প্রেস বিজ্ঞপ্তি :
রামুতে ২দিন ব্যাপী ঐতিহাসিক ইসলামী মহাসম্মেলন শুরু হয়েছে।  ২০ এপ্রিল রামু স্টেডিয়ামে শুরু হওয়া মহাসম্মেলনের উদ্বোধনী দিনে বক্তারা বলেছেন, আল্লাহপাক ও রাসুল )সা.- এর সুমহান আদর্শ বাস্তবায়ন করে বিশ্বে শান্তি ফিরিয়ে আনা সম্ভব। সমাজে সর্বত্র ছড়িয়ে দিতে প্রতিটি মুসলিমকে ঈমানী দায়িত্ব পালন করতে হবে। দ্বীনের পথ থেকে মানুষ দূরে চলে যাওয়ার সুযোগে ধর্মী বিরোধী কর্মকান্ড বৃদ্ধি পাচ্ছে। প্রতিটি মুসলমানের জন্য দ্বীনি শিক্ষাকে অর্জনকে সর্বাধিক গুরুত্ব দিতে হবে। ইসলামী শিক্ষায় শিক্ষিত হয়ে কেউ মানুষের ক্ষতি হয় এমন কাজ করে না। জাতির কাংখিত উন্নয়নের জন্য প্রয়োজন ইসলামের যথাযথ শিক্ষা। তাই ব্যক্তি উদ্যোগের পাশাপাশি সরকারি উদ্যোগেও ইসলামী শিক্ষার প্রসার ঘটাতে হবে।
উদ্বোধনী দিনে বক্তা ছিলেন, বগুড়া শেরে বাংলা জহিরুননগর জামে মসজিদের খতিব আল্লামা হাফেজ মুফতি আবদুল মাজিদ আনছারী, জাতীয় বিশ^বিদ্যালয় বাইতুন নুর জামে মসজিদের খতিব আল্লামা মুফতি আলী হায়দার গাজীপুরি, চট্টগ্রাম রাজঘাট মাদরাসার আল্লামা সৈয়দুল আলম আরকানী, চাকমারকুল মাদরাসার শিক্ষক মাওলানা হারুন জদীদ, জোয়ারিয়ানালা মাদরাসার শিক্ষক মাওলানা ওসমান গনি, রামু লামারপাড়া মাদরাসার পরিচালক মাওলানা হাফেজ সৈয়দুল্লাহ, মাওলানা এজাজুল করিম প্রমূখ।
প্রথম দিনে মাহফিলে বিভিন্ন অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেন, অফিসেরচর ইসলামিয়া এমদাদিয়া কাছেমুল উলুম মাদরাসার মুহতামিম মাওলানা মুফতি মুর্শিদুল আলম চৌধুরী, রামু জামেয়াতুল উলুম মাদরাসার মুহতামিম মাওলানা শামসুল হক, মাওলানা মোহাম্মদ ফিরোজ।
সম্মেলন সঞ্চালনা করেন, রামু ইসলামী সম্মেলন পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক এস. মোহাম্মদ হোসেন ও জামেয়াতুল উলুম মাদরাসার সিনিয়র শিক্ষক মাওলানা জসিম উদ্দিন।
এতে উপস্থিত ছিলেন, মাওলানা আ,হ,ম নুরুল কবির হিলালী, মালানা আমিন উল্লাহ সিদ্দিকী, আবুল কাশেম (এ,কে, খাঁন), হাফেজ আবু বক্কর ছিদ্দিক, হাফেজ ছৈয়দ নুর , রমজান আলী প্রমূখ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •