সিজারিয়ান অপারেশনে প্রসব ছাগলের বাচ্চাটি সুস্থ

এম.জিয়াবুল হক, চকরিয়া
চকরিয়া উপজেলা প্রাণীসম্পদ বিভাগের ভেটেরিনারী হাসপাতালে প্রথমবারের মতো সিজারিয়ান অপারেশনের মাধ্যমে প্রসব করানো সেই ছাগলের বাচ্চাটি সুস্থ রয়েছে। বর্তমানে দিনদিন বড় হচ্ছে। অপরদিকে সিজারের সময় পেট কাটা হলেও নিয়মিত পরির্চযা ও ওষুধ লাগিয়ে দেয়ার মাধ্যমে মা ছাগলটির কাটা ঘাঁর ক্ষতস্থান ক্রমাক্রয়ে শুকিয়ে উঠছে। বর্তমানে মা ও বাচ্চা ছাগলের শাররীকি অবস্থা নিয়মিত তদারক করছেন উপজেলা প্রাণী সম্পদ বিভাগের ভেটেরিনারী সার্জন ডা.ফেরদৌসী আক্তার দিপ্তী। অপারেশনের পরদিন তিনি ছাগল মালিকের বাড়িতে যান। খোঁজ-খবর নেন মা ও বাচ্চা ছাগলের। এখনো তিনি অফিসের কার্যক্রম সম্পাদনের পাশাপাশি সময় সুযোগ পেলে নিয়মিত খবরা-খবর নিচ্ছেন। পরিচর্যার দিকনির্দেশনা দিচ্ছেন ছাগল মালিক ফালেছা বেগমকে।

২৭ ফেব্রুয়ারী মঙ্গলবার রাত আটটা ২০ মিনিটে চকরিয়া উপজেলা প্রাণী সম্পদ বিভাগের ভেটেরিনারী হাসপাতালে সিজারিয়ানের মাধ্যমে ছাগলের বাচ্চাটি প্রসব হয়। এই সফল সিজারিয়ান অপারেশনটি করেন প্রাণী সম্পদ কার্যালয়ের ভেটেরিনারী সার্জন ডা. ফেরদৌসী আকতার দিপ্তীর নেতৃত্বে একদল চিকিৎসক।

প্রাণী সম্পদ বিভাগের কর্মকর্তারা জানান, উপজেলার ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নের গাবতলী বাজার মুসলিমনগর এলাকার ফালেছা বেগম একটি মা ছাগল নিয়ে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় প্রাণী সম্পদ কার্যালয়ের ভেটেরিনারী হাসপাতালে আসেন। এরপর হাসপাতালের ভেটেরিনারী সার্জন ডা. ফেরদৌসী আকতার ওই ছাগলটিকে পর্যবেক্ষন করেন এবং সিজারিয়ান অপারেশনের সিদ্ধান্ত নেন।

ভেটেরিনারী হাসপাতাল সূত্র জানায়, মা ছাগলটির জরায়ুতে পানি ভাঙা শুরু হলেও বাচ্চা প্রসব হচ্ছিল না। এ কারণে ছাগল মালিক সেটিকে পশু হাসপাতালে নিয়ে আসেন। ছাগলটি গর্ভের তিনমাস আগে গাড়ি এক্সিডেন্ট করে। এতে ছাগলটির পেলভিক গার্ডলে (শ্রোণীচক্র) ক্ষতি হয়। এরফলে প্রসুতি অবস্থায় যতটুকু সম্প্রসারণ হওয়ার প্রয়োজন ছিল, ততটুকু সম্প্রসারণ হয়নি। এ কারণে ছাগলটির স্বাভাবিক প্রসবের সম্ভাবনা ছিল না।

ফলে মা ছাগলের পেট কেটে চকরিয়া উপজেলায় প্রথমবারের মতো অপারেশনের মাধ্যমে ছাগলের বাচ্চটি প্রসব করান উপজেলা প্রাণী সম্পদ বিভাগের ভেটেরিনারী সার্জন ডা. ফেরদৌসী আকতার দিপ্তী। তার সাথে অপারেশনের ছিলেন ইর্ন্টাণ চিকিৎসক সাজিদ হাসান ও ইন্টার্ণ ভেটেরিনারী ফিল্ড এ্যাসিসটেন্ট মো. বাবর।

কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

উখিয়ার একজন অনন্য কারুকাজ শিল্পী প্রমোতোষ বড়ুয়া

বিশ্বে অাজ মুসলিমরা এত বেশি নির্যাতিত কেন?

শীর্ষ সন্ত্রাসী আনোয়ার বলি ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত

মহেশখালীতে আদিনাথ ও সোনাদিয়া পরিদর্শন করলেন মন্ত্রী মোস্তফা জব্বার

পেকুয়া জীম সেন্টারের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন

২৩ সেপ্টেম্বর ওবাইদুল কাদেরের আগমন উপলক্ষে পেকুয়ায় প্রস্তুতি সভা সম্পন্ন

পেকুয়ায় ৬দিন ধরে খোঁজ নেই রিমা আকতারের

রে‌ডি‌য়েন্ট ফিস ওয়ার্ল্ডের মাধ্য‌মে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য নতুন প্রজ‌ন্মের কা‌ছে পৌঁছা‌বে -মোস্তফা জব্বার

অনূর্ধ ১৭ ফুটবলে সহোদরের ২ গোলে মহেশখালী চ্যাম্পিয়ন

টাস্কফোর্সের অভিযানঃ ৪৫০০ ইয়াবাসহ ব্যবসায়ী আটক

টেকনাফে ৭৫৫০টি ইয়াবাসহ দুইজন আটক

এলোমেলো রাজনীতির খোলামেলা আলোচনা

কক্সবাজারে হারিয়ে যাওয়া ব্যাগ ফিরে পেলেন পর্যটক

সুষ্ঠু নির্বাচনে জাতীয় ঐক্য

সঠিক কথা বলায় বিচারপতি সিনহাকে দেশত্যাগে বাধ্য করেছে সরকার : সুপ্রিম কোর্ট বার

সিনেমায় নাম লেখালেন কোহলি

যুক্তরাষ্ট্রের কথা শুনছে না মিয়ানমার

তানজানিয়ায় ফেরিডুবিতে নিহতের সংখ্যা শতাধিক

যশোরের বেনাপোল ঘিবা সীমান্তে পিস্তল,গুলি, ম্যাগাজিন ও গাঁজাসহ আটক-১

তরুণদের এগিয়ে নিয়ে যাওয়াটা অনেক বেশি জরুরি- কক্সবাজারে মোস্তফা জব্বার