মুহাম্মদ গিয়াস উদ্দিন, পেকুয়া :

কক্সবাজারের পেকুয়া উপজেলা আল কোরআন ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে ‘মাহে রমজানের তাৎপর্য ও করণীয়’ শীর্ষক এক আলোচনা সভা গতকাল ১৫ মে পেকুয়া বাজারস্থ সমবায় কমিউনিটি সেন্টারে অনুষ্টিত হয়েছে। মাওলানা নাছির উদ্দিনের সভাপতিত্বে অনুষ্টিত আলোচনা সভায় প্রধান মেহমান হিসেবে উপস্থিত থেকে মাহে রমজানের তাৎপর্য ও করণীয় বিষয়ে বিশদভাবে আলোচনা পেশ করেন মাসিক আত তাওহীদ পত্রিকার সহকারী সম্পাদক ওবায়দুল্লাহ হামজা। আলোচনা সভার শুরুতে উদ্বোধনী ভাষণ প্রদান করেন পেকুয়া উপজেলা আল কোরআন ফাউন্ডেনের প্রতিষ্টাতা সেক্রেটারী মাওলানা মুহাম্মদ আতিকুল ইসলাম। শুরুতে কোর আন থেকে তেলওয়াত করেন হাফেজ মো: আবদুল্লাহ। এছাড়াও আলোচনা সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন, আল কোরআন ফাউন্ডেশনের সাংগঠনিক সম্পাদক মাষ্টার জসিম উদ্দিন ও সদস্য মোসলেম উদ্দিন। আলোচনা সভায় ‘সেহরী ও ইফতারের ফজিলত’ ‘ইতিক্বাফের ফঝিলত’ ও দারিদ্রতা বিমোচনে যাকাতের ভূমিকা’শীর্ষক বিষয়ভিত্তিক আলোচনা করেন বিশিষ্ট আলেমগণ। আলোচনা সভায় বক্তারা মাহে রমজানের পবিত্রতা রক্ষার্থে ৪টি প্রস্তাব পাশ করা হয়। প্রস্তাবগুলো হচ্ছে; দিনের বেলায় হোটেল রেস্তারা বন্ধ রাখতে হবে। কিছু কিছু রেস্টুরেন্টে দিনের বেলায় গ্রীল একটু ফাঁক রেখে সারাদিন খাবার বিক্রি করে। এ ব্যাপারে প্রশাসনের চৌকস ভূমিকা রাখতে হবে। এছাড়াও রমজানে দিনের বেলায় খাবার বিক্রিকারী হোটেল-রেস্তারাগুলোকে আইনের আওতায় আনার জন্য প্রশাসনের প্রতি নজরদারী বাড়াতে হবে। সমাজের অসহায় ব্যক্তিদের জাকাতের টাকা, ফিৎরা, দান, ছদকা, দিয়ে দারিদ্রতা বিমোচনে সমাজের সর্বস্থরের বিত্তশালীদের এগিয়ে এসে মহান কল্যাণকর জীবন গঠন করার আহবান। মাহে রমজানের পবিত্রতা রক্ষার্থে অশ্লীল ও কুরুচীপূর্ণ নাটক, সিনেমা ও মাদকের ব্যবহার ও বানিজ্য প্রতিরোধে জনসচেতনতা সৃষ্টিতে সবাইকে ভূমিকা রাখতে আহবান জানানো হয়। নিরবিচ্ছিন্ন পানি, গ্যাস সরবরাহ নিশ্চিত এবং দ্রব্যমূল্য ক্রয় ক্ষমতার মধ্যে রাখতে সরকারের স্ব স্ব মন্ত্রণলায় ও বিভাগকে আহবান জানানো হয়। আলোচনা সভা শেষে মুনাজাত পরিচালনা করেন, অনুষ্টানের প্রধান মেহমান ওবায়দুল্লাহ হামজা। পুরো আলোচনা সভা যৌথভাবে সঞ্চালনা করেছেন মাওলানা মুহাম্মদ আতিকুল ইসলাম ও মাওলানা আজিজুল হক মনির।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •