এম.মনছুর আলম, চকরিয়া:

সরকারী প্রশাসনিক কাজের পাশাপাশি ব্যাতিক্রমী উদ্যোগ নিয়ে শিক্ষকতা করছেন কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা( ইউএনও) নূরুদ্দীন মুহাম্মদ শিবলী নোমান।সপ্তাহে রুটিন করে উপজেলার বিভিন্ন স্কুল-কলেজ ও মাদ্রাসায় শিক্ষার মান উন্নয়ন তরান্বিত করা লক্ষে কোন না কোন শিক্ষা প্রতিষ্টান পরিদর্শনে গেলে শিক্ষার্থীদের ক্লাস  নিচ্ছেন ইউএনও।

মঙ্গলবার (৮মে) দুপুর সাড়ে ১২ টার দিকে উপজেলার খুটাখালীস্থ কিশলয় আদর্শ শিক্ষা নিকতনে প্রশাসনিক কাজের পাশাপাশি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পরিদর্শনে গেলে ওই বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণি ও প্রাথমিক বিভাগের চতুর্থ শ্রেণিতে ইংরেজী পাঠ্য বইয়ের ক্লাস নেন।

২০মিনিটের ক্লাসে শিক্ষার্থীরা বিভিন্ন অজানা বিষয়ে ক্ষনিকের শিক্ষক ইউএনও উপস্থিত শিক্ষার্থীদের পাঠদান ব্যাপরে বিভিন্ন প্রশ্ন করেন।দুই ক্লাসে বিপুল সংখ্যক ছাত্র-ছাত্রী উপস্থিত ছিলেন।দুপুর বারটার সময়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নূরুদ্দীন মুহাম্মদ শিবলী নোমান বিদ্যালয় হঠাৎ করে পরিদর্শনে গেলে তিনি বিদ্যালয়ের সকল কার্যক্রম ও বিদ্যালয় চলাকালীন প্রতিটি ক্লাশ রুম ঘুরে দেখেন এবং সন্তোষ প্রকাশ করেন। এর ফাঁকে বিদ্যালয়ের নবম ও চতুর্থ শ্রেনীতে ইংরেজী ক্লাশ চলাকালিন সময়ে প্রবেশ করে তিনি ছাত্র-ছাত্রীদের পড়াশুনার বিষয়ে খোজ-খবর নেয়।

তাঁর এ ব্যাতিক্রমী উদ্যোগকে স্বাগত জানান বিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষিকা। পরে তিনি বিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষিকা ও পরিচালনা কমিটির সাথে পড়া-লেখা ও শিক্ষার  মান উন্নয়ন বৃদ্ধির লক্ষে এক মতবিনিময় সভা করেন।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নূরুদ্দীন মুহাম্মদ শিবলী নোমান ক্লাসে শিক্ষার্থীদের উদ্যেশ্য বলেন, আমিও এক সময় তোমাদের মতো ছোট ছিলাম।আমি পড়া-লেখা শেষ করে আজ তোমাদের সামনে একজন প্রশাসনিক কর্মকর্তা হিসেবে তোমরা কি রখম পড়া-লেখা করছো তা স্বচোক্ষে দেখতে আসলাম।নিয়মিত বিদ্যালয়ে উপস্থিত থাকতে হবে। শিক্ষকদের পাঠদান ভাল ভাবে শ্রবন করে অনুধাবন ও অনুকরণ করতে হবে।প্রতিদিন ক্লাসের পাঠ্য বইয়ের কাজ দিনেই শেষ করতে হবে।তিনি বলেন,রাষ্ট্র ও সমাজ আজ তোমাদের দিকে তাকিয়ে আছে।আজকের শিক্ষার্থীরা হলো আগামী দিনের সুন্দর সমৃদ্ধশালী সোনার বাংলাদেশ বির্নিমান গড়ার সুনাগরিক।সরকার প্রতিবছর বিনা মূল্য বই বিতরণ করে যাচ্ছে লক্ষ লক্ষ শিক্ষার্থীকে।এছাড়া সরকার উপবৃত্তি চালু করেছে।

অসহায় ও দরিদ্র পরিবারের মেধা নির্ভর শিক্ষার্থীর জন্য শিক্ষা বৃত্তিও চালু করেছেন।শুধুমাত্র তোমাদের ভাল ভাবে পড়া-লেখা করে একজন আদর্শ ও নীতিবান ছাত্র হিসেবে নিজেকে গড়ে তুলতে হবে।বিশেষ করে ইংরেজী, গণিত ও বিজ্ঞান সম্পর্কে তোমাদের যথেষ্ট পারদর্শী হতে হবে।শেখার কোন শেষ নেই। তোমরা যতই পড়বে, ততই তোমরা ভাল কিছু শিখতে পারবে।পাঠ্য বইয়ের বাইরেও ইউএনও বাল্যবিয়ে, ইভটিজিং ও মাদকের কুফল সম্পর্কে শিক্ষার্থীদের অবহিত করেন। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক (ভারপ্রাপ্ত) নুরুল কবির বলেন, একজন ইউএনও’র স্বেচ্ছায় পাঠদান এই উপজেলায় প্রথম। ইউএন’র কাছ থেকে পাঠ নেয়ায় শিক্ষার্থীরা খুবই খুশি।তাঁর পাঠ দেয়া ২০ মিনিটের ক্লাসে শিক্ষার্থীরা মনোযোগ সহকারে ক্লাস করেছে।ইউএনও মহোদয় সুযোগ পেলে স্কুলে পাঠদান করতে আসবেন বলে তিনি জানিয়েছেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •