অনলাইন ডেস্ক : বন্দর নগরীর ঐতিহাসিক জব্বারের বলী খেলার ১০৯তম আসরে চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন কক্সবাজারের তারেকুল ইসলাম জীবন বলী। টানা ১৫ মিনিট ধরে একে অপরের সঙ্গে লড়াই শেষে কুমিল্লার শাহজালাল বলীকে হারিয়ে প্রথমবারের মতো চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করেন চকরিয়ার এই বলী।

বুধবার বিকেল ৫টা ৩১ মিনিটে শুরু হওয়া ফাইনাল খেলা চলে ৫টা ৪৬ মিনিট পর্যন্ত। এরপর ফাউল করার কারণে শিরোপা থেকে ছিটকে পড়েন শাহজালাল। এর আগে সেমিফাইনালে মহেশখালীর মোহাম্মদ হোসেনকে হারিয়ে কুমিল্লার শাহজালাল বলী, উখিয়ার জয়নাল বলীকে হারিয়ে চকরিয়ার তারেকুল ইসলাম জীবন বলী ফাইনালে উন্নীত হন।

এছাড়া চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, রাঙামাটি, কুমিল্লাসহ দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে ৮৬ জন বলী খেলার বিভিন্ন পর্যায়ে অংশ নেন। খেলাশেষে বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন। এ সময় স্পন্সর প্রতিষ্ঠান বাংলালিংক এর কর্মকর্তা সৌমেন মিত্র উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে বুধবার বিকেল চারটায় বলী খেলার উদ্বোধন করেন সিএমপির ভারপ্রাপ্ত পুলিশ কমিশনার মো. মাসুদুল হাসান। উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষে ৪’শ বর্গফুটের ৫ ফুট উঁচু বালুর মঞ্চে শুরু হয় প্রথম পর্বের খেলা। এতে দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে আগত বলীরা খেলায় অংশ নেন। খেলায় রেফারির দায়িত্ব পালন করেন সাবেক কাউন্সিলর মো. আবদুল মালেক।

এদিকে বলী খেলা উপলক্ষে লালদীঘি মাঠের আশপাশের এক বর্গকিলোমিটার এলাকাজুড়ে বসা বৈশাখী মেলা ব্যপক সরগরম হয়ে উঠেছে। নগরীর বিভিন্ন এলাকা ছাড়াও আশাপাশের উপজেলাগুলোর বাসিন্দারা লোকজ পণ্যের খোঁজে মেলায় ভিড় করছেন।-ইত্তেফাক

  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •