চকরিয়া থেকে সংবাদদাতা:

চকরিয়ায় চতুর্থ শ্রেণী পড়ুয়া এক স্কুল ছাত্রীকে আবদুল কাদের (১৮) নামের এক বখাটে যুবকের হাতে  ধর্ষণের শিকার হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। শুক্রবার(১১মে) রাত সাড়ে ৮টার দিকে উপজেলার চিরিংগা ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডস্থ বুড়িপুকুর হিন্দুপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।বখাটে আবদুল কাদের চকরিয়া পৌরসভার ৭নম্বর ওয়ার্ডের খোন্দকার পাড়া এলাকার আমজাদ আলীর পুত্র।এ ঘটনায় ভিকটিমের পিতা ওই বখাটে যুবকের বিরুদ্ধে শনিবার রাত্রে থানায় অভিযোগ দায়ে করে।

ধর্ষণের শিকার ওই ছাত্রী বর্তমানে কক্সবাজার সদর হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস(ওসিসিতে) চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

চিরিংগা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব জসিম উদ্দিন বলেন, শুক্রবার রাতে ধর্ষনের শিকার ওই ছাত্রীকে বাড়িতে একা রেখে তার ভাই ও পরিবারের লোকজন তাদের এক আত্বীয়ের বাড়িতে সামাজিক অনুষ্টানে যায়।ছাত্রীর পরিবারের কেউ বাড়িতে না থাকার সুবাধে পার্শ্ববর্তী খোন্দকার পাড়া এলাকার আমজাদের পুত্র

বখাটে যুবক আবদুল কাদের ওই ছাত্রীর বাড়িতে ঢুকে পড়ে।বাড়িতে ঢুকে ওই স্কুল ছাত্রীকে জোরপূর্বক ধর্ষণের চেষ্টা করে।এসময় ছাত্রী শোর চিৎকার করলে বাড়ির আশপাশের লোকজন ছুটে আসলে বখাটে যুবক আবদুল কাদের দ্রুত পালিয়ে যায়।পরে পরিবারের ও স্থানীয় লোকজন ধর্ষনের শিকার ছাত্রীকে উদ্ধার করে প্রথমে চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়।এসময় হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে কক্সবাজার সদর হাসপাতালের ওসিসিতে প্রেরণ করেন।

চকরিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) মো: বখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরীর কাছে ঘটনার ব্যাপারে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ধর্ষনের ঘটনায় ছাত্রীর পিতা বাদী হয়ে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে।তিনি বলেন, ছাত্রীর শরীরের বিভিন্ন স্থানে আছড়ের চিহৃ দেখা গেছে। ডাক্তারী পরীক্ষার রিপোর্ট হাতে না পাওয়া পর্যন্ত ধর্ষণ হয়েছে কিনা জানা যাবে না।তবে অভিযুক্ত আসামীকে ধরতে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলে তিনি জানান।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •