ডেস্ক নিউজ:
টেকনাফে দুই নারীর অন্তর্বাসের ভেতরে বিশেষ কায়দায় লুকানো ১৯ হাজার ৮৬৫ পিস ইয়াবা উদ্ধার করেছে বিজিবি। এ সময় পাচারের দায়ে দুই নারীসহ ৩ জনকে আটক করা হয়েছে।

রোববার বিকেলে শীলখালির মেরিন ড্রাইভ সড়কে অস্থায়ী চেকপোস্ট বসিয়ে তাদের আটক ও ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। ইয়াবা পরিবহনে ব্যবহৃত সিএনজি অটোরিকশাটিও জব্দ করা হয়।

আটকরা হলেন, উখিয়া উপজেলার বালুখালি গ্রামের সৈয়দ হোসেনের ছেলে সিএনজি চালক মো. হাফিজ উল্লাহ (২৮), টেকনাফ উপজেলার শিলবনিয়াপাড়া গ্রামের মৃত আবুল বশারের স্ত্রী রশিদা বেগম (৪৫) ও সাফায়াত উল্লাহর স্ত্রী রোজিনা (২৫)।

বিজিবি সূত্র জানায়, শীলখালী মেরিন ড্রাইভ সড়ক দিয়ে ইয়াবার একটি চালান কক্সবাজারে পাচার হবে এমন তথ্য ছিল বিজিবির কাছে। এ কারণে ওই সড়কে তল্লাশি চৌকি বসানো হয়। বিকেলে টেকনাফ থেকে কক্সবাজারগামী সিএনজিটি চেকপোস্টে থামানো হয়। পরে সিএনজিতে থাকা দুই নারীর অন্তর্বাসের ভেতরে বিশেষ ব্যবস্থায় লুকানো ইয়াবা ভর্তি প্যাকেট পাওয়া যায়।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা জানায়, সিএনজির চালকের যোগসাজসে ওই চালান কক্সবাজার আনা হচ্ছিল।

টেকনাফ ২ বিজিবির অধিনায়ক মো. আছাদুদ-জামান চৌধুরী বলেন, আটকদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট আইনে মামলা করে টেকনাফ থানায় পাঠানো হয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •