নাইক্ষ্যংছড়িতে নদী পাড়ি দিয়ে গন্তব্যে মানুষ

মোঃ জয়নাল আবেদীন টুক্কু, নাইক্ষ্যংছড়ি:
পার্বত্য বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ৫০ গাজের মধ্যে একটি ছোট্ট নদী । প্রতি বছর বর্ষা মৌসুমে দূর্ভোগের শেষ নেই, তাবে এখনো নদী পাড়ি দিয়ে স্কুলে যান শিক্ষার্থী এবং নিজ নিজ গন্তব্য স্থালে যান বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ। ঐ নদীটির পূর্ব পার্শ্বে কক্সবাজারের রামু উপজেলার কচ্ছপিয়া ইউনিয়নের তুলাতলী, মুরাপড়া, বড় জামছড়িসহ একটি আবাসন প্রকল্প আর একটি অশ্রয় কেন্দ্র মিলে হাজার হাজার জনসাধারণের বসবাস। উক্ত এলাকাটি নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা সদসেরর একেবারে নিকটে হওয়ায় এসব এলাকার মানুষের ব্যবসা বানিজ্য যে কোন কাজ কর্ম, মাদ্রাসা, স্কুল, কলেজসহ সব কিছু নাইক্ষ্যংছড়ি কেন্দ্রীক।

দুঃখের বিষয় হচ্ছে ২০/৩০ বছর ধরে শুকনো মৌসুমে কাপড় ভিজিয়ে খাল পাড়ি দিলেও বর্ষাকালে বাঁশের সাঁকো দিয়ে চলে এসব গ্রামের হাজারো গ্রামবাসী ও শিক্ষার্থীরা নাইক্ষ্যংছড়ি যাতায়াত করে। বিশেষ করে স্কুল, মাদ্রাসা ও কলেজ পড়ুয়া শিক্ষার্থীরা প্রতিদিন কাপড় ভিজিয়ে যাতায়াত করলেও বর্ষাকালে বাঁশের সাঁকো ভেঙ্গে যায়। এত তাদের বিকল্প পথ তিন চার কিলো ঘুরে হয় রূপনগর ব্রীজ, না হয় নাইক্ষ্যংছড়ি থানার ব্রীজ দিয়ে যেতে হয় তাদের।

স্থানীয়রা ও শিক্ষার্থীরা জানান, বর্ষাকালে তিন/চার কিলো ঘুরে স্কুলে যেতে অনেক সময় লাগে তাছাড়া যেতে যেতে দুই একটি ক্লাস ও পায়না এমন সময় গেছে।

নাইক্ষ্যংছড়ি হাজী এম এ কালাম ডিগ্রি কলেজের একাদশ শ্রেণীর ছাত্র মো: রফিক বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শিক্ষা ও যোগাযোগ খাতে আন্তরিক হওয়ার পরও পিছয়ে আছি আমরা। মুক্তিযোদ্ধা ভুলা শর্মা জানান কয়েক বছর আগে বাঁশের সাঁকো দিয়ে পারাপারের সময় এক যুবক পানিতে পড়ে গেলে পরের দিন তার লাশ পাওয়া যায়। তার মতে বান্দরবান ও কক্সবাজার রামু আসনের দুই সংসদ সদস্যর সুদৃষ্টি হলে আমর পেতে পারি একটি ব্রীজ।

নাইক্ষ্যংছড়ি সদর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য আরেফ উল্লাহ ছুট্টু জানান এটি নাইক্ষ্যংছড়ি ও কচ্ছপিয়ার সীমানা হলেও একটি ব্রীজ অতীব প্রয়োজন। কারন খালের ঐপারে হচ্ছে সব কৃষক ব্যবসায়ী। তাদের উৎপাদিত ফসল গুলো নাইক্ষ্যংছড়ি বাজারে বিক্রি করতে আনতে হলে ৩/৪ কিলো ঘুরে আসতে তাদের খরচ দুই থেকে তিন গুন বেশি গুনতে হয়।

কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

দলীয় পরিচয় বহাল রেখে অন্যের প্রতীকে ভোট নয় অনিবন্ধিতদের

জাতীয় হিফযুল কুরআন প্রতিযোগিতায় বিচারক মনোনীত হলেন মাওলানা মুহাম্মদ ইউনুস ফরাজী

১০ বিশিষ্ট ব্যক্তিকে নির্বাচনে সম্পৃক্ত করতে চান ড. কামাল

আবারও স্পেনের সেরা লিওনেল মেসি

ট্রাম্পের বিরুদ্ধে সিএনএনের মামলা

জিএম রহিমুল্লাহ, ভিপি বাহাদুরসহ ৬ জনের আগাম জামিন

লক্ষ্যারচরে দরিদ্রদের মাঝে স্বল্প মূল্যে খাদ্যশস্য বিতরণ

কক্সবাজার ১ ও ২ থেকে সালাহউদ্দিন ও হাসিনা আহমদ’র মনোয়নপত্র গ্রহণ

চট্টগ্রাম মেডিকেল হাসপাতালে ক্যানসারের রেডিওথেরাপি চালু 

পেশকার পাড়ায় সরকারের উন্নয়ন কর্মকান্ডের প্রামান্য চিত্র প্রদর্শন

পেকুয়ায় শ্রমিকলীগ নেতা শাহাদাতকে হত্যাচেষ্টার ঘটনায় অবশেষে মামলা

নুরুল বশর চৌধুরী কক্সবাজার-২ আসনের মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন

পর্দা উঠলো ওয়ালটন বীচ ফুটবল টূর্ণামেন্ট’র উদ্বোধন

কক্সবাজার জেলা পুলিশে ১০০ নতুন কনস্টেবলের যোগদান

মহেশখালী-কুতুবদিয়া আসনে সালাহউদ্দিন আহমদের জন্য মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ

বিএনপি মনোয়নপত্র নিলেন নাইক্ষ্যংছড়ির তৌফাইল!

উখিয়ায় খাদ্য নিরাপত্তা, পুষ্টিমান উন্নয়ন ও ভিজিডি প্রকল্পের সভা 

নির্বাচন চূড়ান্ত সিঁড়িতে!

দলীয় মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করলেন লামা উপজেলা বিএনপির দুই নেতা

কক্সবাজার-৩ আসনে আ. লীগের মনোনয়ন ফরম জমা দিয়েছেন মন্ত্রী মোশাররফ পুত্র সুমু