টানা ছুটিতে পর্যটকদের উপচেপড়া ভীড়

ইমাম খাইর, সিবিএন:
২৭ এপ্রিল শুক্রবার ও পরের দিন ২৮ এপ্রিল শনিবার সাপ্তাহিক ছুটি। ২৯ এপ্রিল রবিবার বুদ্ধপূর্ণিমার সরকারি ছুটি। ১ মে মহান মে দিবসের ছুটি। পরদিন ২ মে পবিত্র শবে বরাতের ছুটি। সব মিলিয়ে টানা ছুটি কাটাতে এখন পর্যটকে ভরপুর সমুদ্র শহর কক্সবাজার। তারকামানের হোটেল ছাড়াও সাধারণ আবাসিক হোটেল, গেস্ট হাউজ ও কজেটে প্রচুর পর্যটক। ঈদ না হলেও পর্যটকদের মাঝে এখন ঈদের ছুটির আনন্দ বিরাজ করছে।
সমুদ্র সৈকত ছাড়াও কক্সবাজারের ইনানী বীচ, হিমছড়ি ঝর্ণা, বৌদ্ধ মন্দির, সেন্টমার্টিন, মহেশখালী, চকরিয়ার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারি পার্কসহ সর্বত্র এখন পর্যটক। বিপুল সংখ্যাক পর্যটকের আগমনে নিরাপত্তা ব্যবস্থা আরো বাড়িয়েছে ট্যুরিস্ট পুলিশ।
পাঁচ তারকা হোটেলের মধ্যে আছে সীগাল, সাইমান বিচ রিসোর্ট, ওশান প্যারাডাইস, কক্স টুডে। টানা ছুটিতে এসব হোটেল প্রায় পূর্ণ। খাবার হোটেলগুলোতেও সমান তালে জমজমাট অবস্থা।
এমনিতেই কয়েক মাস ধরে প্রায় সাড়ে তিন হাজার বিদেশি কক্সবাজারে থাকছেন। প্রায় সবাই রোহিঙ্গাদের নিয়ে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংস্থায় কাজ করছেন। আর এর ওপর ছুটির চাপ।
সীগালের প্রধান নির্বাহী ইমরুল সিদ্দিকী রুমী বলেন, তাঁর হোটেলের ৯৫ শতাংশ সিট বুক হয়ে গেছে। এর মধ্যে প্রায় ৩০ শতাংশ বিদেশি। সীগালের একটি কক্ষের ভাড়া ৬ হাজার থেকে শুরু হয়ে ৯০ হাজার টাকা পর্যন্ত।
কক্সবাজারে ইনানী সৈকতের কাছে প্যাঁচার দ্বীপ এলাকায় মারমেড ইকো রিসোর্ট ও বিচ রিসোর্টের ভাড়া ৭ হাজার থেকে ৮৪ হাজার টাকা পর্যন্ত। রিসোর্টের মহাব্যবস্থাপক মাহফুজুর রহমান বলেন, তাদের রিসোর্ট এখন প্রায় পূর্ণ। ভাড়া দেয়ার মতো খালি নেই। এ অবস্থা থাকবে অন্তত এক সপ্তাহ। ধারণা হোটেল ব্যবসায়ীদের।
ট্যুর অপারেটরদের সংগঠন টুয়াকের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি এস.এম কিবরিয়া খান বলেন, কক্সবাজারের সামগ্রীক পরিবেশ ভাল। আইন শৃঙ্খলাও উন্নত হয়েছে। এর উপরে যোগ হয়েছে টানা ছুটি। কক্সবাজারের আগত পর্যটকদের সর্বোচ্চ সেবা দিচ্ছি। তিনি বলেন, পর্যটন সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ীরা সেবার মনমানসিকতায় কাজ করছে।
ঢাকার গাজীপুরের শ্রীপুর থেকে কক্সবাজারে বেড়াতে এসেছেন একঝাঁক সংবাদকর্মী। শ্রীপুর অনলাইন প্রেসক্লাবের সভাপতি মোতাহার খান, সাধারণ সম্পাদক এমদাদুল হক, সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুল্লাহ আল মামুনসহ অর্ধশত সংবাদকর্মী সমুদ্র নগরীতে সময় কাটাচ্ছেন। সংবাদকর্মী হিসেবে নয়, পর্যটক হয়ে আনন্দে মাতছে সমুদ্রের লোনাজলে। তারা কক্সবাজারের সব কিছু দেখে সন্তুষ প্রকাশ করেছেন। বিশেষ করে ট্যুরিস্ট পুলিশের নিরাপত্তা ব্যবস্থার জন্য ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।
কক্সবাজার পর্যটক হোটেল উপল এবং প্রবালের ম্যানেজার সরওয়ার উদ্দিন বলেন, সাধারণ আগের বছর গুলোতে এমন গরমের মৌসুমে তেমন পর্যটক আসতো না। তবে এবার সাপ্তাহিত ছুটি, বৌদ্ধপূর্নিমা, মে দিবস, শবে বরাতসহ আবার সাপ্তাহিত ছুটি মিলিয়ে এক সাথে ৭ দিন ছুটি পড়াতে হঠাৎ করে পর্যটকরে আগমন বেড়েছে। এখন আমাদের মোটেলে ৯৫% রুম বুকিং। যদি ও এখনে আগে থেকে অনেক বিদেশী এনজিওগুলোর জন্য অনেক রুম বুকিং আছে। তবে বাকি রুমগুলো এবারে আসা পর্যটকদের দেওয়া হয়েছে। এটা আমাদের জন্য খুবই ভাল সময়।
কক্সবাজারের তারকা হোটেল কক্স টুডের এমডি শাখাওয়াত হোসেন বলেন, হঠাৎ করে এত পর্যটক আসবে কেউ চিন্তা করেনি। এখন পর্যটকের একেবারে ঠাসা। অনেক গেস্টকে রুম দিতে পারিনি।
শেখ কামাল রয়েল প্যালেস এর মালিক হেলাল উদ্দিন বলেন, প্রধান সড়কের পাশে বা বীচের কাছের হোটেলগুলো অনেক আগে বুকিং হয়ে গেছে। এখন কিছু রিসোর্ট এবং গেস্ট হাউজের রুম খালি আছে। তিনি বলেন, আমাদের হোটেলেও বেশির ভাগ রুম বুকিং হয়ে গেছে। মূলত টানা ছুটিতে পর্যটকরা বেড়াতে আসছে। তবে বেশির ভাগ পর্যটক ২/৩ দিনের জন্য রুম বুকিং দিয়েছে।
কক্সবাজার হোটেল মোটেল গেস্টহাউজ মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক আবুল কাশেম বলেন, পর্যটক বেড়েছে- এটা সত্য। তবে এখনো অনেক হোটেলে রুম খালি আছে। তিনি বলেন, আবাসিক হোটেলে নির্দিষ্ট তালিকার বাইরে দাম বেশি রাখা হচ্ছেনা। পর্যটন নগরীর মান রক্ষায় আমরা সর্বোচ্চ চেষ্টা করে যাচ্ছি।
এদিকে কক্সবাজার ট্যুারিষ্ট পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রায়হান কাজেমী বলেন, এমনিতেই পর্যটকদের নিরাপত্তায় আমরা সার্বক্ষনিক কাজ করছি। এখন কয়েকদিনের ছুটিতে একটু বেশি পর্যটক আসবে তাই আমাদের টিম ওয়ার্ক বাড়িয়ে দিয়েছি। সমুদ্র সৈকত এলাকাসহ বার্মিজ মার্কেট এলাকা এবং পর্যটকদের আসা যাওয়ার সব পথে আমাদের টিম কাজ করছে। তিনি বলেন, কোন পর্যটক যদি কোন ধরনের সমস্যায় পড়ে তাহলে প্রতিটি মোড়ে ট্যুরিষ্ট পুলিশের মোবাইল নাম্বার দেওয়া আছে। ফোনে অভিযোগ জানানোর সাথে সাথে আমাদের টীম ঘটনাস্থলে পৌঁছে যাবে।

কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

কেন শেখ হাসিনাকেই আবার ক্ষমতায় দেখতে চায় ভারত

দাঁতের ইনফেকশন থেকে হতে পারে হার্ট অ্যাটাক

দৈনিক স্বদেশ প্রতিদিন পত্রিকার স্টাফ রিপোর্টার নিযুক্ত হলেন আনছার হোসেন

তারেকের বিষয়ে ইসির কিছুই করার নেই

গণফোরামে যোগ দিলেন সাবেক ১০ সেনা কর্মকর্তা

৬০ আসনে জামায়াতের ‘দর-কষাকষি’

চকরিয়ায় মধ্যরাতে স্কুল মাঠে ঘর তৈরির চেষ্টা

চকরিয়া-পেকুয়ায় মনোনয়ন পেতে মরিয়া জাফর আলম

তারেকের ভিডিও কনফারেন্স ঠেকাতে স্কাইপি বন্ধ করল বিটিআরসি

খুটাখালী বালিকা মাদরাসায় শিক্ষক নিয়োগ

চকরিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যানের পদ শূন্য ঘোষনা

ইসির নির্দেশনা বাস্তবায়ন হচ্ছে কিনা জানেন না জেলা নির্বাচন অফিসার

প্রশাসন ও পুলিশে রদবদল করতে যাচ্ছে ইসি

আ’লীগের প্রার্থী মনোনয়ন চূড়ান্ত হয়নি: ওবায়দুল কাদের

মাদকের কারণে কক্সবাজারের বদনাম বেশি -অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আদিবুল ইসলাম

বঙ্গবন্ধুর দেখানো পথে কক্সবাজারকে এগিয়ে নিতে চান আনিসুল হক চৌধুরী সোহাগ

আগাম নির্বাচনি প্রচার সামগ্রী না সরানোয় জরিমানার নির্দেশ ইসি’র

টেকনাফ রোহিঙ্গা ক্যাম্পে বিশ্ব টয়লেট দিবস পালিত

রাঙামাটিতে যৌথ অভিযানে তিন বোট কাঠসহ আটক ৭

বিএনপি’র প্রতীক ‘ধানের ছড়া’ না ‘শীষ’?