বিশেষ প্রতিবেদক:

অসত্য ও মিথ্যা সংবাদ পরিবেশনের অপরাধে কক্সবাজারে দৈনিক ভোরের পাতা পত্রিকার বিরুদ্ধে ১০ কোটি টাকার মানহানি মামলা করেছে জেলা মহিলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদিকা ও জেলা পরিষদের সংরক্ষিত আসনের নির্বাচিত সদস্যা তাহমিনা চৌধুরী লুনা। আজ (৬ মে) কক্সবাজার সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে এই মামলাটি দায়ের করেন। এতে ওই পত্রিকার সম্পাদক ও প্রকাশক ড. কাজী এরতেজা হাসান ও কক্সবাজার প্রতিনিধি ইমাম হোসেন শফিক ওরফে মোহাম্মদ শফিককে আসামী করা হয়। আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে পুলিশ ব্যুরো ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) কে তদন্ত প্রতিবেদন দেয়ার নির্দেশ দেন।

বাদি মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়, গত ২৮ এপ্রিল দৈনিক ভোরের পাতা পত্রিকার অনলাইন ভার্সনে ‘কক্সবাজারে ইয়াবা স¤্রাটকে কারা ফটকে নিরাপত্তা দিলো সাংবাদিকরা’ শীর্ষক একটি সংবাদ প্রকাশিত হয়। উক্ত সংবাদে তাহমিনা চৌধুরী লুনা ও জেলা মহিলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আয়েশা সিরাজের নাম উল্লেখ করা হয়। উক্ত সংবাদ প্রকাশ হওয়ার পর জেলার রাজনৈতিক অঙ্গনে ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনা সহ পাঠক সমাজে নানা প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়। একারণে তার ভবিষ্যত রাজনীতিতে নেতিবাচক প্রভাব পড়ে। এছাড়াও সংবাদে তার কোন বক্তব্য না নিয়ে সাংবাদিকতার বিধি-বিধান অনুসরণ না করে এক তরফা সংবাদ প্রকাশ করেন। এতে করে তার প্রায় ১০ কোটি টাকার মানহানি হয়।

এজাহারে আরো উল্লেখ করা হয়, আগামী সংসদ নির্বাচনে সংরক্ষিত মহিলা আসনে দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার জন্য দীর্ঘদিন ধরে মাঠে-ময়দানে ব্যাপক উন্নয়ন ও জনসেবামুলক কর্মকান্ড চালিয়ে আসছিল। এতে ব্যাপক উন্নয়ন কর্মকান্ডে প্রতিহিংসা পরায়ন হয়ে একটি কুচক্রি মহলের প্রভাবে উক্ত মিথ্যা ও ষড়যন্ত্রমুলক সংবাদটি প্রকাশ করেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •