মালয়েশিয়ায় মালয় ঝড়, এগিয়ে গেলেন মাহাথির

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:
মালয়েশিয়ার ১৪তম সাধারণ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ শেষে গণনা চলছে। বুধবার সকাল ৮টা থেকে শুরু হওয়া ভোটগ্রহণ স্থানীয় সময় বিকেল ৫টায় শেষ হয়েছে। বার্তাসংস্থা এপি বলছে, মালয়েশিয়ায় নির্বাচনের অনানুষ্ঠানিক ফলাফল দেশটির সাবেক প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদ নেতৃত্বাধীন বিরোধীদল পাকাতান হারাপানের দিকে ঝুলছে।

বুধবার রাত সোয়া ৮টায় জাগোনিউজের মালয়েশিয়া প্রতিনিধি আহমাদুল কবির জানান, প্রাথমিক ফলাফলে এগিয়ে রয়েছে নাজিব রাজাকের বারিসান ন্যাশনাল (বিএন); ৪৬ আসনে জয়ী হয়েছে বিএন। অন্যদিকে মাহাথির মোহাম্মদের পাকাতান হারাপান পেয়েছে ৪৩ আসন।

তবে বাংলাদেশ সময় রাত ৯টা ২৫ মিনিটে কুয়ালালামপুর থেকে তিনি জানান, নির্বাচনী ফলাফলে তুমুল প্রতিদ্বন্দ্বিতা হতে যাচ্ছে। সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী নাজিব রাজাকের বারিসান ন্যাশনালকে পেছনে ফেলেছে মাহাথির মোহাম্মদের পাকাতান হারাপান। মাহাথির মোহাম্মদের পাকাতান হারাপান ৬০ আসনে এবং নাজিবের বারিসান ন্যাশনাল ৫৩ আসনে জয় পেয়েছে। তবে চূড়ান্ত ফল পেতে আরো অপেক্ষা করতে হবে।

তবে দীর্ঘ ৬০ বছর ধরে দেশটির ক্ষমতায় থাকা ন্যাশনাল ফ্রন্টের শাসনের অবসান ঘটছে কি-না আনুষ্ঠানিক ফল ঘোষণা না হওয়া পর্যন্ত সে ব্যাপারে এখনো পরিষ্কার কোনো তথ্য পাওয়া যাচ্ছে না।

দেশটির পূর্বাঞ্চলের সারাওয়াক প্রদেশে ক্ষমতাসীন দলের দুই প্রার্থী ইতোমধ্যে হেরে গেছেন। স্থানীয় টেলিভশন চ্যানেলের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মালয় অধ্যুষিত ওই অঞ্চলে চীনা ও ভারতীয় দুটি দলের প্রধান তাদের নিজ আসনে পরাজিত হয়েছেন। এই অঞ্চলকে ক্ষমতাসীন ন্যাশনাল ফ্রন্টের ভোট ব্যাংক হিসেবে পরিচিত।

ভোটগ্রহণ শেষের ৪ ঘণ্টার বেশি সময় পেরিয়ে গেলেও দেশটির নির্বাচন কমিশন এখন পর্যন্ত আনুষ্ঠানিক ফল ঘোষণা করেনি। তবে ক্ষমতাসীন এবং বিরোধী শিবির থেকে নির্বাচন কমিশনের সমালোচনা করা হয়েছে।

মালয়েশিয়ার মারদেকা অপিনিয়ন সেন্টার বলছে, ২০১৩ সালের সাধারণ নির্বাচনে ৮৫ শতাংশ ভোট পড়লেও এবার সে সংখ্যা কিছু কম। তবে অন্যান্য বছরের নির্বাচনের চেয়ে এবারে ভোট পড়ার সংখ্যা তুলনামূলক বেশি।

অপিনিয়ন সেন্টার প্রোগ্রাম পরিচালক ইব্রাহীম সুফিয়ান এপিকে বলেছেন, সম্ভবত ৮০ শতাংশ বা ৭০ শতাংশের ওপরে ভোট পড়েছে। তবে স্থানীয় সময় বিকেল ৩টায় দেশটির নির্বাচন কমিশন জানায় ৬৯ শতাংশ ভোট পড়েছে।

কেন্দ্রীয় পার্লামেন্টের ২২২ আসনে এবং ১৩ রাজ্যের ১২টিতে ৫০৫ আসনে প্রার্থীরা প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন। একটি রাজ্যে বুধবারই ন্যাশনাল ফ্রন্টকে বিজয়ী ঘোষণা করা হয়েছে।

মালয়েশিয়া ভোটার রয়েছে প্রায় দেড় কোটি। এর মধ্যে পুলিশ ও সশস্ত্র বাহিনীর ৩ লাখ ভোটার ৫ মে আগাম ভোট দিয়েছেন।

সর্বশেষ সংবাদ

অগ্নিকান্ডে মৃতের সংখ্যা ৬৮, হস্তান্তর ৩৪টি : তদন্ত কমিটি গঠন

একুশের প্রথম প্রহরে শহীদ মিনারে মুক্তিযোদ্ধা সংসদের শ্রদ্ধা নিবেদন

সুন্দর হস্তলিপিতে প্রথম সাংবাদিকপুত্র উমামা

অগ্নিকাণ্ডে নিহতরা শহীদ : আল্লামা আহমদ শফী

বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে রামু আজিজুল উলুম মাদ্রাসায় মাতৃভাষা দিবস পালিত

রায় বাংলায় লিখতে বিচারকদের প্রতি প্রধানমন্ত্রীর আহ্বান

দৈনিক কক্সবাজার পত্রিকায় ‘জমি দেব ঘুষ দেব না’-শীর্ষক সংবাদের আংশিক প্রতিবাদ

একুশের প্রভাতে কক্সবাজার ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের শ্রদ্ধাঞ্জলি

হুফফাজুল কুরআন সংস্থার উদ্যোগে শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন

অপহরণকারী গুজবে ৩ জার্মান সাংবাদিকের উপর রোহিঙ্গাদের হামলা

চকরিয়ায় হেলিকপ্টারে এসে মাদ্রাসা উদ্বোধন করলেন আল্লামা আহমদ শফি

বেনাপোল নোম্যান্সল্যান্ডে দু‘বাংলার হাজার হাজার ভাষাপ্রেমী মানুষের মিলন মেলা

শহীদ মিনারে ইইডি কক্সবাজার জোনের শ্রদ্ধা নিবেদন

মানবপাচারের মামলায় চৌফলদন্ডী ছাত্রলীগ নেতা জিকু গ্রেফতার

আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে রামু লেখক ফোরামের আলোচনা সভা

শহীদ মিনারে জেলা পরিষদের শ্রদ্ধা নিবেদন

একুশ তুমি

চট্টগ্রাম শহীদ মিনারে কক্সবাজার সমিতির শ্রদ্ধা নিবেদন

শহীদ মিনারে আইনজীবী সমিতির শ্রদ্ধা ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

শহীদ মিনারে জেলা পুলিশের শ্রদ্ধা নিবেদন