ফুল দিয়েই কাজের মূল্যায়ণ করলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক কাজি মোঃ আবদুর রহমান

বিশেষ প্রতিবেদক:
জনসেবার কাজে গতি বাড়াতে এবং উৎসাহিত করার জন্য নিজের অফিসের কর্মকর্তা-কর্মচারিদের ফুল দিয়েই বৃহষ্পতিবার মূল্যায়ণ করলেন কক্সবাজারের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) কাজি মোঃ আবদুর রহমান। তিনি বললেন, একজন সরকারি কর্মচারির ভুলের কারনে বা গাফিলতিতে যেমনি একটি পরিবার তথা গোটা সমাজ ভোগান্তির শিকার হতে পারে তেমনি আবার একজন সরকারি কর্মচারিই পারেন মুহূর্তেই ভোগান্তি থেকে রেহাই দিতে। সরকারি কর্মচারিদের প্রতি মুহূর্তের কামনা আর বাসনা হওয়া চাই-সেবামূলক তথা জনগনকে ভোগান্তি থেকে রক্ষা করা।

কক্সবাজার জেলার চলমান উন্নয়ন প্রকল্পের মধ্যে সবচেয়ে আলোচনার স্থানটিই হচ্ছে এখন জেলা প্রশাসনের জমি অধিগ্রহণ শাখা। জেলার প্রায় ১৫ হাজার একর জমি বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্পের জন্য অধিগ্রহণ করা হচ্ছে। এতগুলো প্রকল্প দেশের অন্য কোন জেলায় নেই। এক সাথে এতগুলো উন্নয়ন প্রকল্পের জমি অধিগ্রহণ করতে গিয়ে একদিকে জেলা প্রশাসনের জমি অধিগ্রহণ শাখার কর্মকর্তা-কর্মচারিরা যেমনি ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন তেমনি ক্ষতিগ্রস্থ লোকজনও তাদের ক্ষতিপূরণের টাকা উত্তোলন নিয়ে পড়ছেন নানা সমস্যার মুখে।

কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের জমি অধিগ্রহণ শাখার স্বল্প সংখ্যক লোকবল নিয়ে জেলা প্রশাসন রিতীমত বিপাকে পড়েছে। প্রকল্পের সংখ্যা এবং কাজ বেশী কিন্তু সেই পরিমাণে লোকবল নেই। বর্তমানে অবস্থাটা এমন পর্যায়ে গিয়ে পৌঁছেছে যে, এসব স্বল্প সংখ্যক লোকবল কোন একটি প্রকল্পের কাজ শুরু করলে অন্য প্রকল্পের কাজে ভাটা পড়ে। আবার একটি ছেড়ে অন্যটিতে গেলে ওদিকের কাজ ব্যাহত হয়। এসব কারনেই স্বল্প সংখ্যক লোকবলের শ্যাম রাখি না কুল রাখি অবস্থা হয়ে দাঁড়িয়েছে।

সম্প্রতি মাতারবাড়ি প্রকল্পের কাজের গতি মন্থর হয়ে পড়ায় সেখানকার ক্ষতিগ্রস্থ লোকজন বাদ-প্রতিবাদ করেন। এসব কারনে অধিগ্রহণ শাখার সকল কর্মকর্তা-কর্মচারিদের লাগানো হয় মাতারবাড়ি প্রকল্পের ক্ষতিগ্রস্থদের চেক বিতরণের কাজে। এমনকি জেলা প্রশাসন ভবনের তিনতলার বারান্দায় গণশুনানির ব্যবস্থা করা হয়। সকাল থেকে রাত অবধি সার্ভেয়ার ও কানুনগোগন একযোগে গণশুনানি নিয়ে মাতারবাড়ি প্রকল্পের কাজে গতি ফিরিয়ে দেন। জেলা ভুমি অধিগ্রহণ কর্মকর্তা (এলএও) মোঃ শাখাওয়াত হোসেন রুবেল জানান, একটানা কয়েকদিনের গনশুনানী নিয়ে মাতারবাড়ি প্রকল্পের কাজ অনেকদুর এগিয়ে গেছে। আগামী সপ্তাহান্তেই এ প্রকল্পের অর্ধশতাধিক চেক বিতরণ করা সম্ভব হবে বলে জানান তিনি।

সার্ভেয়ার-কানুনগোদের একটানা পরিশ্রমের কারনে মাতারবাড়ি প্রকল্পের কাজ এগিয়ে যাওয়ায় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) কাজি মোঃ আবদুর রহমান সার্ভেয়ার-কানুনগোদের নিজ অফিসে ডেকে নিয়ে বৃহষ্পতিবার হাতে ফুল দিয়েই তাদের কাজের মূল্যায়ণ করেছেন। তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করে বলেন-‘আমি আশা করি এমন মূল্যায়ণ আপনাদের দায়িত্ব পালনে আরো স্বচ্ছতামূলক গতিশীল হবে।’

সর্বশেষ সংবাদ

বদরমোকাম হেফজখানার প্রধান শিক্ষক শামশুল আলম আর নেই

জনপ্রিয় তামিল সঙ্গীত পরিচালক কুরালারাসানের ইসলাম গ্রহণ

শনিবার জেলা আইনজীবী সমিতির নির্বাচন

যুদ্ধের প্রস্তুতি নিচ্ছে পাকিস্তান, খালি করা হচ্ছে হাসপাতাল

মুসলিম উম্মাহর বন্ধন হোক সুদৃঢ়

মেসির চেয়েও কঠিন এমবাপেকে আটকানো : মার্সেলো

কেমিক্যালের কারণে ছড়িয়েছে আগুন: তদন্ত কমিটি

কক্সবাজার সদর থানা পুলিশের অভিযানে গ্রেফতার-১৮

চার জেলায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ৫

চকবাজারে আগুনের ঘটনায় মামলা

ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন

নাইক্ষ্যংছড়ি হাজি কালাম সরকারি কলেজে অমর একুশে পালিত

উখিয়ার এড. আবদুর রশিদ আর নেই : মাগরিবের পর জানাজা

টেকনাফে বিজিবির সাথে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মাদক ব্যবসায়ী নিহত, চার হাজার ইয়াবা উদ্ধার

কক্সবাজার সিটি কলেজে যথাযোগ্য মর্যাদায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপিত

কক্সবাজার ব্লাড ডোনেটিং ক্লাব উদ্যোগে বিনামুল্যে ৩শ রক্তের গ্রুপ নির্ণয়

রাস্তার পর্যটকদের রাত্রিযাপনের ব্যবস্থা করলো কক্সবাজার ছাত্রলীগ

চকরিয়ায় একুশের প্রথম প্রহরে শহীদ বেদিতে এমপি জাফর আলমের শ্রদ্ধাঞ্জলি

কক্সবাজার সরকারি কলেজে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপন

একুশের প্রথম প্রহরে শহীদ বেদীতে টেকনাফ পৌর প্রেসক্লাবের পুষ্পমাল্য অর্পণ