ফারহানা ইসলাম সুমী :

“শিশু” শব্দটা শুনলেই আমাদের চোখের সামনে প্রাণবন্ত নাদুসনুদুস একটা বাচ্চার চেহারা ভেসে উঠে। কিন্তু সেই নাদুসনুদুস টা যদি হয় শিশুর অসুস্থতা তবে সেটা খুবই বেদনাদায়ক। এমনই বেদনা দায়ক পরিস্থিতির শিকার আমাদের প্রিয় শহর কক্সবাজারের ২ শিশু। শিশু হলেও তাদেরকে দেখে যে কেউ বয়স্ক মনে করে ভুল করবে। ডাক্তারদের মতে এটা জিন ঘটিত রোগ।

এই বাচ্চা দুইটি genetic disorder রোগে ভোগছে। বড় জন রাকিবুল হাসান (৯), ছোটজন শাকিবুল হাসান (৪)। মাত্র ৯ বছর বয়সে  রাকিবুল হাসানের ওজন ৮৫ কেজি, আর ৪ বছর বয়সে শাকিবুল হাসানের ওজন ২৫ কেজি । দেখতে প্রাপ্ত বয়স্ক মনে হলে ও রাকিবুল হাসান আসলে পড়ে ক্লাস টুতে পড়ে। শাকিবুল হাসান এখনো স্কুলেই যায় না।

 মা রুবিনা আক্তার রুপা, বাবা আবুল বশর (৪২) দিনমজুর, কক্সবাজার শহরের বঙ্গবন্ধু সড়কের বাসিন্দা ওরা। বাবা বশরের কাছে ওদের খাবার দাবার ভরণপোষণ রীতিমত কষ্টসাধ্য। বাচ্চা গুলি ঘুমানোর সময় শ্বাস নিতে কষ্ট হয়। তাদের চিকিৎসাও সম্ভব হচ্ছে না । সে সামর্থ বাবা মার নাই । আমাদের সহায়তা না পেলে হয়তো তাদের পথে পথে ভিক্ষা করতে হবে। হয়তো বেঁচেও থাকতে পারবে না । ওরা বেড়ে উঠুক প্রাণবন্ত একটা শৈশব আর স্বাভাবিক সুন্দর জীবন নিয়ে। রাকিব, সাকিব সবার ভালবাসা চায়। আর আমাদের এতটুকু সহায়তা পেলে ওরা স্বাভাবিক জীবনে ফিরে যেতে পারবে। আসুন তাদের চিকিৎসা ও ভরণ পোষণের জন্য মানবিক হাত বাড়িয়ে দিই । কোন সাহায্যকারী সংস্থা বা ব্যক্তিগতভাবে  সহায়তা করতে চান তাদের পিতার নম্বরে যোগাযোগ করতে পারেন।

আবুল বশর (পিতা)

মোবাইল নম্বর – 01879312839

বঙ্গবন্ধু সড়ক

কক্সবাজার।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •