পিএমখালীতে পাষন্ড পিতা কর্তৃক কন্যা ধর্ষিত, ধর্ষক গ্রেফতার

মায়ের সাথে ধর্ষিতা (বামে)

শাহেদ মিজান, সিবিএন:
কক্সবাজার সদরে পিএমখালী ইউনিয়নের কাঠালিয়ামুড়া এলাকায় নিজ ওরষজাত কন্যাকে ধর্ষণ করেছে কলিম উল্লাহ নামের এক পাষন্ড পিতা। ধর্ষিতা মেয়েটির বয়স ১৩ এবং সে স্থানীয় পিএখালী উচ্চ বিদ্যালয় এর ৬ষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্রী। গত বছরের মার্চে প্রথমবার এই ঘটনা ঘটে। অভিযোগ পেয়ে ধর্ষক কলিম উল্লাহকে গ্রেফতার করা হয়েছে। কক্সবাজার সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. নোমান হোসেন প্রিন্স বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

মেয়ে ও তার মায়ের বরাত দিয়ে মো. নোমান হোসেন প্রিন্স জানান, পিএমখালী ইউনিয়নের কাঠালিয়ামুড়া এলাকার কলিম উল্লাহর সাথে একই ইউনিয়নের জুমছড়ি এলাকার এক নারীর সাথে বিয়ে হয়। তবে ২০১৬ সালের ডিসেম্বরে তাদের তালাক হয়। তাদের দুটি কন্যা সন্তানের জন্ম হয়।

তালাকের পর ছোট কন্যা মায়ের সাথে নানার বাড়ীতে চলে গেলেও বড় কন্যা লেখাপড়ার জন্য তার বাবা কলিম উল্লাহর কাছে থাকে। সে ২০১৭ সালের ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত স্থানীয় পিএখালী উচ্চ বিদ্যালয় এর ৬ষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্রী থাকলেও হঠাৎ একদিন তার বাবা কলিম উল্লাহ্ তার পড়াশোনা বন্ধ করে দেন।

ধর্ষিতার ভাষ্য মতে, ২০১৭ সালের মার্চের কোন একদিন কলিম উল্লাহ্ তার কন্যাকে তার সাথে বিছানায় ঘুমাতে বাধ্য করেন এবং পরে তাকে সারারাত ধর্ষণ করেন। এরপর থেকে প্রাণনাশসহ নানা ভয়ভীতি দেখিয়ে এই পাষন্ড পিতা তার কন্যাকে নিয়মিত পাষবিক নির্যাতন করতে থাকে। একপর্যায়ে মেয়েটি অন্ত:স্বত্ত্বা হয়ে পড়ে।

এদিকে অন্ত:স্বত্ত্বা হয়ে পড়ায় কলিম উল্লাহ্ স্থানীয় মেম্বার আরিফ উল্লাহ্র সহযোগিতায় তড়িঘড়ি করে গত জানুয়ারিতে ওই মেয়েকে তার এক ফুফাতো ভাইয়ের সাথে বিয়ে দিয়ে দেয়। কিন্তু বিয়ের চারদির দিন পর ওই মেয়ের একটি কন্যা সন্তান জন্ম হয়।

ধর্ষিতা জানান, সন্তান জন্মদানের পর শ্বশুর বাড়ীর লোকজন তার উপর শারীরিক ও মানসিক অত্যাচার করতে থাকেন। এক পর্যায়ে ২৮ দিনের মাথায় তার কন্যা সন্তানটি মারা যায়। অত্যাচার এর মাত্রা বেড়ে গেলে ১ এপ্রিল মেয়েটি শ্বশুর বাড়ী থেকে পালিয়ে নানার বাড়ীতে মা’র কাছে গিয়ে আশ্রয় নেয়।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. নোমান হোসেন প্রিন্স সিবিএনকে বলেন, ‘অভিযোগ পেয়ে ধর্ষিতা ওই মেয়ে এবং তার পরিবারের সদস্যদের সাথে দেখা করেছি এবং সাথে সাথে পুলিশের সহযোগিতায় বুধবার (৪ মার্চ) অভিযান চালিয়ে ধর্ষক পাষন্ড কলিম উল্লাহকে গ্রেফতার করেছি।’

রাত সাড়ে ৮টায় এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত মামলার প্রক্রিয়া চলছিল বলে জানান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. নোমান হোসেন প্রিন্স।

কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

কেন শেখ হাসিনাকেই আবার ক্ষমতায় দেখতে চায় ভারত

দাঁতের ইনফেকশন থেকে হতে পারে হার্ট অ্যাটাক

দৈনিক স্বদেশ প্রতিদিন পত্রিকার স্টাফ রিপোর্টার নিযুক্ত হলেন আনছার হোসেন

তারেকের বিষয়ে ইসির কিছুই করার নেই

গণফোরামে যোগ দিলেন সাবেক ১০ সেনা কর্মকর্তা

৬০ আসনে জামায়াতের ‘দর-কষাকষি’

চকরিয়ায় মধ্যরাতে স্কুল মাঠে ঘর তৈরির চেষ্টা

চকরিয়া-পেকুয়ায় মনোনয়ন পেতে মরিয়া জাফর আলম

তারেকের ভিডিও কনফারেন্স ঠেকাতে স্কাইপি বন্ধ করল বিটিআরসি

খুটাখালী বালিকা মাদরাসায় শিক্ষক নিয়োগ

চকরিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যানের পদ শূন্য ঘোষনা

ইসির নির্দেশনা বাস্তবায়ন হচ্ছে কিনা জানেন না জেলা নির্বাচন অফিসার

প্রশাসন ও পুলিশে রদবদল করতে যাচ্ছে ইসি

আ’লীগের প্রার্থী মনোনয়ন চূড়ান্ত হয়নি: ওবায়দুল কাদের

মাদকের কারণে কক্সবাজারের বদনাম বেশি -অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আদিবুল ইসলাম

বঙ্গবন্ধুর দেখানো পথে কক্সবাজারকে এগিয়ে নিতে চান আনিসুল হক চৌধুরী সোহাগ

আগাম নির্বাচনি প্রচার সামগ্রী না সরানোয় জরিমানার নির্দেশ ইসি’র

টেকনাফ রোহিঙ্গা ক্যাম্পে বিশ্ব টয়লেট দিবস পালিত

রাঙামাটিতে যৌথ অভিযানে তিন বোট কাঠসহ আটক ৭

বিএনপি’র প্রতীক ‘ধানের ছড়া’ না ‘শীষ’?