কক্সবাজার ব্যুরো
সরকারের আন্তরিকতায় অচিরেই এবতেদায়ী মাদরাসার সমস্যা সমাধান হচ্ছে বলে জানান, বাংলাদেশ জমিয়াতুল মোদার্রেছীনের কেন্দ্রীয় মহাসচিব প্রিন্সিপ্যাল মাওলানা শাব্বীর আহমদ মোমতাজী। তিনি বলেন, রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নেয়া উদ্যোগ বিশ্বব্যাপী প্রশংসিত হয়েছে। এতে করে বিশ্ব সম্প্রদায় ব্যাপকভাবে সাড়া দিয়েছে।
কিন্তু দুঃখজনক হলেও সত্য যে,মিয়ানমার সরকারের এব্যাপারে কোন আন্তরিকতা দেখা যাচ্ছেনা।
রোহিঙ্গা নির্যাতন ও প্রত্যাবাসন ব্যাপারে তিনি বিশ্ব সম্প্রদায়কে আরো জোরালো ভূমিকা রাখার আহবান জানান।
আজ ২১ মার্চ বিকেলে দৈনিক ইনকিলাব কক্সবাজার ব্যুরো অফিস পরিদর্শনে এলে বাংলাদেশ জমিয়াতুল মোদার্রেছীনের কেন্দ্রীয় মহাসচিব প্রিন্সিপ্যাল মাওলানা শাব্বীর আহমদ মোমতাজী এসব কথা বলেন।
তিনি জানান, শুরু থেকেই জমিয়াতুল মোদার্রেছীন রোহিঙ্গাদের নানাভাবে মানবিক সহযোগিতা দিয়ে আসছে। সম্প্রতি কুতুপালং শিবিরে একটি স্কুলও স্থাপন করেছে। জমিয়াতের নিজস্ব অর্থায়নে স্থাপিত ও পরিচালিত এই স্কুলে রোহিঙ্গা শিশুরা প্রয়োজনীয় লেখাপড়া শিখছে। জমিয়াতের কেন্দ্রীয় সভাপতি দেশের বরেণ্য সাংবাদিক ও দৈনিক ইনকিলাব সম্পাদক আলহাজ্ব এ এম এম বাহাউদ্দীন এ বিষয়ে সার্বক্ষনিক খোঁজখবর রাখছেন।
তিনি আরে বলেন, গত জানুয়ারীতে জমিয়াতের আহবানে ঢাকায় সারা দেশের লাখ লাখ আলেম ওলামা পীর মশায়েখ যে ঐতিহাসিক সম্মেলন করেছেন এতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বুঝতে পেরেছেন দেশের আলেম ওলামা পীর মশায়েখগণ দেশে উন্নয়নে ঐক্যবদ্ধ আছেন।
তিনি বলেন, সরকারের সহযোগিতায় অচিরেই এবতেদায়ী মাদরাসা সমুহের সমস্যা সমাধান হয়ে যাবে।
প্রিন্স্যাল মাওলানা শাব্বীর আহমদ মোমতাজী বলেন, নীতিমালার ত্রুটির কারণে স্বতন্ত্র এবতেদায়ী মাদরাসার ২৫ কোটি টাকা ব্যয় করা যাচ্ছেনা। অচিরেই তা সসমাধান হবে বলে মন্তব্য করেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •