রামুতে ২দিন ব্যাপী ইসলামী মহাসম্মেলনের সমাপনী দিনে বক্তারা

সোয়েব সাঈদ, রামু :

রামুতে ২দিন ব্যাপী ঐতিহাসিক ইসলামী মহাসম্মেলনের সমাপনী দিনে বক্তারা বলেছেন, ইসলাম ধর্ম কখনো জঙ্গীবাদ সমর্থন করে না। কিন্তু জঙ্গীবাদের নামে মুসলমানদের কোনঠাসা করার চেষ্টা চলছে। সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির নামে বাড়ছে সাম্প্রদায়িক কর্মকান্ড। এ জন্য জঙ্গীবাদ সহ সকল অনৈসলামিক কর্মকান্ড প্রতিরোধে প্রতিটি মুসলমানকে ঈমানী দায়িত্ব পালন করতে হবে।

শনিবার (২১ এপ্রিল) রামু স্টেডিয়ামে ইসলামী মহাসম্মেলনের সমাপনী দিনে বক্তারা আরো বলেছেন, মানব রচিত মতবাদ দিয়ে কখতো শান্তিময় সমাজ প্রতিষ্ঠা সম্ভব হবে না। মানুষের জ্ঞান ও হায়াত সীমিত। তাই মানুষের জ্ঞান দিয়ে তৈরী আইন বা মতবাদও সীমিত হবে।

সমাপনী দিবসে প্রধান মেহমান ছিলেন, ভারত দারুল উলুম দেওবন্দ এর সাবেক সহকারি মূফতি আল্লামা মোহাম্মদ ইদ্রিস। প্রধান বক্তা ছিলেন, চট্টগ্রাম দারুল হেদায়াহ মাদরাসার প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক আল্লামা মূফতি হাফেজ আজিজুল হক আল মাদানী।

এতে বিশেষ মেহমান হিসেবে তকরীর করেন, ঢাকা ডেমরা কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের খতিব আল্লামা গাজী ইয়াকুব ওসমানী, হাটহাজারী দারুল হেদায়াহ মাদরাসার মূফতি হাফেজ মাওলানা আবদুল গফুর, মহেশখালী কেন্দ্রিয় জামে মসজিদের খতিব মাওলানা ইমাম জাফর আলম, ধলিরছড়া মাদরাসার সিনিয়র শিক্ষক রমজান আলী, রামু জামেয়াতুল উলুম মাদরাসার সিনিয়র শিক্ষক মাওলানা আবদুল হান্নান প্রমূখ।

সমাপনী দিনে মাহফিলে বিভিন্ন অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেন, রামু ইসলামী সম্মেলন পরিষদের সভাপতি মাওলানা মুফতি মুর্শিদুল আলম চৌধুরী, জোয়ারিয়ানালা মাদরাসার মুহতামিম মাওলানা আবুল হোসেন, রামু জামেয়াতুল উলুম মাদরাসার মুহতামিম মাওলানা শামসুল হক, কক্সবাজার মশরাফিয়া মাদরাসার মুহতামিম হাফেজ ছালামত উল্লাহ।

সম্মেলন সঞ্চালনা করেন, রামু ইসলামী সম্মেলন পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক এস. মোহাম্মদ হোসেন ও জামেয়াতুল উলুম মাদরাসার সিনিয়র শিক্ষক মাওলানা জসিম উদ্দিন।

এতে উপস্থিত ছিলেন, মাওলানা আ,হ,ম নুরুল কবির হিলালী, মালানা আমিন উল্লাহ সিদ্দিকী, আবুল কাশেম (এ,কে, খাঁন), হাফেজ আবু বক্কর ছিদ্দিক, হাফেজ ছৈয়দ নুর , রমজান আলী প্রমূখ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •