cbn  

এম.জিয়াবুল হক,চকরিয়া

চকরিয়ায় স্কুল পড়ুয়া মেয়ে শিশু কে তুলে নিয়ে ধর্ষণ চেষ্টার ঘটনা ঘটেছে। ওইসময় অপর শিশুর শোর-চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে গিয়ে লম্পট যুবক নুরুল ইসলামকে (৩৪) আটক করে পুলিশে দিয়েছে। রোববার রাত আনুমানিক ৯টার দিকে চকরিয়া পৌরসভার ২নম্বর ওয়ার্ডের মাতামুহুরী নদীর চিরিঙ্গা ব্রীজের নীচের ঘটেছে এ ঘটনা। আক্রান্ত সাত বছর বয়সী ওই শিশু মেয়েটি নিজ বাড়ির অল্প দুরে শিক্ষকের কাছে প্রাইভেট পড়ে রাতে সহপাঠিদের সাথে বাড়ি ফিরছিলেন। আটক নুরুল ইসলাম উপজেলার কাকারা ইউনিয়নের লোটনী গ্রামের আহমদ সোবাহানের ছেলে। আটক যুবককে আসামী করে শিশুটির বাবা বাদী হয়ে গতকাল সোমবার চকরিয়া থানায় মামলা করেছেন।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে চকরিয়া পৌরসভার ২নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর রেজাউল করিম বলেন, রোববার রাত ৯টার দিকে শিক্ষকের কাছে প্রাইভেট পড়ে আরো কয়েকজন সহপাঠির সাথে বাড়ি ফিরছিলেন ওই শিমু। পথিমধ্যে নরপশুতুল্য যুবক নুরুল ইসলাম গতিরোধ করে ওই শিশুকে ধরে কাঁধে তুলে নিয়ে সড়কের অদূরে মাতামুহুরী নদীর সেতুর নিচে নিয়ে যায়। সেখানে শিশূকে ধর্ষণ চেষ্টা চালায়।

কাউন্সিলর আরও বলেন, ওই সময় তুলে নেয়া শিশুসহ সঙ্গীরা শোরচিৎকার শুরু করলে আশপাশ থেকে লোকজন এগিয়ে গিয়ে শিশুকে উদ্ধার ও ধর্ষণ চেষ্টাকারী নুরুল ইসলামকে পাকড়াও করে। পরে ঘটনাটি থানার ওসি বখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরীকে জানাই। তাৎক্ষনিক তিনি ঘটনাস্থলে এসআই আলমগীর আলমসহ পুলিশের একটিদলকে পাঠান। এরপর রাত সাড়ে ১০টার দিকে লম্পট ওই যুবককে পুলিশের কাছে তুলে দেয়া হয়।

চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. বখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী বলেন, ঘটনাটির ব্যাপারে আটক যুবককে আসামী করে শিশুটির বাবা বাদী হয়ে গতকাল সোমবার থানায় মামলা দায়ের করেছে। আটক যুবককে মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে চকরিয়া উপজেলা সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে পাঠানো হয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •