ঢাকার পরে বাংলাদেশকে জানতে পারবে। পর্যটন শিল্পে এটি নতুন মাত্রা যোগ করবে মনে করছি। বলতে গেলে ঢাকা চট্টগ্রামের পরে কক্সবাজারের স্থান। পরিকল্পিত ও সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যায়ে পর্যটন বিশ্বায়ণের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করতে হলে কক্সবাজারকে ঘিরে আরো অনেক বেশি মহাপরিকল্পনা বুদ্ধি ভিত্তিক চিন্তাভাবনা দরকার।

কক্সবাজারে সাহিত্য সর্ম্পকে জানাতে চাওয়া হলে তিনি বলেন, ভাল মনে হয়েছে কক্সবাজারের সাহিত্য চর্চার, কিছুটা আশার বানী দেখতে পাচ্ছি কিছু সম্ভবনাও। যারা আছে তারা যদি শুদ্ধতার মধ্যে থেকে এগিয়ে যায় অনেক দুর এগিয়ে যাবে। চট্টগ্রামে তো অনেক বড় বড় কবি সাহিত্যিকের জন্ম হয়েছে। এদিক থেকে বলতে গেলে অনেক সমৃদ্ধ এই জনপদ। সাহিত্য,কবিতা,ছড়া,গল্প, ইতিহাস, সমসাময়িক বিষয় নিয়ে এই জনপদে যারা ভাল লিখেন, তাদের জন্য কিছু অর্থনৈতিক পুরষ্কারের ব্যবস্থা করলে তাদের লেখার স্পৃহা অনেক দুর এগুবে। আগামী প্রজন্মের জন্য কিছু রেখে যেতে পারবে তারা।

বাংলাদেশের খ্যাতিমান এই মানুষটিই খোদ রোহিঙ্গা ইস্যুতে চিন্তিত বলে মত প্রকাশ করলেন, এটি এখন হাতের মুটের বাইরে চলেগেছে, কূটনৈতিক প্রক্রিয়ায় এর সমধান আসতে হবে। এর মাঝেও আমাদের আপনাদের আওয়াজ বন্ধ করলে হবে না। রোহিঙ্গা ইস্যু, আমাদের জন্য ছোট কোন বিষয় নয়, সেটির উপর বেশি জোর দিতে হবে, কারণ এই জেলার জনসংখ্যার মধ্যে আনুমানিক পনের থেকে বিশ লাখ রোহিঙ্গা জনসংখ্যা এখানে চেপে বসেছে, সব মিলিয়ে এত ছোট আয়তনের জেলায় এত মানুষের চাপ এতে জীবন চক্রের বিরূপ প্রভাব অব্যশতো পড়বেই। বরাবরে আমাদেরকে ভাবিয়ে তুলছে প্রতিনিয়ত এই বিষয়টি। এই রোহিঙ্গা গুলোর প্রর্ত্যাবাসন প্রক্রিয়াও অনেকটা জটিলতার দিকে রয়েছে। বেশ কয়েক বছর থেকে মাদকের আগ্রাসন চলছে অত্যন্ত নির্লজভাবে কক্সবাজার সহ সারাদেশে। এতে তরুণ প্রজন্ম অত্যন্ত খারাপভাবে ক্ষতির দিকে যাচ্ছে এতে কারো দ্বীমত করার কোন সুযোগ নেই। সন্তান আমার দেশ আমার মাদকের বিরুদ্ধে আমাদেরকেই রুখে দাঁড়াতে হবে। মনে রাখবেন আজকের সকালটাই একান্তই আপনার।

সর্বশেষ সংবাদ

আগুন মানুষের জীবন থামিয়েছে, কিন্তু ঘড়িটা থামাতে পারেনি

আত্মসমর্পণকারীরা দিয়েছে গা শিউরে উঠা তথ্য : আরো ৫শতাধিক ইয়াবাবাজের নাম

কলাগাছের গণজোয়ার দেখে জনবিচ্ছিন্নরা ভোট ডাকাতির পরিকল্পনা করছে- সাঈদী

চকরিয়ায় ৪ মামলার সাজাপ্রাপ্ত আসামী বাবুল গ্রেপ্তার

কুতুবদিয়াপাড়ায় শিশুকে বেধড়ক পিটিয়ে আহত করার অভিযোগ

চকরিয়া প্রেসক্লাবের সদস্য নাজমুলের উপর হামলার নিন্দা ও প্রতিবাদ

নাইক্ষ্যংছড়িতে নৌকার প্রার্থী অধ্যাপক শফিউল্লাহর নির্বাচনী সভা

উখিয়ায় শরনার্থী ক্যাম্পের মক্তবে রোহিঙ্গা ভাষায় পাঠদান

গোমাতলীর আবদুল কুদ্দুছ সওদাগরের ইন্তেকাল

জার্মান সাংবাদিকের উপর হামলার ঘটনায় ১১ রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী আটক

পথে পথে পর্যটক

পেকুয়ায় বিএনপির দু’শতাধিক নেতাকর্মী আ.লীগে যোগদান

চকবাজারে অগ্নিকান্ডে সৌদি বাদশাহ ও ক্রাউন প্রিন্সের শোক

উখিয়ায় নার্সারীতে সন্ত্রাসী হামলা, ভাংচুর: আহত ৩

পাকিস্তানে পালিত হলো ‘আর্ন্তজাতিক মাতৃভাষা দিবস’

আমীরে হেফাজত টেকনাফ আসছেন শনিবার

সকল নূরানী মাদ্রাসাকে বোর্ডের অধিভুক্ত ও সনদ পরীক্ষা বাধ্যতামূলক করা হোক

বদরমোকাম হেফজখানার প্রধান শিক্ষক শামশুল আলম আর নেই

জনপ্রিয় তামিল সঙ্গীত পরিচালক কুরালারাসানের ইসলাম গ্রহণ

শনিবার জেলা আইনজীবী সমিতির নির্বাচন