গর্জনিয়া বাজারে অতিরিক্ত হাসিল আদায়, ব্যবসায়ীরা দিশেহারা 

হাবিবুর রহমান সোহেল, নাইক্ষ্যংছড়ি:
রামু উপজেলার গর্জনিয়া বাজারে অতিরিক্ত হাসিল আদায় সহ অসৌজন্যমুলক আচরণ করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। অতিরিক্ত হাসিল ও ইজারাদারদের বেপরোয়া ব্যবহারে বাজারে আসা ক্রেতা বিক্রেতা সহ সকলে দিশেহারা অবস্থায়।
গত সোমবার দুপুরে গর্জনিয়া বাজারের অলিতে গলিতে ঘুরে দেখা গেছে,  ইজারাদারের নিয়োগ করা করা বেপরোয়া ও উশৃংখল যুবক কর্তৃক হাসিল আদায় কে কেন্দ্র করে ক্রেতা বিক্রেতাদের উপর চড়াও হওয়া ঘঠনা অহর অহর।
কচ্ছপিয়া ইউনিয়নের তিতার পাড়ার তরকারী বিক্রেতা নুরুল আজিম ও মাছ বিক্রেতা জাহেদ জানান, আগের বছরের তুলনায় বর্তমান ইজারাদার এম সেলিম বাজারের প্রতিটি জিনিস থেকে ৩/৪ গুন বেশি টাকা আদায় করছে। আর তাদের নিয়োগ করা বেপরোয়া যুবক কর্তৃক দাবীকৃর্ত টাকা না দিলে সৃষ্টি হচ্ছে নানা ঝগড়া ঝাটি সহ বড় ধরনের ঘটনা। কালি বাড়ির সামনে এক লিচু বিক্রেতা জানান, ফাক্রির কাটার এমদাদ মিয়া নামের এক বেপরোয়া যুবক বাজারে অসহায় নিরহ ও দুর দুরান্তে থেকে আসা বিক্রেতাদের কাছে থেকে জোর করে পেশি শক্তির ভয় দেখিয়ে ৩/৪ গুন বেশি দামে হাসিল আদায় করছে। যার কারনে বাজারে দিন দিন ক্রেতা বিক্রেতার সমাগম কমছে। এই ভাবে চলতে থাকলে গর্জনিয়া বাজারে ক্রেতা থাকলেও বিক্রেতা থাকবে না বলে ধারনা করছেন বাজারে আসা হাজারও ক্রেতা বিক্রেতা। মাছ বাজারের সাগর নামের এক মাছ বিক্রেতা জানান, আগের তুলনায় এখন তাদের ৩/৪ বেশি হাছিল দিতে হচ্ছে।
তার কারন হিসেবে বেশি মুল্যে বাজার ইজারা নেওয়ার যুক্তি দেখান বলে জানান এক গরু ব্যবসায়ী। জানা যায়, গেল অর্ধ মাস আগে ওই অতিরিক্ত হাসিল আদায় কেন্দ্র করে গর্জনিয়া বাজারে বড় ধরনের ঘটনা হয়েছিল। যার কারনে তৎকালিন রামু উপজেলা নির্বাহী অফিসার শাহাজান আলীর নির্দেশে কচ্ছপিয়ার তহসিলদার ও গর্জনিয়া পুলিশ ফাড়িঁর আইসি পরিদর্শক কাজি আরিফ উদ্দিনের নের্তৃতে বাজারে এক দিন সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত সকল প্রকার হাসিল তোলা বন্ধ করে দেয়। পরে অবশ্য উপজেলা প্রশাসনের কাছে তারা অতিরিক্ত হাসিল নিবে না বলে মোছলেকা দিয়ে, বিকেল থেকে আবার হাসিল তুলেন। এলেকার সচেতন মহল বাজারে অতিরিক্ত হাসিল আদায় বন্ধ সহ অনাকাংখিত ঘঠনা এড়াতে উপজেলা প্রশাসনের বাজার মনিটরিং সহ বাজারে সকল প্রকার পন্যের হাসিলের মুল্য তালিকা লটকানোর দাবী জানান।
বাজারে অতিরিক্ত হাসিল নিয়ে কথা বলতে গর্জনিয়া বাজার ইজারাদার যুবলীগ নেতা এম সেলিমের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, তার প্রতি পক্ষের লোক জন তার বিরুদ্ধে মিথ্যাচার করছে।
এই বিষয়ে কথা বলতে রামু উপজেলার নবাগত নির্বাহী অফিসার লুৎফুর রহমানের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, তিনি এই বিষয়ে খোজ খবর নিয়ে ব্যবস্থা নিবেন।
cbn
কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

কক্সবাজার কলেজ বাংলা বিভাগের শিক্ষা সফর : ব্যক্তিগত অনুভূতি

কক্সবাজারে জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের নতুন সভাকক্ষ উদ্বোধন

যুবসমাজের আনন্দায়োজন: কিছু ভাবনা , কিছু কথা…

সর্বক্ষেত্রে আল্লাহর নির্দেশ মেনে চলার নাম ইবাদত

উখিয়ায় উপজেলা নির্বাচনী হাওয়া : মাঠে বীর মুক্তিযোদ্ধা জাফর আলম চৌধুরী

চাকরি প্রত্যাশিদের তালিকা তৈরি কার্যক্রমের উদ্বোধন করল ‘জাগো উখিয়া’

শহীদ জিয়ার জন্মবার্ষিকীতে সুবিধাবঞ্চিত ও দুস্থদের পাশে চ.বি ছাত্রদল

মালয়েশিয়া প্রবাসী যুবককে মুঠোফোনে হুমকির অভিযোগ

দূর্গম পাহাড়ে স্বেচ্ছাশ্রমে নির্মিত হলো ১০ কি:মি: রাস্তা

পেকুয়ায় ইমামকে কুপিয়ে আহত

উখিয়া উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান সুলতান মাহমুদ জামিনে মুক্ত

মোহাম্মদ নাছির উদ্দিন’র পিএইচডি ডিগ্রী লাভ

কক্সবাজার বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের নতুন নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ আব্দুল কাদের গণি

শেখ হাসিনার বদান্যতায় মাথা গোজার ঠাঁই পেল গৃহহীন ১২৬ পরিবার

বিশ্বের সর্বাধিক হতদরিদ্র মানুষের বাস ভারতে

সবচেয়ে ‘কিউট’ কুকুরের মৃত্যু

চট্টগ্রামে ইয়াবা নিয়ে রোহিঙ্গা দম্পতিসহ গ্রেপ্তার ৪

মাদকবিরোধী অভিযানের সঙ্গে সমাজে ফেরার সুযোগও দিতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

টেকনাফে গ্রেপ্তার মাদকের আসামি ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত

এনজিওতে স্থানীয়দের ছাঁটাই উদ্বেগের