‘অসৎ লোক ছাড়া সবাই চায় নিরপেক্ষ নির্বাচন’

পিবিডি : গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন বলেছেন, সংসদ বহাল রেখে আগামী জাতীয় নির্বাচন উচিত হবে না, কিছু অসৎ লোক ছাড়া সবাই বলবে আগামী নির্বাচন হতে হবে অবাধ নিরপেক্ষ।

শনিবার(২১ এপ্রিল) জাতীয় প্রেসক্লাবের তিনতলার মিলনায়তনে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি একথা বলেন্।

এসময় দলের পক্ষ থেকে লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, একটি গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র ও সমাজে জনগণের মৌলিক অধিকার, মানবাধিকার, চিন্তা ও মতপ্রকাশের অধিকারসহ সামাজিক ন্যায়বিচার নিশ্চিত করার অন্যতম শর্ত হচ্ছে- বিচার বিভাগের পূর্ণ স্বাধীনতা। ফলে যথাযোগ্য বিচারকমণ্ডলীর মাধ্যমে পরিচালিত একটি স্বাধীন বিচার ব্যবস্থা অপরিহার্য। একটি স্বাধীন বিচার বিভাগ ন্যায়বিচার নিশ্চিত করবে- এটাই আইনের শাসনের মূলকথা।

সংবাদ সম্মেলনে আরো বলা হয়, ‘৯০ সালে তিন জোটে রূপরেখা ও ২০০৫ সালে ১৪ দলের ২৩ দফা কর্মসূচি ভিত্তিক গণ-আন্দোলনের বিজয়ের পর লক্ষ্য ও কর্মসূচি বাস্তবায়নে জাতীয় ঐক্যর ঘাটতি ও দুর্বলতার কারণে জনগণের গণতান্ত্রিক প্রত্যাশা আজও পূরণ হয়নি। এ কারণে লক্ষ্য ও কর্মসূচিভিত্তিক আন্দোলনের বিজয়ের পর, কর্মসূচি বাস্তবায়নের লক্ষ্যে জাতীয় ঐক্যের চেতনাকে আরো সুদৃঢ় করতে হবে। এ লিখিত বক্তব্য পড়ে শোনান পার্টির নেতা আওম শফিক উল্লাহ।

এরপর সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তরে ড. কামাল হোসেন আরো বলেন, দেশে মানুষ গভীরভাবে উদ্বিগ্ন। দেশে ঘুষ দুর্নীতি মহামারী আকার ধারণ করেছে। উপরের দিক থেকে নিচে সর্বত্র ঘুষ-দুর্নীতিতে ছেয়ে গেছে। জনগণ অতীষ্ঠ। সাধারণ মানুষ সুশাসন চায়।

তিনি বলেন, সবাই একটি সুষ্ঠু নির্বাচন চায়। আশা করা হয়েছিল ২০১৪ সালের অনুষ্ঠিত তথাকথিত একটি নির্বাচনে পর খুব শিগগির আরো একটি নির্বাচন হবে। কিন্তু নির্মম পরিহাস সে নির্বাচন এখনো অনুষ্ঠিত হচ্ছে না।

ড. কামাল হোসেন আরো বলেন, স্বাধীনতাবিরোধী ছাড়া সবার সঙ্গে ঐক্য হবে। ঐক্য হবে নীতির ওপর ভিত্তি করে এবং সে ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনের মাধ্যম জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠা করা হবে। তিনি অভিযোগ করেন, এখন রাজনৈতিক দলে গণতন্ত্র নেই। তাই দলগুলোর মধ্যে গণতন্ত্র আনতে ব্যাপক সংস্কার প্রয়োজন। রাষ্ট্রের পাশাপাশি প্রতিটি রাজনৈতিক দলের জনগণের ক্ষমতা থ্কাতে হবে। তিনি বলেন, মানুষ এখন তার ক্ষমতার মালিক হতে চায়।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন অ্যাডভোকেট সুব্রত চৌধুরী, মোস্তফা মোহসীন মন্টু, অ্যাডভোকেট জগলুল হায়দার আফ্রিক, অ্যাডভোকেট আলতাফ হোসেন চৌধুরী, জানে আলম প্রমুখ।

সর্বশেষ সংবাদ

চৌধুরী পাড়া রাখাইন পল্লীতে বিরল প্রজাতির প্রাণী উদ্ধার

নাইক্ষ্যংছড়িতে প্রতিপক্ষের হামলায় উখিয়ার যুবক খুন

মোমবাতির আগুনে পুড়লো ৪টি বসতবাড়ি : ৪০ লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি

কক্সবাজার-চট্টগ্রাম সড়কে দূরপাল্লার বাস চলাচল বন্ধ

হোটেল সীগালে অগ্নি প্রতিরোধ, নির্বাপন ও চিকিৎসা বিষয়ক প্রশিক্ষণ

নাইক্ষ্যংছড়িতে ৫ কোটি ৭৭ লাখ টাকার উন্নয়ন কাজের উদ্বোধন করলেন বীর বাহাদুর

প্রেমিককে ভিডিও কলে রেখেই ফ্যানের সঙ্গে ঝুলে পড়েন প্রেমিকা

‘২ বছরের মধ্যে কুতুবদিয়ায় জাতীয় গ্রীড থেকে বিদ্যুৎ সরবরাহ নিশ্চিত হবে’

ঈদগাঁওতে যুবলীগের কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা

সুপারবাগ: বাংলাদেশে আইসিইউ-তে রোগী মৃত্যুর বড় কারণ!

৪০ তম জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মেলায় কক্সবাজার ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের প্রথম স্থান অর্জন

পান-সিগারেট খেয়ে ক্লাসে যেতে পারবেন না শিক্ষকরা

যুবলীগ নেতাসহ দুই যুবককে ছুরিকাঘাত করলো কেরুনতলীর সন্ত্রাসীরা

বনানী কবরস্থানে জায়ানের দাফন সম্পন্ন

ঈদগাঁওতে পল্লীবিদ্যুতের ভেল্কিবাজিতে  জনজীবন অতিষ্ঠ

মহেশখালীতে প্রেমপ্রস্তাবে ব্যর্থ হয়ে তরুণীকে ধর্ষণের চেষ্টা ও হামলা আহত ২

সিএসবি সম্পাদক পলাশ বড়ুয়া’র জন্মদিন উদযাপন

ফোন চুরি যাওয়ায় সাংবাদিকদের আটকে রাখলেন শমী কায়সার!

টেকনাফে ইয়াবাসহ ৪ যুবক আটক

শ্রীলঙ্কায় হামলা : পদত্যাগ করছেন পুলিশের আইজি