এম.মনছুর আলম, চকরিয়া:

চট্রগ্রাম -কক্সবাজার মহাসড়কে চকরিয়ায় চিরিংগা হাইওয়ে পুলিশ অভিযান চালিয়ে যাত্রীবাহী নোহা গাড়ীতে তল্লাসী করে ১০হাজার ইয়াবা উদ্ধার করেছে।পুলিশ এসময় পাচার কাজে জড়িত থাকায় গাড়ীর চালক ও হেলপারকে আটক করেছে ।শুক্রবার(১১মে) দুপুর ১টার দিকে কক্সবাজার মহাসড়কের উপজেলার চকরিয়া বানিয়ারছড়াস্থ আমতলি নামক এলাকায় পুলিশ গাড়ী তল্লাসী করে এসব ইয়াবা উদ্ধার করে।ধৃত ইয়াবা পাচারকারী হলেন,কক্সবাজার সদর উপজেলার রুমালিয়াছড়া এলাকার মো:কলিম উল্লাহর পুত্র নোহা গাড়ীর চালক নাছির উদ্দিন(৩৮) ও চট্রগ্রামের চন্দনাইশ উপজেলার পূর্ব দোহাজারী এলাকার নবাব আলীর পুত্র গাড়ীর হেলপার আবুল কালাম(৩৫)।এ ঘটনায় পুলিশ সংশ্লিষ্ট মাদক আইনে থানায় মামলা দায়ের করেছে।

বানিয়ারছড়াস্থ চিরিংগা হাইওয়ে পুলিশ সুত্রে জানাগেছে, চট্টগ্রাম কক্সবাজার মহাসড়কের চকরিয়াস্থ চিরিংগা হাইওয়ে পুলিশ বানিয়ারছড়া ষ্টেশন সংলগ্ন আমতলি নামক এলাকায় শুক্রবার দুপুরের দিকে সড়কে নিয়মিত টহলের অংশ বিশেষ দায়িত্ব পালন করেছিল হাইওয়ে পুলিশের একটি টীম।এসময় নোহা গাড়ী যোগে ইয়াবা পাচারের গোপন সংবাদ পেয়ে কক্সবাজার থেকে ছেড়ে আসা চট্রগ্রামগামী যাত্রীবাহী নোহা (ঢাকা মেট্রো-চ ১৫-৫৪৫১)গাড়ীটি উল্লেখিত স্থানে পৌছলে সিগন্যাল দিয়ে থামানো হয়।পরে হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির এস আই মিজানুর রহমানের নেতৃত্বে সঙ্গীয় পুলিশ ওই যাত্রীবাহী গাড়ীটি তল্লাসী চালিয়ে তৈলের টাঙ্কির উপরে কসট্যাব দিয়ে মুড়ানো ১০হাজার ইয়াবা উদ্ধার করা হয়েছে বলে পুলিশ জানান।

এ ব্যাপারে চিরিংগা হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ সার্জেন্ট নুরে আলমের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন,চকরিয়াস্থ কক্সবাজার মহাসড়কে হাইওয়ে পুলিশের অভিযানে ১০হাজার ইয়াবাসহ নোহা গাড়ীর চালক ও হেলপারকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয়েছে।ধৃত ইয়াবা পাচারকারীকে থানায় সোপর্দ করা হয়েছে।এনিয়ে হাইওয়ে পুলিশ সংশ্লিষ্ট আইনে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে বলে তিনি জানান।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •