জামাল ড্রাইভার হত্যাকান্ড: আসামীরা ঘুরছে প্রকাশ্যে

বিশেষ প্রতিবেদক:

কক্সবাজারের বাস-টার্মিনাল এলাকার কামাল উদ্দিন প্রকাশ জামাল ড্রাইভার হত্যাকান্ডে জড়িত আসামীদের গ্রেফতারে পুলিশ রহস্যজনক আচরন করছে বলে অভিযোগ করেছে হত্যার শিকার জামালের পরিবার। হতাকান্ডের প্রায় ২৪ দিন পার হলেও আসামীরা প্রকাশ্যে থাকলেও তাদের রহস্যজনক কারনে পুলিশ গ্রেপ্তার করছে না । নিহত জামালের পরিবারের সুত্রে জানা গেছে, গত ১৫ ফেব্রুয়ারী নিজ বাসা থেকে ডেকে নিয়ে জামালকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে। এরপর হত্যাকান্ডের শিকার জামালের স্ত্রী নুর নাহার বেগম বাদী হয়ে ১৭ ফেব্রুয়ারী কক্সবাজার সদর মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় চারজনকে আসামী করা হয়। মামলার প্রধান আসামী রফিকুল ইসলাম বাবুলকে পুলিশ গ্রেফতার করে পুলিশ। কিন্তু হত্যাকান্ডের মূল পরিকল্পনাকারী ও মোহাম্মদিয়া গেস্ট হাউজের মালিক মো. ইসহাকের ছেলে মো. হাবিব উল্লাহ প্রকাশ্যে ঘোরাফেরা করলেও পুলিশ তাকে গ্রেপ্তারে নানা অজুহাত দেখাচ্ছে পুলিশ। পুলিশের এমন সুযোগে মামলা প্রত্যাহারে বাদী ও জামালের পরিবারকে বিভিন্নভাবে হুমকি-ধামকি দিয়ে আসছে আসামীরা। ওই মামলার বাকী আসামীরা হলো, ইউনূছ ড্রাইভার (৩০) ও ছৈয়দু ড্রাইভার (৫০)।

তবে গ্রেফতারকৃত আসামী বাবুলকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ৫ দিনের রিমান্ড আবেদন করা হয়েছে জানিয়ে কক্সবাজার সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ফরিদ উদ্দিন খন্দকার জানান, আদালত এখনো রিমান্ড মঞ্জুর করেনি। যদি আদালত আদেশ দেন তাহলে তাকে জিজ্ঞাসাবাদের পর বিস্তারিত তথ্য নিয়ে বাকীদের গ্রেফতারে অভিযান চালাবে পুলিশ।

উল্লেখ্য, পূর্ব শক্রতার জের ধরে গত ১৫ ফেব্রুয়ারী রাতে নিজ বাসা থেকে ডেকে নিয়ে হত্যা করা হয় জামালকে। এরপর ১৭ ফেব্রুয়ারী তার স্ত্রী নুর নাহার বাদী হয়ে কক্সবাজার সদর মডেল থানায় চারজনকে আসামী করে মামলা দয়ের করেন।

সর্বশেষ সংবাদ

১৫ ফেব্রুয়ারী কক্সবাজার জেলা ক্রীড়া সংস্থার নির্বাচন

ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস, চীনে ৪১ জনের মৃত্যু

চকরিয়ায় খুটাখালীর পীর আবদুল হাই রহ: ২দিন ব্যাপী ইছালে ছওয়াব মাহফিল সম্পন্ন

কোটি টাকা বরাদ্দে কক্সবাজার কেন্দ্রীয় বাসটার্মিনালের আধুনিকীকরণ কাজ শুরু

৪ কোটি টাকার ইয়াবাসহ ২ রোহিঙ্গা আটক

বাংলাবাজার জনতার হাতে গাড়ি চোর আটক,থানায় সোপর্দ

আমরা ঐক্যবদ্ধ হয়ে উখিয়ায় শান্তির জনপথ রচনা করবো- হামিদুল হক চৌধুরী

নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে যাত্রী বহন করে সেন্টমার্টিন গেলো দুটি জাহাজ

বাঁকখালী নদী খননের নামে অবৈধভাবে বালি উত্তোলন, ঝুঁকির মুখে জনপদ

৩ ফেব্রুয়ারী টেকনাফে আত্মসমর্পণ করতে যাচ্ছেন ৩০ ইয়াবাকারবারী

খুনিয়াপালংয়ে মসজিদ ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের মাঝে স’মিল স্থাপন না করার দাবীতে মানববন্ধন

ঈমানের পরীক্ষা তাদের উপরই আসে যারা হক্বের উপর থাকে -অধ্যক্ষ ছৈয়্যদ মুনির উল্লাহ্

আইসিজের রায়ে বাংলাদেশেরও বিজয় দেখছে রোহিঙ্গারা

চট্টগ্রামে অগ্নিদুর্গত পরিবারের পাশে মেয়র নাছির

সীমান্ত হত্যা নিয়ে বিএসএফের যুক্তি মানছে না বিজিবি

সৈকত সাংস্কৃতিক উৎসবে প্রাণের উচ্ছ্বাস

বেনাপোল দৌলতপুর সীমান্তে মাদক বিরোধী সমাবেশ

জেলা জাসদের সম্মেলন ২৬ জানুয়ারী, আসছেন ইনু

শ্বশুর বাড়িতে বসে ইয়াবা বিক্রি করতে গিয়ে পুলিশের হাতে ধরা জামাই

চলমান উন্নয়নকাজ শেষ হলেই কক্সবাজার হবে বিশ্বমানের শহর