cbn  

প্রেসবিজ্ঞপ্তি:
কক্সবাজার শহরের বায়তুশশরফ জব্বারিয়া একাডেমীতে চলছে মেধাবী শিক্ষার্থীদের যুক্তি দিয়ে মুক্তির জমজমাট লড়াই। সকাল সাড়ে ৯টা থেকে সন্ধ্যা সাতটা পর্যন্ত (মধ্যখানে জুমার নামাজের এক ঘন্টা বিরতি) চলে জেলার সাতটি উপজেলার ২৪টি স্কুল ও ৬টি কলেজ বিতর্ক দলের মধ্যে তীব্র প্রতিদ্বন্ধিতা।বিপুল সংখ্যক অভিভাবক, শিক্ষক-শিক্ষার্থী এই বিতর্কের লড়াই উপভোগ করেন।

শনিবার সকাল ১০টায় বায়তুশশরফ জব্বারিয়া একাডেমীর মাঠে অনুষ্টিত হবে বিতর্ক উৎসবের ফাইনাল পর্ব ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্টান।

অনুষ্টানের প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থাকবেন বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর রামু ১০ পদাতিক ডিভিশনের এরিয়া কমান্ডার মেজর জেনারেল মোহাম্মদ মাকসুদুর রহমান ( পিএসসি-জেনারেল অফিসার কমান্ডিং), বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত থাকবেন জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেন, কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান লে. কর্ণেল (অব.) ফোরকান আহমেদ, বায়তুশশরফ কমপ্লেক্সের মহাপরিচালক এম এম সিরাজুল ইসলাম। সভাপতিত্ব করবেন প্রথম আলো বন্ধুসভার প্রধান উপদেষ্টা ও প্রথম আলো কক্সবাজার আঞ্চলিক অফিস প্রধান আব্দুল কুদ্দুস রানা।

শুক্রবার সকাল সাড়ে ৯টায় বেলুন উড়িয়ে বিতর্ক উৎসবের উদ্বোধন করেন, কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (কউক) চেয়ারম্যান লে. কর্ণেল (অব.) ফোরকান আহমেদ। বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন, কক্সবাজার সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ একেএম ফজুলল করিম চৌধুরী, কক্সবাজার সিটি কলেজের অধ্যক্ষ ক্য থিং অং, কক্সবাজার বায়তুশশরফ কমপ্লেক্সের মহাপরিচালক এম এম সিরাজুল ইসলাম, কক্সবাজার পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের অধ্যক্ষ প্রদীপ্ত খীসা। শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন প্রথম আলো কক্সবাজার আঞ্চলিক অফিস প্রধান আব্দুল কুদ্দুস রানা।

এরপর শুরু হয় স্কুল ও কলেজ পর্যায়ের বিতর্ক উৎসব। বিতর্ক উৎসবে বিচারকের দায়িত্ব পালন করেন, কক্সবাজার সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ একেএম ফজলুল করিম চৌধুরী, কউক সদস্য ( প্রকৌশল) লে. কর্ণেল আনোয়ার-উল-ইসলাম, পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট অধ্যক্ষ প্রদীপ্ত খীসা, কক্সবাজার সরকারি কলেজের ইংরেজি বিভাগের শিক্ষক মিঠুন চক্রবর্তী ও ইতিহাস বিভাগের শিক্ষক মুহাম্মদ উল্লাহ, কক্সবাজার সিটি কলেজের শিক্ষক জেবুন্নেছা, ঈদগাহ ফরিদ আহমদ কলেজের শিক্ষক আপন চন্দ্র দে, কক্সবাজার সরকারি বালিকা উচ্চবিদ্যালয়ের সহকারী প্রধানশিক্ষক মো. নাছির উদ্দিন, কক্সবাজার বিতর্ক ক্লাবের সভাপতি শামীম আকতার, কক্সবাজার ইংলিশ ল্যাংগুয়েজ লানিং ক্লাবের সভাপতি মো. মুহিউদ্দিন, প্রথম আলো বন্ধুসভার সভাপতি ইব্রাহিম খলিল প্রমুখ।

যুক্তিতে মুক্তি-এ শ্লোগানে দুইদিন ব্যাপী এই বিতর্ক উৎসবের আয়োজক প্রথম আলো বন্ধুসভা। সহযোগিতায় ‘কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ’।

বিকালে টানটান উত্তেজনায় সেমিফাইনালের প্রতিযোগিতা অনুষ্টিত হয়।স্কুল পর্যায়ে রামু ক্যান্টনমেন্ট ইংলিশ স্কুলকে পরাজিত করে ফাইনালে ওঠে কক্সবাজার সরকারি বালিকা উচ্চবিদ্যালয়। একইভাবে চকরিয়া কোরক বিদ্যাপীঠকে পরাজিত করে ফাইনালে ওঠে কক্সবাজার মডেল হাইস্কুল।

কলেজ পর্যায়ে কক্সবাজার পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটকে হারিয়ে ফাইনালে ওঠে কক্সবাজার সরকারি কলেজ এবং কক্সবাজার কর্মাস কলেজকে হারিয়ে ফাইনালে ওঠে কক্সবাজার সিটি কলেজ।

শনিবার সকালে কয়েক হাজার শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের উপস্থিতিতে ফাইনাল পর্বের বিতর্ক উৎসব অনুষ্টিত হবে। এতে কক্সবাজার সরকারি কলেজের সাথে কক্সবাজার সিটি কলেজ এবং কক্সবাজার সরকারি বালিকা উচ্চবিদ্যালয়ের সঙ্গে কক্সবাজার মডেল হাইস্কুল দলের ফাইনাল অনুষ্টিত হবে।

# স্কুল পর্যায়ে বিতর্কের বিষয় : রোহিঙ্গা সংকটই কক্সবাজারের জন্য বড় হুমকি।

# কলেজ পর্যায়ে : অপরিকল্পিত নগরায়নের কারণেই কক্সবাজার ইটপাথরের ঘিঞ্জি শহর।

উৎসবটি সকলের জন্য উন্মুক্ত। বিতর্ক উৎসবে অংশগ্রহনকারী সকল শিক্ষার্থীদের সার্টিফিকেট, টি-শার্ট এবং বিজয়ীদের সনদ ও ক্রেস্ট প্রদান করা হবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •