আজ শুভ বুদ্ধ পূর্ণিমা

প্রজ্ঞানন্দ ভিক্ষুঃ
বছর ঘুরে আবারো ফিরে এল শুভ বৈশাখী পূর্ণিমা তথা বুদ্ধ পূর্ণিমা। ২৫৬১ বুদ্ধবর্ষকে বিদায় এবং ২৫৬২ নব বুদ্ধবর্ষকে স্বাগত জানাতে প্রস্তুত বিশ্ববৌদ্ধরা। এরই ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশের বৌদ্ধরাও বিভিন্ন কর্মসূচির মাধ্যমে বুদ্ধ পূর্ণিমা উদযাপন করছেন। মূলত, রাজকুমার সিদ্ধার্থের জন্ম, বুদ্ধত্ব লাভ এবং বুদ্ধের মহাপরিনির্বাণ প্রাপ্তি এই অনন্য তিনটি ঘটনা বৈশাখী পূর্ণিমা তিথিতেই ঘটেছিল বলেই ত্রিস্মৃতি বিজড়িত বৈশাখী পূর্ণিমার অপর নাম হল বুদ্ধ পূর্ণিমা। ধর্মীয় দৃষ্টিকোণ থেকে বুদ্ধ পূর্ণিমা বৌদ্ধদের জন্য অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ এবং পবিত্র দিন।

বাংলাদেশে মূলত এবছর ২৮ ও ২৯ এপ্রিল এই দুই দিন ধরেই বুদ্ধ পূর্ণিমা উদযাপিত হচ্ছে। কক্সবাজার জেলার রামু, উখিয়া, টেকনাফ, চকরিয়া, পেকুয়া এবং মহেশখালী এই সাত উপজেলার বৌদ্ধরা আজকে নানান আনুষ্ঠানিকতায় দিনটি পালন করছেন।

কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে ভোরে প্রভাতফেরি সহকারে বুদ্ধ পূজা দান, সকাল আটটায় জাতীয় ও ধর্মীয় পতাকা উত্তোলন, সকাল দশটায় সংঘদান, অষ্টশীল বা উপোসথ শীল গ্রহণ, মৈত্রী ভাবনা, দুপুরে ধর্মদেশনা, সন্ধ্যায় হাজার তৈল প্রদীপ প্রজ্জ্বলন, আলোকসজ্জ্বা, দেশ ও বিশ্বশান্তি কামনায় সমবেত প্রার্থনা। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, জেলার অধিকাংশ বিহারে এসব কর্মসূচি পালিত হচ্ছে।

রামুঃ
রামুর ঐতিহাসিক রাংকুট বনাশ্রম বৌদ্ধ বিহারে চলছে চুরাশী হাজার ধর্মস্কন্ধ পূজা ও রাংকুট মেলা। এ উপলক্ষে গত ২৮ এপ্রিল থেকে উক্ত বিহারে অনুষ্ঠান শুরু হয়েছে। আজকে রামু কেন্দ্রীয় সীমা বিহারে সকাল দশটায় অনুষ্ঠিত হচ্ছে সংঘদান। বিকালে অনুষ্ঠিত হবে ধর্মদেশনা, সন্ধ্যায় হাজার তৈল প্রদীপ প্রজ্জ্বলনের মাধ্যমে দেশ ও বিশ্বশান্তি কামনায় সমবেত প্রার্থনা অনুষ্ঠিত হবে। কক্সবাজার জেলা বৌদ্ধ সুরক্ষা পরিষদের রামু বিষয়ক সাংগঠনিক সম্পাদক বিপক বড়ুয়া বিটু জানান, রামু উত্তর মিঠাছড়ি প্রজ্ঞামিত্র বন বিহার, বিমুক্তি বিদর্শন ভাবনাকেন্দ্র, উখিয়ারঘোনা জেতবন বিহার, শ্রীকুল মৈত্রী বিহার, পূর্ব রাজারকুল সদ্ধর্মোদয় বিহার, দ্বীপশ্রীকুল ধর্মরতœ বিহার, জাদিপাড়া আর্যবংশ বিহারসহ বিভিন্ন বিহারে দিনটি যথাযথভাবে পালন করার প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে।

উখিয়াঃ
প্রতি বছরের মত এবছরও উখিয়াতে উপজেলার সকল বিহারের সমন্বয়ে যৌথভাবে শুভ বুদ্ধপূর্ণিমা পালিত হচ্ছে। এ উপলক্ষে দিনব্যাপী কর্মসূচি হাতে নেওয়া হয়েছে। কক্সবাজার জেলা বৌদ্ধ সুরক্ষা পরিষদের উখিয়া বিষয়ক সহ-সভাপতি অধ্যাপক রনজিত বড়ুয়া জানান, আজ নানান আনুষ্ঠানিকতার মধ্য দিয়ে উখিয়াতে শুভ বুদ্ধ পূর্ণিমা উদযাপিত হবে। উখিয়া উপজেলার ৪১টি বৌদ্ধ বিহার সমন্বিতভাবে দিনটি পালন করবে। গ্রহণ করা হয়েছে বিভিন্ন কর্মসূচি। তৎমধ্যে রয়েছে, স্থবির অভিধা বরণ, শুভ উপসম্পদা গ্রহণ, সংবর্ধনা জ্ঞাপন, স্বেচ্ছায় রক্তদান, বৃত্তি প্রদান, মৈত্রী শোভাযাত্রা ও আলোচনা সভা। পর্যায়ক্রমিক ধারবাহিকতায় এ বছর শৈলরঢেবা চন্দ্রোদয় বিহারে মূল অনুষ্ঠান হচ্ছে।

টেকনাফঃ
দেশের সর্বদক্ষিণে অবস্থিত সীমান্তবর্তী উপজেলা টেকনাফের বৌদ্ধরাও ধর্মীয় মর্যাদায় শুভ বুদ্ধ পূর্ণিমা উদযাপন করবেন বলে জানা গেছে। কক্সবাজার জেলা বৌদ্ধ সুরক্ষা পরিষদের টেকনাফ বিষয়ক সহ-সভাপতি উ থোই অং রাখাইন জানান, টেকনাফের রাখাইন এবং বড়ুয়া বৌদ্ধদের প্রায় বিহারে বুদ্ধ পূর্ণিমা পালনের সার্বিক প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে।

সদরঃ
সদর উপজেলার প্রায় বিহারে দিনটি পালিত হচ্ছে। চলছে নানান আনুষ্ঠানিকতা। সদর উপজেলার খরুলিয়া, খুরুশকুল, চৌফলদন্ডী, ঝিলংজা, পাহাড়তলী, বাহারছড়াস্থ প্রায় বিহারে বুদ্ধ পূর্ণিমা উদযাপিত হচ্ছে। কক্সবাজার জেলা বৌদ্ধ সুরক্ষা পরিষদের সদর বিষয়ক সাংগঠনিক সম্পাদক রাজু বড়ুয়া জানান, অত্যন্ত ভাবগম্বীর পরিবেশে বড়ুয়া ও রাখাইন সম্প্রদায়ের বিহারগুলোতে বুদ্ধ পূর্ণিমা পালন করার প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। বিহারগুলোতে করা হয়েছে নান্দনিক আলোকসজ্জ্বা।

চকরিয়াঃ
অন্যান্য উপজেলার মত চকরিয়া উপজেলার বৌদ্ধ বিহারগুলোতেও বুদ্ধ পূর্ণিমা উদযাপনে বিভিন্ন কর্মসূচি হাতে নেওয়া হয়েছে। ভোর থেকেই এসব কর্মসূচি সম্পাদন করা শুরু হবে। কক্সবাজার জেলা বৌদ্ধ সুরক্ষা পরিষদ চকরিয়া শাখার সাধারণ সম্পাদক শিক্ষক সুজিত বড়ুয়া জানান, চকরিয়া উপজেলার নিজপানখালী, ঘুনিয়া, কাহারিয়াঘোনা, হারবাং, মানিকপুর, বমুবিলছড়ির মোট বিশটি বিহারে শুভ বুদ্ধ পূর্ণিমা পালন করা হবে আজ।

পেকুয়াঃ
পেকুয়া উপজেলার বারবাকিয়াতে শুধুমাত্র একটি রাখাইন পল্লী রয়েছে। রয়েছে একটিমাত্র বৌদ্ধ বিহার। এটি বারবাকিয়া রাখাইন বৌদ্ধ বিহার। বিহারকে কেন্দ্র করে রয়েছে একটি প্রাচীন রাখাইন পল্লী। এই পল্লীতে এক সময় দেড় শতাধিক রাখাইন পরিবার বসবাস করলেও বর্তমানে এর সংখ্যা মাত্র বত্রিশ পরিবারে এসে দাঁড়িয়েছে। কক্সবাজার জেলা বৌদ্ধ সুরক্ষা পরিষদের পেকুয়া বিষয়ক সহ-সভাপতি আলহারি রাখাইন জানান, পরিবারের সংখ্যা কম হলেও আজ নানান আনুষ্ঠানিকতার মধ্য দিয়ে পেকুয়াতে শুভ বুদ্ধ পূর্ণিমা উদযাপিত হবে।

মহেশখালীঃ
দ্বীপাঞ্চল মহেশখালী উপজেলার বৌদ্ধপল্লী গুলোও বুদ্ধ পূর্ণিমা উদযাপনে প্রস্তুতি নিয়েছে। বড়ুয়া ও রাখাইন সম্প্রদায়ের বৌদ্ধ বিহার গুলোতে গ্রহণ করা হয়েছে বিভিন্ন কর্মসূচি। কক্সবাজার জেলা বৌদ্ধ সুরক্ষা পরিষদের মহেশখালী বিষয়ক সাংগঠনিক সম্পাদক এডভোকেট আশীষ বড়ুয়া জানান, প্রতি বছরের মত এবছরও এই উপজেলার বৌদ্ধরা ধর্মীয় ভাবগম্বীর পরিবেশে বুদ্ধ পূর্ণিমা উদযাপন করবেন। এই উপলক্ষে বিহারগুলোতে আলোকসজ্জ্বার ছোঁয়া লেগেছে।

জেলাব্যাপী বুদ্ধ পূর্ণিমা উদযাপনে নিরাপত্তা ও আইন-শৃখংলা পরিস্থিতি নিয়ে জানতে চাইলে কক্সবাজার জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সার্বিক) আফরুজুল হক টুটুল জানান, বুদ্ধ পূর্ণিমা উদযাপনে নিরাপত্তা নিয়ে কোন ধরণের দুঃচিন্তা করার কারণ নেই। এই বিষয়ে জেলা পুলিশ প্রশাসন সর্বোচ্চ সজাগ রয়েছে। ইতিমধ্যে প্রত্যেক উপজেলার থানার অফিসার ইনচার্জদের এই বিষয়ে বাড়তি তাগিদ দেওয়া হয়েছে।

কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

ভোটের দিন পর্যবেক্ষকদেরকে মুর্তির মতো থাকতে হবে : নির্বাচন কমিশন সচিব

‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বদিকে মনোনয়ন না দিয়ে নিশ্চিত আসনটি হারাবেন না’

কক্সবাজারে রোহিঙ্গা যুবকের হাতে শিশু ধর্ষিত, ধর্ষক আটক

টেকনাফ ও কুতুবদিয়ায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মারা গেল তিনজন

আমলনামা যাচাই-এ উত্তীর্ণ কারা হচ্ছেন!

টেকনাফে র‌্যাবের সাথে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ২ ইয়াবা ব্যবসায়ী নিহত

মাশরাফির প্রতিদ্বন্দ্বী কারা?

কারা পাচ্ছেন আ. লীগ-বিএনপির মনোনয়ন?

 বিএনপির গুলশান কার্যালয়ে ইন্টারনেট সংযোগ বিচ্ছিন্ন

 তারেক রহমানের ৫৩তম জন্মবার্ষিকী আজ

চকরিয়ায় মুক্তিযোদ্ধাকে মোটরসাইকেল চাপায় হত্যা চেষ্টার অভিযোগ

চকরিয়ায়  ৩৬ শিক্ষার্থীর এসএসসি পরীক্ষা দেয়া অনিশ্চিত

প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের নির্দেশ উপেক্ষা, উখিয়ায় স্থানীয়দের জমিতে এনজিও’র স্থাপনা

কেন শেখ হাসিনাকেই আবার ক্ষমতায় দেখতে চায় ভারত

দাঁতের ইনফেকশন থেকে হতে পারে হার্ট অ্যাটাক

দৈনিক স্বদেশ প্রতিদিন পত্রিকার স্টাফ রিপোর্টার নিযুক্ত হলেন আনছার হোসেন

তারেকের বিষয়ে ইসির কিছুই করার নেই

গণফোরামে যোগ দিলেন সাবেক ১০ সেনা কর্মকর্তা

৬০ আসনে জামায়াতের ‘দর-কষাকষি’

চকরিয়ায় মধ্যরাতে স্কুল মাঠে ঘর তৈরির চেষ্টা