নাইক্ষ্যংছড়িতে আইন শৃংখলা সভা

মো: জয়নাল আবেদীন টুক্কু, নাইক্ষ্যংছড়ি:
পাবর্ত্য নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলায় আইন-শৃংখলা বিষয়ক ও মাসিক সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।
১২ মার্চ সকাল ১০ টায় উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে সভায় সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নিবার্হী অফিসার এসএম সরওয়ার কামাল।
সভায় বক্তারা অভিযোগ করে বলেন, নাইক্ষ্যংছড়িতে আইন শৃংখলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে। এখানে তেমন চোর ডাকাত নেই, সন্ত্রাসীও নেই। এরপরও বিচ্ছিন্ন ঘটনার জন্য অতিরঞ্জিত করে লেখেন অনেক সাংবাদিক। বিষয়টি নিয়ে সবার ভাবা উচিত।
বক্তারা আরো বলেন, রামু, উখিয়া ও ককসবাজার সদর এলাকার চোর-ডাকাত-অপহরণকারীরা এখানে এসে এসব অপকর্ম করে যাচ্ছে দিনের পর দিন। যাতে করে এ এলাকার সুনাম ক্ষুন্ন হচ্ছে।
আইন-শৃংখলাসহ নানা প্রসঙ্গ টেনে সভার সভাপতি বলেন, প্রকৃত পক্ষে নাইক্ষ্যংছড়ি আইন-শৃংখলা এতো খারাপ না।
সভায় সদ্য পদত্যাগ করা বান্দরবান জেলা পরিষদ সদস্য মাস্টার ক্যাউচিং চাক বলেন, নাইক্ষ্যংছড়িতে কিছু হলেই মিডিয়া শুধু লিখা লিখি করে বসে থাকে। যা এলাকার দূনার্ম হয়।
এদিকে সভায় আইন-শৃংখলা কমিটির অনুপস্থিত সদস্যদের বিষয়ে সর্তক করে দেয়া হয়-ভবিষ্যত তারা যেন অনুপস্থিত না থাকেন। এ সভায় অন্যান্যদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন,উপজেলা চেয়ারম্যান( ভারপ্রাপ্ত) কামাল উদ্দিন, উপজেলার ভাইস-চেয়ারম্যান হামিদা চৌধুরী,থানার ওসি (তদন্ত) যায়েদ নূর,আওয়ামী লীগের সিনিয়র নেতা অধ্যাপক শফিউল্লাহ,সদস্য সচিব ইমরান মেম্বার,নাইক্ষ্যংছড়ি সদর ইউপি চেয়ারম্যান তসলিম ইকবাল চৌধুরী,দৌছড়ি ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব হাবিবুল্লাহ, সোনাইছড়ির চেয়ারম্যান বাহাইন মার্মা,বাইশারী ইউপি চেয়ারম্যান মো: আলম,উপজেলা আওয়ামী নেতা আবু তাহের,
ডা: সিরাজুল হক,নাইক্ষ্যংছড়ি প্রেস ক্লাবের প্রধান উপদেষ্টা ও উপজেলা দূনীর্তি প্রতিরোধ কমিটির সাধারণ সম্পাদক মাঈনুদ্দিন খালেধ, প্রেস ক্লাব সভাপতি শামিম ইকবাল চৌধুরী,সাবেক ছাত্র লীগ সভাপতি চু চু মং মার্মা দপ্তর সম্পাদক মো: জয়নাল আবেদূন টুক্কু ও উপজেলা আনসার-ভিডিপি কর্মকর্তা চন্দন দেব সহ উপজেলার সকল দপ্তরের কর্মকর্তা,রাজনৈতিক নেতা সহ কমিটির সকলে উপস্থিত ছিলেন ।
উল্লেখ্য সম্প্রতি নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার বাইশারীতে বেশ কয়েকটি অপহরণের ঘটনা ঘটে। আর সোনাইছড়িতে গত ১০ মার্চ শনিবার রাতে পাইয়ার ঝিরিতে ডাকাতি হয়। আহত হয় এক মেম্বার। এর আগে গণডাকাতির ঘটনা ঘটেছিল গত ১৫ ফের্রুয়ারী রাতে সোনাইছড়ির জুমখোলা রাস্তার মাথায়। এ ঘটনার স্থানীয় চেয়ারম্যান সহ দু ইউপি চেয়ারম্যান ডাকাতের মারধরে আহত হয়। এসব ডাকাতি ও অপহরণ ঘটনা পত্রপত্রিকায় লিখা লিখির কারণে অপহরণকাীদের বিষয়ে তৎপর হয়। তার পরেও উপজেলা কয়েকটি এলাকাতে মানুষ আতংকিত অবস্থায় দিন যাপন করছেন বর্তমানে।

সর্বশেষ সংবাদ

জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে গণহত্যা দিবসের আলোচনা সভা

এপ্রিলে প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা

সদর উপজেলায় প্রার্থীতা ফিরে পেলেন নুরুল আবছার

ইকবাল বদরী : একজন বিরল সমাজ সেবক

জেলা পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ স্কাউট শিক্ষক কোরক বিদ্যাপীঠের আনচারুল করিম

সাগরপাড়ের শিশুদের নিরাপত্তায় পদক্ষেপ নেয়া হবে

সোমবার স্বাধীনতা পুরস্কার পাচ্ছেন কক্সবাজারের শহীদ জাফর আলম

ঈদগাঁও পল্লী বিদ্যুতের সাব জোনাল অফিসকে জোনালে উন্নতিকরন

আমিরাতে রিহ্যাব ক্ষুদে আঁকিয়ে সিরিজের চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা

দল হিসেবে জামায়াতের বিচার: সংশোধিত আইনের খসড়া মন্ত্রিপরিষদে

‘আমি আছি, আমি থাকবো’

মেয়র মুজিবের চাচা জালাল আহমদ কোম্পানী আর নেই

জাতীয়তাবাদী সাইবার দলের সভাপতি আটক

ঐক্যফ্রন্টের ‘ব্যথায়’ বিএনপি, অবহেলায় ২০ দল

আজ ১ মিনিট নিঃশব্দ থাকবে বাংলাদেশ

বাঙালির রাষ্ট্রহীন সেই কালো রাতের গল্প

আজ ভয়াল ২৫ মার্চ

ক্রাইস্টচার্চে নিহতদের জাতীয়ভাবে স্মরণ করবে নিউজিল্যান্ড

ভোট পড়ার হার নিয়ে মাথাব্যথা নেই ইসির

কক্সবাজারে বঙ্গবন্ধুর পক্ষে স্বাধীনতার ঘোষক কামাল হোসেন চৌধুরী