দূর্গন্ধে বিষিয়ে তুলেছে জালালাবাদ সওদাগর পাড়া বাসীকে

এম আবুহেনা সাগর,ঈদগাঁও :

কক্সবাজার সদর উপজেলার জালালাবাদ সওদাগর ( বাজার) পাড়াবাসী দীর্ঘমাস ধরে দূর্গন্ধে বিষিয়ে উঠছে। অবিলম্বে পচাঁপানি যুক্ত ড্রেন সংস্কারের দাবী এলাকাবাসীর। প্রাপ্ত তথ্য মতে, ঈদগাঁও বাজারের পাশ্বর্বতী এলাকা সওদাগর (তেলী) পাড়াবাসী বহুদিন যাবত কাল ধরে ড্রেনে পরিত্যাক্ত পঁচাপানি ও ময়লা আবর্জনার দূগন্ধের উপর ভর করে দৈনিক চলাফেরা করে যাচ্ছে এখানকার লোকজন। পাশাপাশি ঈদগাঁও বাজারের দক্ষিন পাশ্বস্থ সড়কের নির্মান কাজের ফলে জন ও যানবাহন চলাচল করছে বর্তমানে সওদাগর পাড়া হয়ে বংকিম বাজার সড়ক দিয়ে। উক্ত সড়কের মাঝ অংশে ড্রেনে জমে থাকা পচাঁ পানি ও পাশ্বর্বতী ময়লায় দুগন্ধে বিষিয়ে তুলছে সাধারন পথচারী,যাত্রী,চাকরীজীবীসহ এলাকার সর্বশ্রেনী পেশার লোকজনদেরকে। এমনকি এই গ্রামীন সড়ক দিয়ে পোকখালী ও জালালাবাদ ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামাঞ্চলের মানুষজন কোন কোন কাজেকর্মে বাজারমুখী হয়ে থাকে । তাদের দূর্ভোগ আর দূর্গতি যেন কাল হয়ে দাঁড়িয়েছে। এদিকে নানা শিক্ষা প্রতিষ্টানের শিক্ষার্থীরা সকাল বেলায় দূগন্ধের কারনে নাক চেপে ধরে তাদের প্রিয় শিক্ষাঙ্গনে অতি কষ্টের বিনিময়ে আসা যাওয়া করে থাকে। আবার অনেকে বিদ্যালয়ে যেতে অনিহাও প্রকাশ করে। অপরদিকে ভাড়া বাসায় অবস্থান করা ভাড়াটিয়েরাও দুগন্ধের ফলে নিরুপায় হয়ে বসবাস করে যাচ্ছে। জালালাবাদ ফরাজী পাড়া থেকে বাজারে আসা কয়েকজন টমটম যাত্রী জানান, দুগন্ধময় চলাফেরা আর ভাল লাগেনা। কবে ড্রেন সংস্কার হবে তার উক্তর ও খুঁজে পাচ্ছেনা। সওদাগর পাড়ার স্থানীয় যুবক আলম, ইউসুফের মতে, যাতাযাত কালে দুগন্ধ থেকে মুক্তি পেতে হলে ড্রেন সংস্কার এখন সময়ের গন দাবীতে পরিনত হয়ে পড়েছে। তবে এমইউপি মোকতার জানান, ড্রেন সমস্যার সমাধান হতে যাচ্ছে। অপরদিকে সওদাগর পাড়ার ড্রেনটি সংস্কারের জোর দাবী জানান এলাকাবাসী। অন্যদিকে ইউপি চেয়ারম্যান ইমরুল হাসান রাশেদ মুঠোফোন রিসিভ না করায় তাঁর বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।

সর্বশেষ সংবাদ

চট্টগ্রামে পাঁঠা বলির সময় যুবকের হাত বিচ্ছিন্ন

ওষুধ কোম্পানির ৭ প্রতিনিধিকে জরিমানা

রাঙামাটিতে সন্ত্রাসীদের গুলিতে সেনাসদস্য নিহত

প্রত্যাবাসন নিয়ে গুজবে রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আতঙ্ক, সতর্ক প্রশাসন

সাংবাদিক বশির উল্লাহর পিতার মৃত্যুতে মহেশখালী প্রেসক্লাবে শোক

শহরে খাদ্য নিয়ন্ত্রণ কার্যালয় কর্মচারীর উপর হামলা

মহেশখালীর সাংবাদিক বশিরের পিতার মৃত্যু, কাল জানাযা

রামুতে সন্ত্রাসী হামলার শিকার আওয়ামী লীগ নেতা, চমেকে ভর্তি

‘নবম ওয়েজবোর্ড সাংবাদিকদের অধিকার, নোয়াবের ষড়যন্ত্র রুখে দিন’

‘জেলা ছাত্রলীগের নতুন কর্ণধার হতে প্রার্থী হচ্ছেন মুন্না চৌধুরী’

সমুদ্র সৈকতে গোসলে নেমে আরো এক ছাত্র প্রাণ হারালো

কক্সবাজারের সাংবাদিকতার যতকথা, পর্ব-১৮

হালদা নদী দূষনঃ এশিয়ান পেপার মিলের উৎপাদন বন্ধের নির্দেশ

ছাত্রদলের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক পদপ্রার্থী যারা

পার্বত্য চট্টগ্রামকে ভারতের অবিচ্ছেদ্য অংশ দাবি

যেকোনো সময় যে কাউকে নিজের কাছে যাওয়ার অনুমতি প্রধানমন্ত্রীর

শাহজালাল বিমানবন্দরে ১০ হাজার পিস ইয়াবাসহ উখিয়ার জসিম আটক

২০১৯ সালের প্রথমার্ধে ৮.৩৬ মিলিয়ন পর্যটককের দুবাই ভ্রমণ

কাবুলে বিয়ের অনুষ্ঠানে আত্মঘাতী হামলা, নিহত ৬৩

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন নিয়ে পরিষ্কার করে কিছু বলছে না সরকার