এম. মনছুর আলম, চকরিয়া:

কক্সবাজারের চকরিয়ায় হারবাং ইউপি চেয়ারম্যানের প্রাইভেট হাইয়েস (মাইক্রোবাস) গাড়ীটি চট্রগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কস্থ হারবাং ষ্টেশন থেকে চুরি হওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এনিয়ে গাড়ী চুরির ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে গাড়ীর চালক মোহাম্মদ মুছা(৩৫)কে আটক করে থানা পুলিশের কাছে সোপর্দ করেছে।আটক গাড়ীর চালক হারবাং এলাকার মৃত মৌলভী ইমাম শরীফের পুত্র। ১৭এপ্রিল(বুধবার)দিবাগত রাত আনুমানিক ১টার দিকে উপজেলার হারবাং ইউনিয়স্থ হারবাং ষ্টেশনের উত্তর পাশে মহাসড়কে এ চুরির ঘটনা ঘটে।গাড়ির মালিক হারবাং ইউপি চেয়ারম্যান মিরানুল ইসলাম মিনার থানায় এ বিষয়ে অভিযোগ দায়ের করেছে।

সুত্রে জানাগেছে, চট্রগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কস্থ হারবাং ষ্টেশন এলাকা থেকে বুধবার দিবাগত রাতে হারবাং ইউপি চেয়ারম্যানের প্রাইভেটে হাইয়েস(মাইক্রোবাস)কালো রংয়ের চট্রমেট্রো-চ ১১-১৯৪২গাড়ীটি কে বা কারা চুরি করে নিয়ে যায়।গাড়ীটি দু’দিন ধরে রাখানো স্থানে না দেখে স্থানীয়রা মোবাইল করে চেয়ারম্যান মিরানকে অবহিত করে।পরে চেয়ারম্যান গাড়ীটির খোঁজ করে না পেয়ে চালক মুছাকে ডেকে আনেন।চালককে গাড়ীর ব্যাপারে চেয়ারম্যান বিভিন্ন জিজ্ঞাসাবাদ করলে সে সুনির্দিষ্ট কোন উত্তর দিতে না পারায় তাকে চুরির ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে আটক করে থানা পুলিশকে সোপর্দ করেছে।গাড়ীর মালিক ও হারবাং ইউপি চেয়ারম্যান মিরানুল ইসলাম মিনার দাবি করেছেন, চালক মোহাম্মদ মুছা ওই গাড়িটি চুরি করতে সহযোগিতা করেছেন।যদি সে সহযোগীতা না করলে তাহলে দরজা বন্ধবস্থায় অন্যজন কি ভাবে গাড়িটি  চুরি করে নিয়ে যায়।গাড়ীর চাবি ছিল চালক মুছার হাতে।এ চুরির ঘটনার চালক জড়িত থাকার কারণে তাকে আটক করে পুলিশের হাতে সোপর্দ করা হয়েছে।এ নিয়ে মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে চেয়ারম্যান জানান।

এ ব্যাপারে চকরিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো:বখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরীর কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন ,হারবাং ইউপি চেয়ারম্যান গাড়ি চুরির ঘটনার অভিযোগে চালককে আটক করা হয়।এ বিষয়ে আটক চালককে প্রাথমিক ভাবে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে বলে তিনি জানান।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •