ইন্টার্ন চিকিৎসকদের দাপট: ৪ ঘণ্টা তালাবদ্ধ কক্সবাজার সদর হাসপাতাল (ভিডিও)

শাহেদ মিজান, সিবিএন:

জরুরি বিভাগে দায়িত্বরত চিকিৎসকের গায়ে হাত তোলার অভিযোগে কক্সবাজার সদর হাসপাতাল ৪ ঘণ্টা ধরে তালাবদ্ধ করে রাখে ইন্টার্ন চিকিৎসকরা। একই সাথে বন্ধ করে দেয়া হয় হাসপাতালের সব ধরণের সেবা। হাসপাতালে অবরুদ্ধ হয়ে চরম দুর্ভোগ পোহায় রোগী ও স্বজনেরা। দুপুর ১২টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত টানা চার ঘণ্টা এই মারাত্মক পরিস্থিতি শিকার হন রোগী ও স্বজনেরা। তবে বিকাল ৪টার পর হাসপাতালে ফটকের তালা খুলে দিলেও এখনো চিকিৎসাসেবা বন্ধ রয়েছে।

ইন্টার্ন চিকিৎসকদের দাবি, আহত হয়ে জরুরি বিভাগে চিকিৎসা নিতে আসা রোগীর সেবা পেতে বিলম্বের জেরে মঙ্গলবার দুপুর ১২টার দিকে দুই ইন্টার্ন চিকিৎসকে মারধর করা হয়। তাই তারা সেবা বন্ধ ও হাসপাতালে সব ফটকে তালা দিয়ে রোগীদের অবরুদ্ধ করে।

রোগীর অভিভাবকদের হামলায় আহত ইন্টার্ন চিকিৎসকরা হলেন- শেফায়েত হোসেন আরাফাত ও তাওহীদ ইবেনে আলাউদ্দিন। তারা দুইজনই কক্সবাজার মেডিকেল কলেজের ইন্টার্ন চিকিৎসক। তাদের শরীরে আঘাতের কোনো চিহ্ন না থাকলেও কিল-ঘুষি মারা হয়েছে বলে দাবি করেন তারা।

হামলার শিকার ইন্টার্ন চিকিৎসক শেফায়েত হোসেন জানান, বেলা ১১টার দিকে হাসান মাহমুদ নামে এক রোগী মুখে আঘাত নিয়ে হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসেন। রোগীর চাপের মধ্যে তাকে চিকিৎসা দিতে একটু দেরি হলেই চিকিৎসকদের ওপর হামলা শুরু করে ৪-৫ জন যুবক। মারার পরে তারা রোগীকে সঙ্গে নিয়ে দ্রুত ঘটনাস্থল ত্যাগ করে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, হাসপাতাল তালাবদ্ধ থাকায় জরুরী প্রয়োজনে হাসপাতালের জানালা দিয়ে কিছু রোগীকে ভেতরে ঢুকানো হলেও অনেক রোগী ফিরে গেছেন। তবে অতিকষ্টে যেসব রোগীদের জানালা দিয়ে ভেতরে ঢুকানো হয় তারাও চিকিৎসা পায়নি তখন। ফটক খুলে দেয়া হলেও চিকিৎসা সেবা বন্ধ থাকায় এখনও (সন্ধ্যা ৬ট) কোনো রোগী চিকিৎসা পাচ্ছে না। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত কোনো রোগীকে চিকিৎসা দিচ্ছেন না ইন্টার্ন চিকিৎসকরা।

এদিকে হামলাকারীদের বিরুদ্ধে দ্রুত আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করাসহ সাত দফা দাবি দিয়েছে ইন্টার্ন চিকিৎসকরা। যতক্ষণ পর্যন্ত দাবি পূরণ না হবে ততক্ষণ পর্যন্ত তারা চিকিৎসা সেবা থেকে বিরত থাকবে।

রোগী ও ভুক্তভোগীদের দাবি, কে কাকে মেরেছে তার জন্য হাসপাতালে তালা দিয়ে সাধারণ রোগীদের অবরুদ্ধ ও  চিকিৎসাসেবা বন্ধ করা উচিত হয়নি। এতে ঝুঁকিতে রয়েছে অনেক রোগী। একজনের জন্য পুরো হাসপাতাল বন্ধ করে দেয়া কোনো ধরণের যুক্তিসঙ্গত ও সভ্য মানুষের আচরণ হতে পারে না। তারা চাইলে হামলাকারী রোগীর স্বজনদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য প্রশাসনের কাছে দাবি রাখতে পারে। ইন্টার্ণ চিকিৎসকদের এই কর্মকাণ্ড মানবতার চরম অবমাননা বলে দাবি করেন সচেতন মহলও।

কক্সবাজার সদর থানা পুলিশের ওসি ফরিদ উদ্দিন খন্দকার জানান, খবর পেয়ে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করতে ঘটনাস্থলে যায় পুলিশ। হামলার ঘটনায় হাসান মাহমুদ (৩০) নামে এক রোগীকে থানায় আনা হয়েছে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য। ওই রোগীকেই কেন্দ্র করে চিকিৎসককে মারধরের ঘটনা ঘটে বলে অভিযোগ করা হয়েছে।

এ বিষয়ে কক্সবাজার সদর হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. পু চ নু জানান, প্রায়ই চিকিৎসকের ওপর হামলার ঘটনা ঘটছে। যারা সেবা প্রদান করবে তাদেরকে কারণে-অকারণে মারধর করা হচ্ছে। এটা কোনোভাবেই মেনে নেয়া যায় না। চিকিৎসকদের নিরাপত্তা প্রদানে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ জরুরি।

রোগীদের ভোগান্তির ব্যাপারে তিনি জানান, দ্রুত এই সমস্যা সমাধান হবে। তবে তিনি নিশ্চিতভাবে বলতে পারেনি কখন সেবা প্রদান শুরু হবে।

//www.facebook.com/tarekbeenjiad.t/videos/1000855693396735/

কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

`রাঙামাটির রূপ দিনদিন হারিয়ে যেতে চলেছে’

বান্দরবানে শ্রেষ্ঠ উপজেলা সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা কালাম হোসেন

বর্তমান সরকারই পাহাড়ের মানুষের ভাগ্যোন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছে : বীর বাহাদুর এমপি

কুতুবদিয়ায় শহীদ উদ্দিন ছোটনসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে ফের গ্রেপ্তারি পরোয়ানা

লামায় ক্যাম্প প্রত্যাহার ষড়যন্ত্রের প্রতিবাদ ও রাজার সনদ বাতিল দাবীতে মানববন্ধন

লবণ আমদানি হবেনা, মজুদদারের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা -শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু

১ লাখ ৬০ হাজার মেট্রিকটন লবণ উদ্বৃত্ত, তবু আমদানির চক্রান্ত

ঈদগাঁও থেকে দোকানদার অপহরণঃ ৫ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবী!

‘হিংসাবিহীন মানুষ পাওয়া কঠিন’

যখন দশম শ্রেণির ছাত্রী এই সময়ের পিয়া

উখিয়ায় অসহায় মানুষের কল্যাণে কাজ করে যাচ্ছেন এসিল্যান্ড একরামুল ছিদ্দিক

কক্সবাজার শহরে বেড়েই চলছে চুরি ছিনতাই

হোটেল সী-গালের সংবর্ধনায় সিক্ত মেয়র মুজিবুর রহমান

বর্জ্য অপসারণে আরো একটি গাড়ি সংযোজন করলেন মেয়র মুজিব

মদ পানের অভিযোগে প্রধানমন্ত্রীর ফ্লাইটের ক্রু বহিষ্কার

এই জনপদটি ইয়াবা নামক বিষ বৃক্ষের আবক্ষে নিম্মজ্জিত : সকলের সহযোগিতা প্রয়োজন

যুগ্মসচিব হলেন কক্সবাজারের সন্তান শফিউল আজিম : অভিনন্দন

ধর্মীয় শিক্ষা মানুষের মাঝে মূলবোধের সৃষ্টি করে-এমপি কমল

কক্সবাজার সদর মডেল থানা পুলিশের অভিযানে ১৪জন আসামী গ্রেফতার

কক্সবাজার জেলা পুলিশকে আইসিআরসির ২৫০ বডি ব্যাগ হস্তান্তর