প্রেস বিজ্ঞপ্তি:
কক্সবাজার জেলার সনাতনী সম্প্রদায়ের রামুর শ্রীশ্রী রামকুট মেলা ঐতিহ্যবাহী মেলা। এটি সনাতনী সম্প্রদায়ের ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের পাশাপাশি রামুর সৌন্দর্য্যবর্ধন করেছে। এখানে প্রতিদিন পরিদর্শন ঘটে হাজার হাজার দর্শণার্থী ও পূণ্যার্থীদের। এটি ঐতিহ্য ধরে রাখার দায়িত্ব আমাদের সকলের।

শুক্রবার (২৩ মার্চ) বাংলাদেশ জাতীয় হিন্দু মহাজোট অফিস উদ্বোধন ও কক্সবাজার ‘সনাতনী বার্তা’ (শ্মরণিকা) প্রকাশনী উদ্বোধনকালে এসব কথা বলেন।

এসময় তিনি বাংলাদেশ জাতীয় হিন্দু মহাজোটের সকল নেতৃবৃন্দকে রামুর ঐতিহ্য ধরে রাখার বিষয়ে নানাবিধ উদ্যোগকে স্বাগত জানান। যেকোন সময় তিনি বাংলাদেশ হিন্দু মহাজোটের নেতৃবৃন্দের সাথে একাত্মতা প্রকাশ করে যেকোন প্রয়োজনে সাথে থাকবেন বলে অভিমত প্রকাশ করেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন রামু উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের আহবায়ক তপন মল্লিক, কক্সবাজার জেলা হিন্দু মহাজোটের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক লবা কর্মকার, রামু উপজেলা হিন্দু মহাজোট আহবায়ক সুজন চক্রবর্তী যুগ্ম আহবায়ক বিবেকানন্দ শর্মা, ছোটন শর্মা, শ্যামল মল্লিক, রনজিত দে, সুনিল শর্মা, রাইধন শর্মা, সুজিত মল্লিক হৃদয়, আশিষ শর্মা, মাষ্টার অজিত দে, চাকমারকুল ইউনিয়ন হিন্দু মহাজোটের ধন ধর, জোয়ারিয়ানালা ইউনিয়ন হিন্দু মহাজোটের মোহন শর্মা প্রমুখ। এসময় রামু উপজেলা হিন্দু মহাজোট আহবায়ক সুজন চক্রবর্তী ও যুগ্ম আহবায়ক বিবেকানন্দ শর্মা রামুর রামকুট মেলা সুষ্ঠুভাবে উদযাপনের সকলের সহযোগিতা কামনা করেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •