এসএসসিতে পেকুয়া জিএমসি উপজেলার শীর্ষে : পাশের হার ৭২.৮৫ ভাগ

এম.জুবাইদ,পেকুয়া :
সদ্য প্রকাশিত এস এস সি পরীক্ষার ফলাফলে পেকুয়া জি এম সি ইনষ্টিটিউশন উপজেলার শীর্ষে অবস্থান করছে। ফলাফল বিবরণীতে জানা যায়, পেকুয়া মডেল জি এম সি ইনষ্টিটিউশন থেকে ৩৮১ জন ছাত্রছাত্রী পরীক্ষায় অংশ নেয় এর মধ্যে ৩০৯ জন পাশ করে। জি পি এ ৫ পেয়েছে ২১ জন। পাশের হার ৮১.১০ ভাগ। শীলখালী উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ১৭৩ জন ছাত্রছাত্রী পরীক্ষায় অংশ নেয় এর মধ্যে ১৪৬ জন পাশ করে। পাশের হার ৮৪.৩৯ ভাগ। জি পি এ পেয়েছে ৮ জন। পেকুয়া বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় হতে ১০৯ জন ছাত্রছাত্রী পরীক্ষায় অংশ নেয় এর মধ্যে ৬২ জন পাশ করে। পাশের হার ৫৬.৮৮ ভাগ। মেহেরনামা উচ্চ বিদ্যালয় হতে ১৩৭ জন ছাত্রছাত্রী পরীক্ষায় অংশ নেয়। এর মধ্যে পাশ করে ৬০ জন। পাশের হার ৪৩.৮০ ভাগ। জি পি এ পেয়েছে ১ জন। মগনামা উচ্চ বিদ্যালয় হতে ৮৫ জন ছাত্রছাত্রী পরীক্ষায় অংশ নেয়। এর মধ্যে পাশ করে ৭০ জন। পাশের হার ৮২.৩৫ ভাগ। রাজাখালী ফৈয়জুনেচ্ছা উচ্চ বিদ্যালয় হতে ৯১ জন ছাত্রছাত্রী পরীক্ষায় অংশ নেয়। এর মধ্যে পাশ করে ৭৫ জন। পাশের হার ৮২.৪২ ভাগ। জি পি এ পেয়েছে ১ জন। রাজাখালী এয়ার আলী খাঁন উচ্চ বিদ্যালয় হতে ১০১ জন ছাত্রছাত্রী পরীক্ষায় অংশ নেয় এর মধ্যে ৯১ জন পাশ করে। পাশের হার ৯০.১০ ভাগ। জি পি এ পেয়েছে ১ জন। টইটং উচ্চ বিদ্যালয় হতে ৮৫ জন ছাত্রছাত্রী পরীক্ষায় অংশ নেয় এর মধ্যে ৪২ জন পাশ করে। পাশের হার ৪৯.৪১ ভাগ। হোসনে আরা উচ্চ বিদ্যালয় হতে ৪৬ জন ছাত্রছাত্রী পরীক্ষায় অংশ নেয় এর মধ্যে ২৪ জন পাশ করে। পাশের হার ৫২.৭১ ভাগ। বারবাকিয়া আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় হতে ৮৫ জন ছাত্রছাত্রী পরীক্ষায় অংশ নিয়ে ৬৩ জন পাশ করে। পাশের হার ৭৪.১২ ভাগ। সর্বপুরি পেকুয়া উপজেলায় এবার দু কেন্দ্রে মোট ১২৯৩ জন ছাত্রছাত্রী পরীক্ষায় অংশ নেয়। পাশ করে ৯৪২ জন। উপজেলায় শতকরা পাশের হার ৭২.৮৫ ভাগ।
এদিকে উপজেলায় ফলাফলে প্রতিবছরের ন্যায় এবারও পেকুয়া উপজেলা ঐতিহ্যবাহী শিক্ষা প্রতিষ্টান পেকুয়া মডেল জি এম সি ইনষ্টিটিউশন উপজেলার শীর্ষে অবস্থান করছে। এ প্লাসের দিক দিয়ে উপজেলার শীর্ষে এবং পাশের হারের দিক দিয়ে রাজাখালী এয়ার আলী খাঁন উচ্চ বিদ্যালয় শীর্ষে রয়েছে।
এ ব্যাপারে জানতে পেকুয়া মডেল জি এম সি ইনষ্টিটিউশনের প্রধান শিক্ষক জহির উদ্দিনের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি এ প্রতিবেদককে জানান নানা বাধা প্রতিকুলতার মাঝে আমার প্রতিষ্টানের শিক্ষার্থীরা এ প্রতিষ্টানের সুনাম ধরে রেখেছে। প্রতি বছরের ন্যায় এবারও ২১ জন শিক্ষার্থী এ প্লাস অর্জন করেছে। এ সাফল্যর জন্য অত্র প্রতিষ্টানের শিক্ষক শিক্ষিকা, ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি ও সদস্য বৃন্দ, অভিভাবক বৃন্দদের অক্লান্ত পরিশ্রমের কারণে এ অর্জন।

কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

শেখ হাসিনা কোন কাজের গৌরব করে না, কাজ করে দেখান মহেশখালী মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী 

অচেনা চোখে জননেতা খালেকুজ্জামান

মরহুম এড. খালেকুজ্জামান স্মরণে ৬ষ্ঠ দিনেও বিভিন্ন মসজিদে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত

পাহাড়ে ৬ ভাইয়ের ত্রাসের রাজত্বঃ আত্নগোপনের হাকিম ডাকাত এখন প্রকাশ্যে!

উন্নয়নে শেখ হাসিনার কোন বিকল্প নেই : বীর বাহাদুর

কুতুবদিয়ায় অস্ত্রসহ ২ জলদস্যু আটক

২৬তম আন্তর্জাতিক কুরআন প্রতিযোগিতার পুরস্কার ১০ লাখ পাউন্ড

ভাইরাল প্রিয়াঙ্কা-নিকের চুমুর ভিডিও

ফেসবুকে মোবাইল নম্বর ও এনআইডি যাচাই চান মন্ত্রী

মেধাবীরা গালি দেন বেশি!

‘ডিজিটাল সিকিউরিটি আইন বুমেরাং হতে বাধ্য’

জলবায়ু পরিবর্তনের ঝুঁকিতে দেশের ১৩ কোটি ৪০ লাখ মানুষ

চট্টগ্রামে ফ্লাইট অবতরণের কারণ ব্যাখ্যা করল ইউএস-বাংলা

বাংলাদেশ এখন উন্নয়নশীল দেশের কাতারে

নাইক্ষ্যংছড়িতে পুলিশ-সন্ত্রাসী গুলিবিনিময়ঃ অপহৃত যুবক ও অস্ত্র তৈরীর সরঞ্জাম উদ্ধার

যুক্তরাষ্ট্রে গোপন বৈঠকে বসছেন সিনহা ও জামায়াত নেতা রাজ্জাক

আল্লাহ-আল্লাহ বলে চিৎকার করছিলেন তারা

মাথায় চলছিল কীভাবে যাত্রীদের নিরাপদে নামানো যায়

কক্সবাজারের ফ্লাইট চাকা ছাড়া নামলো চট্টগ্রামে (ভিডিও)

নৌকা জিতলেই পাহাড়ে উন্নয়ন হয়- বীর বাহাদুর