আহারে জীবন!

শাহেদ মিজান, সিবিএন:
এক মুহূর্তে পরেও কি ঘটবে তার কোনো ইঙ্গিত পৃথিবীর কোনো মানুষের কাছে নেই। তাইতো ‘মৃত্যু নি:শ্বাসের চেয়েও কাছে’। অথচ মানুষ কত স্বপ্ন-আশা নিয়ে এগিয়ে চলে প্রতিটি মুহূর্ত। তখন ঘূর্ণাক্ষরেও তার মনে থাকে না ক্ষনিক পরেই তার জন্য অপেক্ষা করছে এক ভয়ানক ক্ষণ। অসহায় রিক্সা চালক মালেকের চিত্রটারও এর থেকে কোনো ধরণের ভিন্নতা ছিলো না নিশ্চিত! তাইতো সড়কের পাশে রিক্সা দাঁড় করিয়ে বিশ্রামের ফাঁকে পাশের দোকানে চলতে থাকা টিভিতে একটু উঁকি দিয়েছিল। কিন্তু মালেককে মুহূর্তেই ধাক্কা দিলো ধেয়ে আসা একটি বেপরোয় কার। এতে চিরতরে হারালো একটি পা।

রোববার (২২ এপ্রিল) কক্সবাজার শহরের তারাবনিয়ারছড়া এলাকায় এই মর্মান্তিক দুর্ঘটনা ঘটে। এই দুর্ঘটনার সাথে ভেঙে গেলো একটি মানুষের অপার স্বপ্ন-আশা, তছনছ হলো একটি একটি পরিবারের বেঁচে থাকার আস্থা।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ওই কারের ধাক্কায় মালেক ছাড়াও আরো দু’জন আহত হয়েছেন। তবে তাদের আঘাত গুরুতর হয়নি। কারের ধাক্কায় মুহূর্তের মধ্যে মারাত্মক জখম হয়ে ফিনকি দিয়ে রক্ত ছিটকে পড়ে। সেই রক্তে ওই স্থানে রঞ্জিত হয় পাশের বিদ্যুতের খুঁটিসহ আশপাশ।

জানা গেছে,  কক্সবাজার সদর হাসপাতালে মৃত্যরর সাথে পাঞ্জা লড়ছে বেপরোয়া প্রাইভেট কারের ধাক্কায় পা হারানো মহেশখালীর আধারঘোনার রিকশাচালক মালেক। ডান পা কেটে ফেলাও হলেও বাম পা’টাও কেটে ফেলতে হবে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। তবে উন্নত চিকিৎসা ফেলে তা পা না কেটে পারার কিছুটা সম্ভাবনা রয়েছে। এছাড়াও তার অন্ডকোষ থেকেও রক্তক্ষরণ হচ্ছে। সব মিলিয়ে মালেকের অবস্থা মারাত্মক।

মালেকের স্বজনেরা জানান, অন্য কোথাও নিয়ে চিকিৎসা করা দূরের কথা, তাদের কাছে গাড়ি ভাড়ার পয়সাটাও নেই। অন্যদিকে এমনকি মামলা না করতে বিভিন্নভাবে চাপ প্রয়োগ করছে তাদের অভিযোগ। অত্যন্ত দুঃখজনক হচ্ছে ঘাতক কারের মালিকের  পক্ষ থেকে মালেককে সাহায্য করারতো দুরের কথা এখন পর্যন্ত একবারও দেখতে যায়নি কেউ।

মালেক কক্সবাজার শহরের রিক্সা চালিয়ে স্ত্রী-সন্তানদের মুখে দু’মুঠো অন্ন তুলে দিনে। কিন্তু এই দুর্ঘটনায় সব স্বপ্ন নিমিষেই শেষ হয়ে গেছে। তবে অন্তত তার জানটা বাঁচানোর জন্য সমাজের বিত্তবানদের আর্থিক সাহযোগিতা কামনা করছেন তার পরিবার। পাশাপাশি সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের কাছে এ ঘটনায় জড়িতদের বিচার চান তাঁরা।

কক্সবাজার মডেল থানার ওসি ফরিদ উদ্দিন খন্দকার জানান, ভুক্তভোগী পরিবারের পক্ষ থেকে এখন পর্যন্ত কোন এজাহার দেয়নি, তবে দিলে মামলা নেওয়া হবে।

কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

এই জনপদটি ইয়াবা নামক বিষ বৃক্ষের আবক্ষে নিম্মজ্জিত : সকলের সহযোগিতা প্রয়োজন

যুগ্মসচিব হলেন কক্সবাজারের সন্তান শফিউল আজিম : অভিনন্দন

ধর্মীয় শিক্ষা মানুষের মাঝে মূলবোধের সৃষ্টি করে-এমপি কমল

কক্সবাজার সদর মডেল থানা পুলিশের অভিযানে ১৪জন আসামী গ্রেফতার

কক্সবাজার জেলা পুলিশকে আইসিআরসির ২৫০ বডি ব্যাগ হস্তান্তর

চকরিয়ায় পল্লীবিদ্যুতের ভুতুড়ে জরিমানা নিয়ে আতঙ্ক!

ঈদগাঁওয়ে পাহাড় কাটার দায়ে এক নারীকে ১ বছর কারাদন্ড

শুধু চালককে অভিযুক্ত করে লাভ নেই আমাদেরও সচেতন হতে হবে-ইলিয়াছ কাঞ্চন

মাওলানা সিরাজুল্লাহর মৃত্যুতে জেলা জামায়াতের শোক

কক্সবাজারের ৩দিন ব্যাপী ‘প্রাথমিক চক্ষু পরিচর্যা’ কর্মশালার উদ্বোধন

‘ঘরের ছেলে’র বিদায়ে ব্যথিত পেকুয়াবাসী

শিল্পী ফাহমিদা গ্রেফতার : জামিনে মুক্ত

‘মাশরুম একটি অসীম সম্ভাবনাময় ফসল’

তথ্য প্রযুক্তি’র সেবা সাধারণের দোরগোড়ায় পৌঁছাতে সরকার বদ্ধ পরিকর : শফিউল আলম

চট্টগ্রামে জলসা মার্কেটের ছাদে ২ কিশোরী ধর্ষণ, গ্রেপ্তার ৬

কোটালীপাড়ায় নিজ জমিতে অবরুদ্ধ ৬১ পরিবার : মই বেয়ে যাদের যাতায়াত

জামায়াত নেতা শামসুল ইসলামকে গ্রেফতারের প্রতিবাদ ও মুক্তি দাবী

দুর্ঘটনারোধে সচেতনতার বিকল্প নেই : ইলিয়াস কাঞ্চন

Google looking to future after 20 years of search

ইবাদত-বন্দেগিতে মানুষ যে ভুল করে