cbn  

স্পোর্টস ডেস্ক:

অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদে খেলার কারণে কোকে খুব ভালো করেই জানেন চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী বার্সেলোনার লিওনেল মেসিকে। এবার আন্তর্জাতিক ম্যাচেও মুখোমুখি তারা। কাল মঙ্গলবার রাত দেড়টায় ওয়ান্দা মেত্রোপলিতানোতে আর্জেন্টিনাকে স্বাগত জানাবে স্পেন। এই ম্যাচের আগে প্রতিপক্ষের ফরোয়ার্ডকে প্রশংসায় ভাসালেন স্প্যানিশ মিডফিল্ডার।

ক্লাব প্রতিদ্বন্দ্বিতার অভিজ্ঞতা থেকে কোকে বললেন, মেসি মাঠে নামলে তাকে থামানোর জন্য খুব বেশি কিছু করার সুযোগ পায় না প্রতিপক্ষ। আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ডকে থামানো প্রায় অসম্ভব। মার্কাকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে কোকে বলেছেন, ‘আমার কাছে সে বিশ্বের সেরা। যখন আপনি তার বিপক্ষে মাঠে নামবেন, তখন একটা চিন্তাই করবেন যেন এটা তার সেরা দিন না হয়।’

পাঁচবারের ব্যালন ডি’অর জয়ীকে থামাতে অনেক কাঠখড় পোড়াতে হয় স্বীকার করলেন ২৬ বছর বয়সী মিডফিল্ডার, ‘এটা খুব কঠিন (মেসিকে থামানো)। আপনাকে মাঠের অনেক জায়গা কাভার করতে হয়। সবসময় রক্ষণেও সহায়তা করতে হয় এবং আশা করতে হয় যেন এটা তার দিন না হয়।’

মেসির জাদুকরী ক্ষমতা নিয়ে কোকে বলেছেন, ‘আপনি জানেন সে আক্রমণ শুরু করতে যাচ্ছে। সেটা দেখলেন এবং তাকে চ্যালেঞ্জ জানানোর প্রস্তুতি নিলেন, কিন্তু সে এটা করে ফেললো। অথবা, হঠাৎ কিছু আবিষ্কার করে ফেলবে। কারণ তার অনেক সৃজনশীল ক্ষমতা। তাকে থামানো প্রায় অসম্ভব।’

ইতালির বিপক্ষে আগের ম্যাচে দেখা যায়নি মেসিকে। হ্যামস্ট্রিংয়ের সমস্যায় ভুগছেন তিনি। তার প্রভাব পড়েছিল আক্রমণভাগে। সমালোচকদের মতে, মেসির ওপর অনেক নির্ভরশীল আর্জেন্টিনা। অবশ্য এতে সমস্যা দেখছেন না কোকে, ‘বার্সেলোনা হোক, আর জাতীয় দল হোক; প্রত্যেক ম্যাচে সবাই তাকে খোঁজে। কারণ একটি গোল, একটি পাসে সে ম্যাচ নির্ধারণ করে দেয়। যখন আপনি তাকে টিভিতে দেখেন, তখন মনে হবে হঠাৎ করে গতি পাল্টে দিলো। যদি সে আপনার দলে থাকে, তবে তাকে দেখতে চাওয়াই স্বাভাবিক।’

ইতালির পর স্পেনের বিপক্ষেও মেসির না থাকার বিষয়টি নিয়ে গুঞ্জন উঠেছে। তবে গত কয়েক দিনের অনুশীলনের পর ৩০ বছর বয়সী ফরোয়ার্ডকে মাঠে দেখতে আশাবাদী দুইবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা। অন্তত ৬০ মিনিট মেসি খেলবেন শোনা যাচ্ছে। মার্কা

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •