টেকনাফে বিজিবি-বিজিপি ব্যাটালিয়ন পর্যায়ে সৌজন্য বৈঠক

আমান উল্লাহ, টেকনাফ:
টেকনাফে বর্ডার গার্ড অব বাংলাদেশ (বিজিবি) ও মিয়ানমারের বর্ডার গার্ড পুলিশ (বিজিপি) ব্যাটালিয়ন পর্যায়ে সৌজন্য বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। ১২ এপ্রিল সকাল সাড়ে সাড়ে ১০ টায় টেকনাফ স্থল বন্দরস্থ মালঞ্চ রেষ্ট হাউজে উক্ত বেঠক অনুষ্ঠিত হয়। এতে বাংলাদেশের পক্ষে টেকনাফ ২ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক মোঃ আছাদুদ-জামান চৌধুরী নেতৃত্বে ১০ জন ও মিয়ানমারের পক্ষে বর্ডার গার্ড পুলিশ ব্রাঞ্চের অধিনায়ক (২) লেঃ কর্ণেল লিন টুট মিন্থ এর নেতৃত্বে ১১ জন সদস্য অংশ গ্রহন করেন। ঘন্টাব্যাপী বৈঠক শেষে টেকনাফ ২ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল মোঃ আছাদুদ-জামান চৌধুরী বলেন, সীমান্ত দিয়ে ইয়াবা মাদক পাচার বন্ধ রাখা, অবাধে রোহিঙ্গারা যাতে পালিয়ে আসতে না পারে সেজন্য উদ্যোগী ভুমিকা পালন, মিয়ানমার থেকে আসা যে কোন নৌকায় তল্লাশী, অসাবধনতা বশত কোন নৌকা জিরো সীমানা অতিক্রম করলে পতাকা বৈঠক বা আলোচনার মাধ্যমে সমাধান, সীমান্তে উত্তেজনা সৃষ্টি হয় এধরনের কোন সীদ্ধান্ত না নেওয়া ও সৌহার্দ্যপূর্ণ সম্পর্ক বজায় রাখতে নিয়মিত বিওপি পর্যায়ে বৈঠক, উভয় দেশে সন্ত্রাসী দ্বারা যাতে ক্ষতিগ্রস্থ না হয় সে ব্যাপারে সতর্কাবস্থার কথা বৈঠকে আলোচনা হয়েছে। এছাড়াও মিয়ানমারের বিজিপির পক্ষ থেকে পাকিস্তানের এক সন্ত্রাসী এদেশে অবস্থানের অভিযোগ করলে বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে দেখা হবে বলে জানিয়ে তিনি আরো বলেন, কোন সন্ত্রাসী গ্রুপ এদেশের মাটিতে সুযোগ পাবে না এবং এদেশ থেকে অন্য দেশের ক্ষতি করবে বাংলাদেশ তা কখনো চাইনা। বিষয়টি বিজিবির পক্ষ থেকে সাফ জানিয়ে দেয়া হয়েছে।

ভবিষ্যতে এধরনের বৈঠক নিয়মিত ভাবে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা জানিয়ে বিজিবি অধিনায়ক আরো বলেন, উভয় দেশের ক্যাম্প ও কোম্পানী কমান্ডার পর্যায়ে বৈঠকের জন্য প্রস্তাব করা হয়েছে। যে কোন সমস্যা সহজে ও দ্রুত সময়ে স্থানীয় পর্যায়ে সমাধানে ক্যাম্প টু ক্যাম্প পর্যায়ে যোগাযোগ এবং সকল ক্যাম্পের নাম্বারসমূহ রাখার সিদ্ধান্ত হয়েছে। সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে বিজিবি অধিনায়ক আরো জানান, যে কোন সমস্যা সৃষ্টি হলে দ্রুত সময়ে সমাধান পেতে মিয়ানমারের ভাষাগত কারণে অনেক সময় দেরী হয়ে যায়। রোহিঙ্গাদের কারণে উভয় দেশের মধ্যে কিছুটা সমস্যা সৃষ্টি হওয়ায় স্থানীয় কর্তৃপক্ষরা মিয়ানমার উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশের জন্য অপেক্ষায় থাকেন। তবে মিয়ানমার আলোচনাই আগ্রহী এবং অচিরেই সমস্যাগুলো সমাধান হবে বলে আশ্বস্থ করেছেন।

তাছাড়াও উভয় দেশের পারষ্পরিক সৌহার্দ্যপূর্ণ সম্পর্ক, সহযোগীতা বৃদ্ধির জন্য মতামত ব্যক্ত করা হয় এবং বাংলাদেশ-মিয়ানমার সীমান্তে সীমান্ত ব্যবস্থাপনার বিভিন্ন বিষয়ে ফলপ্রসু আলোচনা হয়েছে। আলোচনা শেষে উভয় দেশের মধ্যে শুভেচ্ছা জ্ঞাপন করা হয়। সাংবাদিকদের ব্রিফিংকালে মিয়ানমারের বর্ডার গার্ড পুলিশ ব্রাঞ্চের অধিনায়ক (২) লেঃ কর্ণেল লিন টুট মিন্থ উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে সকাল ১০ টায় স্থল বন্দরের ট্রানজিট ঘাট দিয়ে মিয়ানমারের প্রতিনিধি দল বাংলাদেশে পৌঁছলে টেকনাফ ২ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল মোঃ আছাদুদ-জামান চৌধুরী প্রতিনিধি দলকে স্বাগত জানান।

cbn
কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

সীমান্তে পাকা স্থাপনা নির্মাণে মিয়ানমারের দুঃখ প্রকাশ

নাইক্ষ্যংছড়ি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা উদ্বোধন

চট্টগ্রাম প্রেসক্লাব সভাপতি কলিম সরওয়ারকে আমিরাতে সংবর্ধনা

রিহ্যাব শারজাহ মেলায় অংশ নিচ্ছে ৫০ কোম্পানি ও ১০ ব্যাংক

হোপ হসপিটালে পোড়া রোগীদের সার্জারি ক্যাম্প

রামু কলেজে উগ্রবাদ-সহিংসতা প্রতিরোধে বিতর্ক প্রতিযোগিতা ও ওরিয়েন্টেশন

আওয়ামী লীগের সঙ্গে সম্পর্ক নেই ওলামা লীগের

বিয়েতে সৌদি নারীদের পছন্দের শীর্ষে বাংলাদেশি পুরুষরা

চুরি যাওয়া মোবাইল লক করে দেওয়ার সেবা চালু করছে বিটিআরসি

মহেশখালীতে বসতি উচ্ছেদ করে কয়লাবিদ্যুৎ প্রকল্পের রাস্তা নির্মাণ, উৎকন্ঠা

ফেরিওয়ালা

‘ওয়ার্ল্ড হিজাব ডে’ পালিত হবে ১ ফেব্রুয়ারি

সাবেক ফুটবলার কায়সার হামিদ কারাগারে

লাগাতার হাট-বাজার বয়কটে চরম দূর্ভোগে বাঘাইছড়ির লাখো মানুষ

সাবমেরিন ক্যাবলের কনসোর্টিয়ামে যুক্ত হলো বাংলাদেশ

রোহিঙ্গাদের দেখতে কক্সবাজারে জাতিসংঘের বিশেষ দূত

৩৭তম বিসিএস নন-ক্যাডারের ফল ফেব্রুয়ারিতে

একটি ব্রীজের জন্য ১০ গ্রামের মানুষের সীমাহীন দূর্ভোগ

কঠিন সময় পার করছে রেলওয়ে

ওয়াইফাই জোন স্থাপনের নিমিত্তে কউক’র আলোচনা সভা