সিবিএন:
কক্সবাজার শহরের বাদশাঘোনা এলাকায় সবনাজ প্রকাশ পুতুনি (২৪) নামের গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। সে ওই এলাকার হেলাল উদ্দিনের স্ত্রী।
সোমবার (৩০ এপ্রিল) দিবাগত রাত দেড়টার দিকে জেলা সদর হাসপাতাল থেকে লাশটি উদ্ধার করে স্বজনেরা।
এর আগে তাকে হাসপাতালে নেয় শ্বশুরালয়ের লোকজন। মৃত্যুর পর তারা হাসপাতাল ত্যাগ করে বলে জানায় স্থানীয়রা জানায়।
নিহতের মরদেহ জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে। দুপুরে রিপোর্ট লেখাকালে ঘটনায় জড়িত কেউ আটক হয়নি।
নিহতের পিতা জাফর আলম অভিযোগ করেন- রাতে ফোন করে জানানো হয়, আমার মেয়ে অসুস্থ। ঘুম থেকে উঠছেনা। খবর পেয়ে যেতে যেতে মেয়েকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। হাসপাতালে গিয়ে দেখি আমার মেয়ের মরদেহ পড়ে আছে। তার পুরো শরীরে আঘাতের চিহ্ন। শ্বশুরালয়ের লোকজন তাকে হত্যা করেছে।
এলাকাবাসী জানায়, নিহত সবনাজ প্রকাশ পুতুনির আগের স্বামী আবদুল মালেক দীর্ঘ ৩ বছর ধরে কারাগারে। এই সুযোগে স্থানীয় হেলাল উদ্দিনের সাথে সম্পর্ক হয় তার। পুতুনির পরিবারের নিষেধের পরও গোপন সম্পর্ক রয়ে যায়। অবশেষে তারা গোপনে বিয়ে করে ফেলে।
এদিকে এই ঘটনার খবর পেয়ে স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর হেলাল উদ্দিন কবির সকালে হাসপাতালে গিয়ে সার্বিক খোঁজ খবর নেন।তিনি প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবেন বলে আশ্বাস দেন নিহতের স্বজনদের।  কক্সবাজার সদর মডেল থানার ওসি মো. ফরিদ উদ্দিন খন্দকার ঘটনার বিস্তারিত অনুসন্ধান করে ব্যবস্থা নেবেন বলে সিবিএনকে জানান।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •