‘অভাবনীয় নেতৃত্ব’র পরিচয় দিয়েছেন শেখ হাসিনা: জাস্টিন ট্রুডো

পিবিডি: দেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উচ্ছ্বসিত প্রশংসা করেছেন কানাডিয়ান প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো। বৃহস্পতিবার (১৯ এপ্রিল) শুরু হওয়া কমনওয়েলথ সম্মেলনে ট্রুডো বলেন, রোহিঙ্গা শরণার্থীদের প্রশ্নে শেখ হাসিনা ‘অভাবনীয় নেতৃত্ব’র পরিচয় দিয়েছেন। সংকট নিরসনে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর জন্য কমনওয়েলথ দেশগুলোর সমর্থনও কামনা করেন তিনি। উল্লেখ্য, রোহিঙ্গা নিধনের বিরুদ্ধে শুরু থেকেই সোচ্চার অবস্থান নিয়েছে ট্রুডোর দেশ কানাডা। মিয়ানমারে বিশেষ দূত পাঠিয়ে তারা নিধনযজ্ঞের তদন্ত করেছে।

২৫তম কমনওয়েলথ সম্মেলনের প্রথম দিনে বৃহস্পতিবার সদস্যভুক্ত দেশগুলোর সরকারপ্রধানদের প্রথম নির্বাহী অধিবেশন অনুষ্ঠিত হয়। বহুভাষার ভারতীয় বার্তা সংস্থা ইউনিইন্ডিয়ার খবরে বলা হয়েছে, সেই অধিবেশনের উন্মুক্ত বক্তৃতায় ট্রুডো শেখ হাসিনার প্রশংসা করেছেন। ট্রুডো তার বক্তৃতায় বলেছেন, ‘রোহিঙ্গা শরণার্থী সংকটে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অভাবনীয় নেতৃত্বের পরিচয় দিয়েছেন। কমনওয়েলথ নেতৃবৃন্দের অবশ্যই তাকে সমর্থন দেওয়া উচিত।’

গত বছরের ২৫ আগস্ট রাখাইনের কয়েকটি নিরাপত্তা চৌকিতে হামলার পর পূর্ব-পরিকল্পিত ও কাঠামোবদ্ধ সহিংসতা জোরালো করে মিয়ানমারের সেনাবাহিনী। জাতিগত নিধন থেকে বাঁচতে বাংলাদেশে আশ্রয় নেয় ৬ লাখ ৯২ হাজার রোহিঙ্গা। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশে রোহিঙ্গা স্রোত জোরালো হওয়ার এক মাসের মাথায় মন্তব্য করেন, ‘আমরা ১৬ কোটি মানুষকে খাবার দেই। সুতরাং বিপদে পড়ে আমাদের দেশে আসা দুই-পাঁচ-সাত লাখ মানুষকে খাবার দেওয়ার ক্ষমতাও আমাদের আছে।’

প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিমকে উদ্ধৃত করে বিএসএস-এর খবরে বলা হয়েছে, কমনওয়েলথ মহাসচিবের রিপোর্ট উপস্থাপনের পর ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে আলোচনার জন্য ফ্লোর উন্মুক্ত করে দেন। জাস্টিন ট্রুডো ফ্লোর নিয়ে রোহিঙ্গা শরণার্থীদের প্রশ্নে শেখ হাসিনার ভূমিকার প্রশংসা করেছেন।

সম্মেলন শুরুর আগে মঙ্গলবার এক পার্শ্ববৈঠক আয়োজনেও যুক্তরাজ্যের সহ-উদ্যোক্তার ভূমিকায় ছিল কানাডা। কানাডার পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওই বৈঠকে বলেন, আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে অবশ্যই এই সংকটে আক্রান্ত রোহিঙ্গাদের সমর্থনের বিষয়টি পুনরায় নিশ্চিত করতে হবে। তিনি আরও বলেন, ‘সহিংসতায় জড়িত অপরাধীদের বিচার নিশ্চিত করতে আমাদের সবাইকে একসাথে কাজ করতে হবে’।

এরআগে রোহিঙ্গা সংকট নিরসনে কানাডিয়ান প্রধানমন্ত্রী বিশেষ দূত নিয়োগ দেন। ট্রুডোর দূত হিসেবে সাবেক কানাডিয়ার কূটনীতিক বব রে বাংলাদেশ ও মিয়ানমার সফর করেন। বব রে দুই দেশ সফর শেষে রোহিঙ্গা নিধনযজ্ঞের তদন্ত প্রতিবেদন তুলে দেন ট্রুডোর হাতে।

বব রে তার বলেছিলেন, রোহিঙ্গা শরণার্থীদের আশ্রয় দিতে আগ্রহ দেখানোর পাশাপাশি তাদের জন্য মানবিক সহায়তা জোরদারে কানাডার ভূমিকা রাখা উচিত। এছাড়া রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে ঘটে যাওয়া মানবতাবিরোধী অপরাধ ও গণহত্যার প্রমাণ একসাথে করে সংরক্ষণ করতে সহায়তা করারও সুপারিশ করেন বব রে। কানাডার কেন্দ্রীয় সরকার কয়েকদিনের মধ্যে ওই প্রতিবেদন বিষয়ে আনুষ্ঠানিক অবস্থান জানাবে বলে আশা করা হচ্ছে।

সর্বশেষ সংবাদ

উখিয়ায় শরনার্থী ক্যাম্পের মক্তবে রোহিঙ্গা ভাষায় পাঠদান

গোমাতলীর আবদুল কুদ্দুছ সওদাগরের ইন্তেকাল

জার্মান সাংবাদিকের উপর হামলার ঘটনায় ১১ রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী আটক

পথে পথে পর্যটক

পেকুয়ায় বিএনপির দু’শতাধিক নেতাকর্মী আ.লীগে যোগদান

চকবাজারে অগ্নিকান্ডে সৌদি বাদশাহ ও ক্রাউন প্রিন্সের শোক

উখিয়ায় নার্সারীতে সন্ত্রাসী হামলা, ভাংচুর: আহত ৩

পাকিস্তানে পালিত হলো ‘আর্ন্তজাতিক মাতৃভাষা দিবস’

আমীরে হেফাজত টেকনাফ আসছেন শনিবার

সকল নূরানী মাদ্রাসাকে বোর্ডের অধিভুক্ত ও সনদ পরীক্ষা বাধ্যতামূলক করা হোক

বদরমোকাম হেফজখানার প্রধান শিক্ষক শামশুল আলম আর নেই

জনপ্রিয় তামিল সঙ্গীত পরিচালক কুরালারাসানের ইসলাম গ্রহণ

শনিবার জেলা আইনজীবী সমিতির নির্বাচন

যুদ্ধের প্রস্তুতি নিচ্ছে পাকিস্তান, খালি করা হচ্ছে হাসপাতাল

মুসলিম উম্মাহর বন্ধন হোক সুদৃঢ়

মেসির চেয়েও কঠিন এমবাপেকে আটকানো : মার্সেলো

কেমিক্যালের কারণে ছড়িয়েছে আগুন: তদন্ত কমিটি

কক্সবাজার সদর থানা পুলিশের অভিযানে গ্রেফতার-১৮

চার জেলায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ৫

চকবাজারে আগুনের ঘটনায় মামলা