রাশিয়া ফুটবল বিশ্বকাপের স্টেডিয়াম পরিচিতি

পিবিডি :

(সেন্ট পিটার্সবার্গ স্টেডিয়াম)

আর মাত্র কয়েক দিন। এরপরই পর্দা উঠতে যাচ্ছে বিশ্বকাপ ফুটবলের। এবারের ফুটবল বিশ্বকাপ আয়োজনের দায়িত্ব পেয়েছে রাশিয়া। বিশ্বকাপকে ঘিরে  রাশিয়ায় সবকিছুই করা হচ্ছে নতুন করে। বিশ্বকাপকে সামনে রেখে রাশিয়ার ১১টি শহরে প্রস্তুত করা হয়েছে ১২টি স্টেডিয়াম, যার ছয়টিই তৈরি হয়েছে বিশ্ব  কাপ আসর উপলক্ষ্যে! বিশ্বকাপে স্টেডিয়াম নির্মাণ ও পুনঃসংস্কারে ব্যয় করা হয়েছে প্রায় ৫.৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলার!

মস্কো থেকে ৭১২ কিলোমিটার দূরে সেন্ট পিটার্সবার্গ শহর। পিটার্সবার্গ রাশিয়ার দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর। এই শহরের প্রাচীন নিদার্শন পর্যটকদের আকর্ষণ করে। ঐতিহ্য, শিল্প আর আধুনিকতার জন্য রাশান সাম্রাজ্যের অন্যতম প্রধান কেন্দ্র ছিলো সেন্ট পিটার্সবার্গ। ইউরোপ ফুটবলে দাপিয়ে বেড়ানো রাশিয়ার ফুটবল ক্লাব জেনিথ সেন্ট পিটার্সবার্গের হোম গ্রাউন্ড হলো এই স্টেডিয়াম।

২০০৫ সালে রাশান ফুটবল ক্লাব জেনিত সেইন্ট পিটার্সবাগ তাদের নিজস্ব মাঠের জন্য সেন্ট পিটার্সবার্গে স্টেডিয়াম নির্মাণের অনুমতি পায়। পিটার্সবার্গের সমুদ্র তীরবর্তী ক্রেস্তভস্কি এলাকায় স্টেডিয়ামটির নির্মাণ কাজ শুরু হয়। পূর্বে এখানে ‘কিরোভ স্টেডিয়াম’ ছিল। এটি ভেঙ্গেই নতুন করে পিটার্সবার্গ স্টেডিয়াম নির্মাণ করা হয়। পিটার্সবার্গ স্টেডিয়ামটি ২০০৯ সালের মধ্যে সম্পন্ন করার পরিকল্পনা থাকলেও নির্মাণাধীন ঠিকাদারের কাজের গাফিলতিতে তা  আর হয়ে ওঠেনি।

রাশিয়া সরকার বিশ্বকাপের ভেন্যু হিসেবে প্রস্তুত করার জন্য ‘সেন্ট পিটার্সবার্গ স্ট্রেট গভমেন্ট’ এর কাছে নির্মাণ কাজের দায়িত্ব হস্তান্তর করেন। স্টেডিয়ামটি নির্মাণ করতে ১ বিলিয়ন মার্কিন ডলার ব্যয় করে রাশিয়া সরকার। ২০১৭ সালে উদ্বোধন করে সে বছরের ফিফা কনফেডারেশন্স কাপের ভেন্যু হিসেবে পরীক্ষামূলক ব্যবহার করা হয় পিটার্সবার্গ স্টেডিয়ামকে। এই স্টেডিয়ামের রয়েছে নানান নামের পরিচিতি। পিটার অ্যারেনা, জেনিত অ্যারেনা, ক্রেস্তভস্কি অ্যারেনাসহ বিভিন্ন নাম।

তবে, মজার ব্যাপার হলো। অত্যাধুনিক এই স্টেডিয়াম ইন্ডোর সিস্টেম। যতো প্রতিকূলতা আসুক না কেনো খেলায় কোন প্রভাব পড়বে না। এর আসন সংখ্যা প্রায় ৬৭ হাজার। ফিফা বিশ্বকাপের অন্যতম ভেন্যুগুলোর মধ্যে সবচেয়ে আকর্ষণীয় ভেন্যু হলো সেন্ট পিটার্সবার্গ স্টেডিয়াম। গ্রুপ পর্বের ৪টি আর রাউন্ড অব সিক্সটিন ও সেমিফাইনালের একটি ম্যাচ ছাড়াও, সেন্ট পিটার্সবার্গে অনুষ্ঠিত  হবে বিশ্বকাপের তৃতীয় স্থান নিধার্রনী ম্যাচ।

এছাড়াও, স্টেডিয়ামটিকে এমনভাবে তৈরি করা হয়েছে যে, শুধু ফুটবল খেলাই না রাগবি, বেস বল কিংবা ক্রিকেট সব ধরনের খেলাই যখন তখন আয়োজন করা সম্ভব হবে এই স্টেডিয়ামে।

২০১৮ রাশিয়া বিশ্বকাপের মোট ৭টি সহ ১৪টি দল এই স্টেডিয়াম খেলবে। ১৫ জুন মরক্কো ও ইরানের ম্যাচের মধ্যে দিয়ে অভিষেক হবে সেন্ট পিটার্সবার্গের। স্বাগতিক রাশিয়া ছাড়াও, আসরের দুই হট ফেবারিট আর্জেন্টিনা ও ব্রাজিলের ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে সেন্ট পিটার্সবার্গে। ব্রাজিলের খেলা ২২ আর আর্জেন্টিনা খেলবে ২৬ জুন। বিশ্বকাপের প্রথম সেমিফাইনাল ১০ জুলাই আর তৃতীয় স্থান নির্ধারনী ম্যাচ হবে ১৪ জুলাই।

সর্বশেষ সংবাদ

‘ধারালো দা’সহ আটক হামলাকারীর বিরুদ্ধে মামলা নেয়নি পুলিশ’

স্বপ্নজালের জরুরী সভা অনুষ্ঠিত

জুলিয়ান অ্যাসাঞ্জকে গ্রেফতারের প্রতিবাদে মানববন্ধন

লামায় প্রান্তিক কৃষকের তামাক লুটের অভিযোগ, মারধরে আহত ৭

ঈদগাঁও বাজারে শবে বরাত ও রোজাকে পুঁজি করে ব্যবসায়ীদের ফায়দা লুটার চেষ্টা!

২৭ বছরের প্রেমিকের টানে বাংলাদেশে ৫২ বছরের মার্কিন নারী

প্রশ্নপত্রে পর্নোতারকার নাম দেয়া সেই শিক্ষক বরখাস্ত

ড. আল্লামা জসিম উদ্দীন নদভী বিদগ্ধ ইসলামী শিক্ষাবিদ ও উদার মনের মানুষ ছিলেন

খালেদার মুক্তির দাবিতে বিএনপি হঠাৎ সক্রিয় কেন?

পেকুয়ায় চিংড়িঘেরের বাঁধ কেটে মাছ লুট

ইউপিডিএফ’র হয়ে চাঁদা আদায়কালে ৬লক্ষাধিক টাকাসহ কাঠ ব্যবসায়ি আটক

সমবায় নক্ষত্রের প্রয়াণ

লামায় ২০শতক জমির গাঁজা ক্ষেত ধ্বংস : ১ নারী আটক

চকরিয়া ছাত্রলীগ নেতার ভীতিকর জন্মদিন পালন ! (ভিডিওসহ)

এই পৃথিবী আমাদের আসল ঠিকানা নয় !

টেকনাফে ১০হাজার পিচ ইয়াবা উদ্ধার

১৫ বছরে এক হাজার বার চুরি করেও যে টোকাই ধরা পড়েনি!

নাইক্ষ্যংছড়ি প্রেসক্লাবের মাসিক সভা

ডিসি কলেজের ভিত্তিপ্রস্তর উন্মোচন করলেন মন্ত্রীপরিষদ সচিব শফিউল আলম

মহান মে দিবস উপলক্ষে কক্সবাজার হোটেল শ্রমিক লীগের জরুরী সভা