‘মৃত গরুর মাংস গেল কক্সবাজারের হোটেল ও বিয়ে বাড়িতে’ – সংবাদের প্রতিবাদ

৯ এপ্রিল দৈনিক সৈকত ও কয়েকটি অনলাইন পোর্টালে প্রকাশিত মৃত গরুর মাংস গেল কক্সবাজারের হোটেল বিয়ে ও বাড়িতে শীর্ষক সংবাদটি আমার দৃষ্টি গোচর হয়েছে।প্রকাশিত সংবাদটি সম্পুর্ন মিথ্যা, বানোয়াট, ভিত্তিহীন ও উদ্দেশ্য প্রনোদিত। যার বিন্দুমাত্র সত্যতা নেই উল্লেখিত সংবাদে যে গরুটি মৃত বলা হয়ছে সম্পুর্ন ভুঁয়া।এমন কি পোকখালী মুসলিম বাজারে মাংস বিক্রির যে কথা বলা হয়েছে তা হাস্যকরে পরিনত হয়েছে। এদিন মুসলিম বাজারে কোন ধরনের মাংস বিক্রি হয়নি।মুল কথা হচ্ছে ঐদিন গরুটি অসুস্থ হয়ে পড়লে গৃহস্থ আমাকে ডেকে নিয়ে গরুটি বিক্রয় করার কথা বলে। দর নির্ধারণ করে গরুটি ক্রয় করে স্থানীয় এক মৌলভীর মাধ্যমে জবাই করে স্থানীয় কালা পুতু, জোবাইদা,শাহেদ,ইলিয়াছ,রোকসেনা সহ আরো কয়েকজন প্রত্যক্ষদর্শী এক কেজি করে মাংস ক্রয় করে।বাদবাকি মাংসগুলো অন্যত্রে বিক্রি করে দেওয়া হয়।এখন আমাদের প্রশ্ন স্থানীয় যারা ঐ গরুর মাংস ক্রয় করেছে তারা কি মৃত গরু হলে মাংস নিত? মুসলিম বাজারের বিক্রি করার বিষয়টি সত্য নয়।কারন এ বাজারে গরু-মহিষ জবাই করার আগের দিন বাজারে প্রদক্ষিণ ও পরিচালনা কমিটিতে গরু মহিষ গুলো দেখাতে হয় এমন কি দুপুর ১২ টার পর কোন ধরনের মাংস বিক্রি করা হয় না। অহেতুক বাজারে বিক্রি করা হয়েছে মর্মে ঐতিহ্যবাহী একটি বাজারের সু-নাম ক্ষুন্ন করা হয়েছে।নির্বাচিত বাজার পরিচালনা কমিটি থাকা সত্বেও কারো বক্তব্য নেওয়া হয়নি।আর সংবাদে আমাকে কসাই উল্লেখ করা হয়েছে অতচ আমি একজন প্রতিষ্টিত গরু ব্যবসায়ী হিসাবে জীবিকা নির্বাহ করে আসছি। গরুর মালিকের অভিযোগের প্রেক্ষিতে ঘটনাস্থলে গিয়ে তদন্ত করেছে পুলিশ এ বিষয় বানোয়াট। গরুর মালিক এ বিষয়ে কোথাও অভিযোগ দায়ের করেনি।আর আমার নেতৃত্ব দুর দুরান্ত থেকে অসুস্থ ও মৃত গরু এনে রাতের আধাঁরে জবাই করে বিভিন্ন স্থানে বিক্রির অভিযোগ আনা হয়েছে তাও সম্পুর্ন বানোয়াট। আমি গরু ব্যবসায়ী কেন আমি জবাই করব? আর হক টাকা দিয়ে কেন অসুস্থ এবং মৃত গরু ক্রয় করব?। প্রকাশ্য দিবালোকে শতশত জনগনের সামনে জীবিত গরু জবাই কে কেন্দ্র স্থানীয় কিছু ব্যক্তি মৃত গরু জবাইয়ের বাহনা তুলে আমাদের কাছে মোটা অংক দাবী করেছিল। আমরা না দেওয়ায় সংবাদকর্মী ও প্রশাসনকে ভুল তথ্য দিয়ে বিভ্রান্ত ছড়াচ্ছে।প্রকাশিত সংবাদে সংশ্লিষ্ট কাউকে বিভ্রান্ত না হওয়ার অনুরোধ জানাচ্ছি। আর কারো মোবাইল ফোনে দেওয়া তথ্য নিয়ে সংবাদ পরিবেশন না করে ঘটনাস্থলে এসে সংশ্লিষ্টদের বক্তব্যসহ সংবাদ পরিবেশন করার অনুরোধ রইল।

প্রতিবাদকারী
মোঃ মুজিবুর রহমান
পিতা- মোহাম্মদ হোছাইন
সাং মধ্যম পোক খালী,পোকখালী, সদর কক্সবাজার।

সর্বশেষ সংবাদ

সমাজসেবায় মাদার তেরেসা স্বর্ণ পদক পেলেন কামরুল হাসান

পরিচালকের যৌনতার অভিযোগে প্রিন্সিপ্যালের পদত্যাগ

ফেঁসে গেলো খরুলিয়ার ভূমিদস্যু শফিক, ১২ জনের বিরুদ্ধে মামলা

বসতভিটা রক্ষার চেষ্টাই কাল হলো তাদের

বর্তমান শাসনামলে খেলাপি ঋণ সবচেয়ে বেশি বেড়েছে: মেনন

সকল মানুষের কাছে চিরকাল স্মরণীয় হয়ে থাকবেন কবি আল মাহমুদ

নুসরাত হত্যাকারিদের দ্রুত শাস্তি দাবী পূজা উদযাপন পরিষদের

খরুলিয়ার জমি সংক্রান্ত বিরোধের ঘটনাস্থল পরিদর্শনে এমপি কমল

চকরিয়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় এনজিও কর্মী নিহত

পেকুয়ায় কাছারীমোড়া সাহিত্যকেন্দ্রের উদ্বোধন

বাংলাদেশ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির দেশ হিসেবে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে -ধর্ম প্রতিমন্ত্রী

শৃংখলা মেনে চললে যানজটের ও দুর্ঘটনাও কমে আসবে – ভারপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার

শ্রীলঙ্কা হামলায় আইএসের বুনো উল্লাস

শ্রীলঙ্কায় হামলার পেছনে ‘ন্যাশনাল তৌহিদ জামাত’

চট্টগ্রামে আসামি ধরতে গিয়ে গোলাগুলিতে আহত ৬ পুলিশ

মক্কা থেকে হারিয়ে গেল কক্সবাজারের সাদ

আল্লাহর কসম খেয়ে বলছি মাদকের সাথে আমি জড়িত নই- দিদার বলী

জিন তাড়ানোর বাহানায় যৌন সম্পর্ক গড়তো সেই পিয়ার

নুসরাত হত্যাকাণ্ডে অভিযুক্ত রুহুল আমিনের উত্থানের নেপথ্যে

বেনাপোল বন্দরের নির্মান কাজের চুরি যাওয়া রড উদ্ধার