এম.মনছুর আলম, চকরিয়া:
চকরিয়ায় সাড়ে তিনশত ইয়াবা নিয়ে নারীসহ ৫ মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে পুলিশ। ২৫ এপ্রিল (বুধবার) দিবাগত রাত ১টার দিকে উপজেলার হারবাং ষ্টেশনের যাত্রী ছাউনি থেকে পুলিশ ফাঁড়ির অভিযানে ইয়াবসহ তাদের আটক করা হয়।আটককৃতরা হলেন- টেকনাফ উপজেলার সদর হাতির ঘোনা এলাকার হাফেজ আহমদের পুত্র ছৈয়দ আলম(৩৫), বান্দরবান নাইক্ষ্যংছড়ির বর্তমান হারবাং ইউনিয়নের শান্তিনগর এলাকার কবির আহমদের স্ত্রী জোহরা বেগম পাখি (৪০), টেকনাফ সদরের হাতির ঘোনা এলাকার মৃত আলী আহমদের পুত্র বশির আহমদ, একই এলাকার সোলতান আহমদের পুত্র মোহাম্মদ তৈয়ব ও মৃত ছৈয়দ আহমদের পুত্র মোহাম্মদ ইউনুছ (৩৫)।
পুলিশ সূত্রে জানাগেছে, বুধবার রাত ১টার দিকে উপজেলার হারবাং ষ্টেশনে যাত্রী ছাউনি এলাকায় ৫/৬জনের একটি ইয়াবা পাচারকারী দল টেকনাফ থেকে ইয়াবা নিয়ে এসে বিক্রি করছিল হারবাং ইউনিয়নের জিয়াউল হক পিয়ারু নামে এক ব্যাক্তিকে।স্থানীয়রা রাত্রে যাত্রী ছাউনিতে লোকের ভীড় ও অপরিচিত দেখে সন্দেহজনক হওয়ায় পুলিশকে খবর দেয়।পরে হারবাং পুলিশ ফাঁড়ির আইসি আবুল কালামের নেতৃত্বে ঘটনাস্থলে পৌছে নারীসহ ৫ইয়াবা ব্যবসায়ীকে জনতার সহয়তায় আটক করে।পুলিশ তাদের কাছ থেকে কসট্যাব মোড়ানো কালো জামের মতো ৭টি ইয়াবা পুটলি উদ্ধার করে জব্ধ করেছে বলে জানান।
এ ব্যাপারে চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. বখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী জানান,পুলিশ অভিযানের ভিত্তিতে নারীসহ ৫ইয়াবা পাচারকারীকে আটক করতে সক্ষম হয়ছে। তারা গোপনে ইয়াবার ব্যবসা করে আসেছিলেন। তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে এবং মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে তাদের বিরুদ্ধে থানায় মামলা করা বলে তিনি জানান।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •