তুমব্রু বাংলাদেশ-মিয়ানমার সীমান্তরক্ষীদের যৌথ টহল

নুরুল কবির, বান্দরবান:

বাংলাদেশে-মিয়ানমারের মধ্যেকার সীমান্তের ওপারে সৈন্যবৃদ্ধি নিয়ে বিরাজমান পরিস্থিতি প্রশমনে রোববার সকালে দুইদেশের সীমান্তরর্ক্ষীদের যৌথ টহলদান অনুষ্ঠিত হয়। ঘন্টাব্যাপী এই যৌথ টহলদান চলাকালে উভয়দেশের সীমান্তরর্ক্ষীদের মাঝে সোহার্দ্যপুণ ভাব বিরাজ করে বলে সীমান্তবাসীরা জানিয়েছেন। তুমরু সীমান্তে জিরো পয়েন্টে বসবাসকারী রোহিঙ্গা আবদুল আলিম ও রহিম উল্লাহ জানান, সকালে তারকাঁটা বেড়া ঘেঁষে উভয় দেশের বাহিনীকে টহল দিতে দেখা গেছে। এতে আমাদের মধ্যে স্বস্থি এসেছে। ক’দিন আগেও বিপরীত চিত্র দেখা গেছে এই সীমান্তে।

বান্দরবানের নাইক্ষংছড়ি উপজেলার সীমান্তবর্তী তুমব্রু কোনারপাড়া এলাকার পাশে জিরো লাইনে মিয়ানমানের সীমান্তরর্ক্ষী বিজিপি এবং বাংলাদেশের সীমান্তরর্ক্ষী বিজিবি স্বাভাবিক পরিস্থিতি বজায় রাখার লক্ষ্যে মুলত যৌথ টহলদান কার্যক্রম সম্পন্ন করেছে বলে জানিয়েছেন ককসবাজার ৩৪ বিজিবির ব্যাটালিয়ন কমান্ডার লে.কর্ণেল মন্জুরুল আহসান খান। তিনি আরো বলেন সীমান্তে যৌথ টহল কী করে আরো বাড়ানো যায় সেজন্য মিয়ানমারকে প্রস্তাব দেয়া হয়েছে। সীমান্তে যৌথ টহল অব্যাহত থাকলে উত্তেজনা এমনিতেই কমে আসবে। সেই সঙ্গে উভয় দেশের মধ্যে সম্পকের উন্নয়নও হবে

নাইক্ষংছড়ির ঘুমধুম ইউপি চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আজিজ বলেন, আমরা চাই সীমান্তে শান্তি বজায় থাকুক, যৌথ টহলদানের ফলে সীমান্তে বিরাজমান উত্তেজনাকর পরিস্থিতি প্রশমন হবে বলে আমরা আশা করছি।

উল্লেখ্য, গতবছরের ২৪আগষ্ট মিয়ানমারের রাখাইনে সহিংসতায় প্রায় ৭লক্ষাধিক রোহিঙ্গা সীমান্ত অতিক্রম করে বাংলাদেশে অনুপ্রবেশ করেছে। এসব রোহিঙ্গা মধ্যে নাইক্ষংছড়ির তমুব্রু সীমান্তের কোনাপাড়ার জিরো পয়েন্টে আটকা পড়েন প্রায় সাড়ে ৬ হাজার রোহিঙ্গা। পরবর্তীতে মিয়ানমারের সৈন্যরা সীমন্ত পয়েন্টে অবস্থানরত রোহিঙ্গাদের ওপর নানামুখি হয়রানী সৃষ্টি করে। এপারে বিজিবি সদস্যরা তাদের টহলদানও বৃদ্ধি করে দেয়।

সর্বশেষ সংবাদ

একটি সাদা কাফনের সফর নামা – (৬ষ্ঠ পর্ব)

আল্লাহর অপূর্ব দান ‘আয়াতুল কুরসি’

যেভাবে উদ্ধার হলো সোহেল তাজের ভাগ্নে সৌরভ

দ্রুত মাতৃভূমিতে ফিরতে চায় রোহিঙ্গারা

নিখোঁজের ১১ দিন পর সোহেল তাজের ভাগ্নে উদ্ধার

বিএনপির একদিকে ফুল অন্যদিকে অশ্রু!

প্রবৃদ্ধিতে শীর্ষে বাংলাদেশ : এডিবি

ইফা ডিজির এত দুর্নীতি!

মেসিতে মান বাঁচল আর্জেন্টিনার

শুধু এনজিওদের কারণে রসাতলে একটি প্রজন্ম

শরণার্থী দিবস কি? জানে না রোহিঙ্গারা, স্থায়ী সমাধানে ফিরতে চায় স্বদেশে

জলাবদ্ধতা নিরসনে পরিচ্ছন্ন শহরের বিকল্প নেই: মেয়র নাছির

এসএসসি ৮২-ব্যাচ এসোসিয়েটস এর ঈদ পুনর্মিলনী

মাতামুহুরি উপজেলার প্রশাসনিক অঞ্চল বদরখালীতে করার দাবী

নীড়ের টানে স্মৃতির বানে: চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজের ৩৮/৭ ব্যাচের পূণর্মিলন

চকরিয়ায় দরবেশকাটা জামে মসজিদের ৮০ কানি সম্পত্তি থাকলেও উন্নয়ন নেই

কক্সবাজারে আগত দেশ-বিদেশী প্রশিক্ষক ও বাফুফে’র কর্মকর্তাদের মতবিনিময়

দীর্ঘ ২০ বছর ধরে উপেক্ষিত ঈদগাঁও উপজেলা বাস্তবায়ন

সড়ক উন্নয়ন হাটহাজারী পৌরসভার দৃশ্যপট বদলে দিচ্ছে

বাংলাদেশ সেনাবাহিনীতে চাকরির সুযোগ