রাশিয়া ফুটবল বিশ্বকাপের স্টেডিয়াম পরিচিতি

পিবিডি :

(সেন্ট পিটার্সবার্গ স্টেডিয়াম)

আর মাত্র কয়েক দিন। এরপরই পর্দা উঠতে যাচ্ছে বিশ্বকাপ ফুটবলের। এবারের ফুটবল বিশ্বকাপ আয়োজনের দায়িত্ব পেয়েছে রাশিয়া। বিশ্বকাপকে ঘিরে  রাশিয়ায় সবকিছুই করা হচ্ছে নতুন করে। বিশ্বকাপকে সামনে রেখে রাশিয়ার ১১টি শহরে প্রস্তুত করা হয়েছে ১২টি স্টেডিয়াম, যার ছয়টিই তৈরি হয়েছে বিশ্ব  কাপ আসর উপলক্ষ্যে! বিশ্বকাপে স্টেডিয়াম নির্মাণ ও পুনঃসংস্কারে ব্যয় করা হয়েছে প্রায় ৫.৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলার!

মস্কো থেকে ৭১২ কিলোমিটার দূরে সেন্ট পিটার্সবার্গ শহর। পিটার্সবার্গ রাশিয়ার দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর। এই শহরের প্রাচীন নিদার্শন পর্যটকদের আকর্ষণ করে। ঐতিহ্য, শিল্প আর আধুনিকতার জন্য রাশান সাম্রাজ্যের অন্যতম প্রধান কেন্দ্র ছিলো সেন্ট পিটার্সবার্গ। ইউরোপ ফুটবলে দাপিয়ে বেড়ানো রাশিয়ার ফুটবল ক্লাব জেনিথ সেন্ট পিটার্সবার্গের হোম গ্রাউন্ড হলো এই স্টেডিয়াম।

২০০৫ সালে রাশান ফুটবল ক্লাব জেনিত সেইন্ট পিটার্সবাগ তাদের নিজস্ব মাঠের জন্য সেন্ট পিটার্সবার্গে স্টেডিয়াম নির্মাণের অনুমতি পায়। পিটার্সবার্গের সমুদ্র তীরবর্তী ক্রেস্তভস্কি এলাকায় স্টেডিয়ামটির নির্মাণ কাজ শুরু হয়। পূর্বে এখানে ‘কিরোভ স্টেডিয়াম’ ছিল। এটি ভেঙ্গেই নতুন করে পিটার্সবার্গ স্টেডিয়াম নির্মাণ করা হয়। পিটার্সবার্গ স্টেডিয়ামটি ২০০৯ সালের মধ্যে সম্পন্ন করার পরিকল্পনা থাকলেও নির্মাণাধীন ঠিকাদারের কাজের গাফিলতিতে তা  আর হয়ে ওঠেনি।

রাশিয়া সরকার বিশ্বকাপের ভেন্যু হিসেবে প্রস্তুত করার জন্য ‘সেন্ট পিটার্সবার্গ স্ট্রেট গভমেন্ট’ এর কাছে নির্মাণ কাজের দায়িত্ব হস্তান্তর করেন। স্টেডিয়ামটি নির্মাণ করতে ১ বিলিয়ন মার্কিন ডলার ব্যয় করে রাশিয়া সরকার। ২০১৭ সালে উদ্বোধন করে সে বছরের ফিফা কনফেডারেশন্স কাপের ভেন্যু হিসেবে পরীক্ষামূলক ব্যবহার করা হয় পিটার্সবার্গ স্টেডিয়ামকে। এই স্টেডিয়ামের রয়েছে নানান নামের পরিচিতি। পিটার অ্যারেনা, জেনিত অ্যারেনা, ক্রেস্তভস্কি অ্যারেনাসহ বিভিন্ন নাম।

তবে, মজার ব্যাপার হলো। অত্যাধুনিক এই স্টেডিয়াম ইন্ডোর সিস্টেম। যতো প্রতিকূলতা আসুক না কেনো খেলায় কোন প্রভাব পড়বে না। এর আসন সংখ্যা প্রায় ৬৭ হাজার। ফিফা বিশ্বকাপের অন্যতম ভেন্যুগুলোর মধ্যে সবচেয়ে আকর্ষণীয় ভেন্যু হলো সেন্ট পিটার্সবার্গ স্টেডিয়াম। গ্রুপ পর্বের ৪টি আর রাউন্ড অব সিক্সটিন ও সেমিফাইনালের একটি ম্যাচ ছাড়াও, সেন্ট পিটার্সবার্গে অনুষ্ঠিত  হবে বিশ্বকাপের তৃতীয় স্থান নিধার্রনী ম্যাচ।

এছাড়াও, স্টেডিয়ামটিকে এমনভাবে তৈরি করা হয়েছে যে, শুধু ফুটবল খেলাই না রাগবি, বেস বল কিংবা ক্রিকেট সব ধরনের খেলাই যখন তখন আয়োজন করা সম্ভব হবে এই স্টেডিয়ামে।

২০১৮ রাশিয়া বিশ্বকাপের মোট ৭টি সহ ১৪টি দল এই স্টেডিয়াম খেলবে। ১৫ জুন মরক্কো ও ইরানের ম্যাচের মধ্যে দিয়ে অভিষেক হবে সেন্ট পিটার্সবার্গের। স্বাগতিক রাশিয়া ছাড়াও, আসরের দুই হট ফেবারিট আর্জেন্টিনা ও ব্রাজিলের ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে সেন্ট পিটার্সবার্গে। ব্রাজিলের খেলা ২২ আর আর্জেন্টিনা খেলবে ২৬ জুন। বিশ্বকাপের প্রথম সেমিফাইনাল ১০ জুলাই আর তৃতীয় স্থান নির্ধারনী ম্যাচ হবে ১৪ জুলাই।

cbn
কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

ভারত থেকে বাংলাদেশে ঢুকেছে ১৩০০ রোহিঙ্গা

তৃতীয় সাবমেরিন ক্যাবলে যুক্ত হচ্ছে বাংলাদেশ

সড়কে এক মূর্তিমান আতঙ্কের নাম ডাম্পার!

যেভাবে গড়ে উঠেছিল হাওড়া ব্রিজ

ফাইভ-জি আসছে ২০২০ সালে

রোনালদোর গোলে সুপার কোপা জিতলো জুভেন্টাস

আস্থা ভোটে টিকে গেলেন থেরেসা মে

শিক্ষকরাই হচ্ছেন মানুষ গড়ার কারিগর: ইউএনও আবু আসলাম

অধিকার ও অস্তিত্ব রক্ষায় রোহিঙ্গাদের কারণে ক্ষতিগ্রস্তদের ১০ দফা দাবী

শাহপরীরদ্বীপে সংঘবদ্ধ চক্রের ছয় সদস্য আটক

উখিয়ায় জেলা প্রশাসকের কম্বল ও গৃহসামগ্রী বিতরণ

বদরখালী পৌরসভা, মাতামুহুরী হবে উপজেলা- এমপি জাফর আলম

বিজয় সমাবেশ সফল করতে কক্সবাজারে আ. লীগের প্রস্তুতি সভা

বালুখালীতে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা: টাকা লুট, অস্ত্র উদ্ধার

কক্সবাজার শহরে প্রাইভেট কারে আগুন

প্রখ্যাত সাংবাদিক আমানুল্লাহ কবীরের মৃত্যুতে সাংবাদিক ইউনিয়নর কক্সবাজার’র শোক

সুশাসন প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে উন্নয়নে কক্সবাজার-রামুকে এগিয়ে নেয়া হবে- এমপি কমল

১৫ হোটেল ও রেস্তোরাঁকে দুই লাখ ৪৫ হাজার টাকা জরিমানা

চকরিয়ায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সেবার মাননোন্নয়নে সনাক এর মতবিনিময় সভা 

‘কাজী রাসেলকে সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান হিসেবে দেখতে চায় জনগণ’