টেকনাফ সীমান্ত দিয়ে ৫ শতাধিক রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশ

হাফেজ মুহাম্মদ কাশেম, টেকনাফ :

রোহিঙ্গারা আবারও দলে দলে বাংলাদেশের দিকে ছুটে আসছে। দেশটির সেনাবাহিনী বিদ্রোহী দমনের নামে রোহিঙ্গাদের ওপর বর্বরতা অব্যাহত রেখেছে বলে জানিয়েছেন অনুপ্রবেশকারী রোহিঙ্গারা। মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়ায় রোহিঙ্গারা আবারও পালানো শুরু করেছে।

জানা যায়, বুধবার ৭ মার্চ সকাল থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত টেকনাফের সাবরাং ইউনিয়নের শাহপরীরদ্বীপ ও বাহাছড়া ইউনিয়নের নোয়াখালীয়াপাড়া এলাকা দিয়ে ৫ শতাধিক রোহিঙ্গা বাংলাদেশে এসেছে। নতুন করে আসা এসব রোহিঙ্গাদের মধ্যে নাফনদী পেরিয়ে শাহপরীরদ্বীপ দিয়ে ৮৯ পরিবারের ৩৩০ জন রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশ করে টেকনাফের সাবরাং হারিয়াখালী ত্রাণকেন্দ্রে পৌঁছান বলে জানিয়েছেন সেনাবাহিনীর সাবরাং হারিয়াখালী ত্রাণ কেন্দ্রে দায়িত্বরত জেলা প্রশাসকের প্রতিনিধি ও টেকনাফ সিনিয়র উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা দেলোয়ার হোসেন। তিনি বলেন, ‘হঠাৎ করে রাখাইন রাজ্য থেকে আবারও দলে দলে রোহিঙ্গা বাংলাদেশমুখী হচ্ছে। পালিয়ে আসাদের বেশির ভাগই নারী ও শিশু।

বাহারছড়া ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য মোহাম্মদ ইলিয়াছ বলেন, ‘বুধবার নাফনদী পেরিয়ে সমুদ্র উপকুল দিয়ে নোয়াখালী পয়েন্ট দিয়ে ৩টি নৌকায় দেড় শতাধিক রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশ করেছে। পরে তারা বাহাছাড়া রোহিঙ্গা শিবিরের দিকে চলে যায়’।

মংডুর সিকদারপাড়া থেকে পালিয়ে এসেছেন ইমান শরীফ (৩৬)। তিনি জানান, রাখাইনে সেনা সদস্যরা যেসব গ্রামে রোহিঙ্গারা রয়েছে তাদেরকে জিম্মি করে রেখেছে। গত চার মাস আগে পাড়ায় পাড়ায় হত্যাকাণ্ড চালায়। ওই সময় অন্যদের সঙ্গে তার বাড়িও জ্বালিয়ে দেয়া হয়েছিল। গুলি করে হত্যা করেছে তার এক চাচা ও দুই ভাতিজাকে। ওখানের পরিস্থিতি ভয়াবহ। রোহিঙ্গারা পালিয়েও বাঁচতে পারছে না। নিহতের সংখ্যা কত তা বলা খুবই মুশকিল। ঢেকিবুনিয়া থেকে পালিয়ে এসেছেন মুুজিবুল করিম (২৭)। তিনি জানান, রাখাইনে আহতদের চিকিৎসা দেওয়ার মতো কেউ নেই। ফলে আহত অনেকে বিনা চিকিৎসায় মারা যাচ্ছে।

টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো.রবিউল হাসান বলেন, ‘হঠাৎ করে আবারও সীমান্ত দিয়ে রোহিঙ্গা অনুপ্রশে বৃদ্ধি পেয়েছে। যেসব রোহিঙ্গারা অনুপ্রবেশ করছে তাদের মানবিক সহতায় দিয়ে টেকনাফ নয়াপাড়া রোহিঙ্গা শিবিরে পাঠানো হচ্ছে।

সর্বশেষ সংবাদ

দৌড়ে পালাচ্ছিল সবাই, মৃত্যুর মুখে ঝাঁপিয়ে পড়লেন এএসআই ফিরোজ

রোহিঙ্গাদের গণহত্যা তদন্তে আসছে আইসিসির প্রতিনিধিরা

মুহতামিম সিরাজের বিরুদ্ধে চেক প্রতারণা মামলা

চকরিয়ায় সাম্প্রতিক বন্যা পরিস্থিতি নিয়ে মতবিনিময় সভা

গরুর মৃত্যুতে ক্ষুব্ধ মুখ্যমন্ত্রী, ৮ সরকারি কর্মকর্তা বরখাস্ত

খুটাখালী থেকে দুই যুবক অপহরণ

বদর মোকাম থেকে মাঝেরঘাট পর্যন্ত সড়কের সংস্কার করা হবে -মেয়র মুজিব

মিয়ানমারকে অবশ্যই রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে হবে : প্রধানমন্ত্রী

ডুলাহাজারায় একালাবাসীর অভিযানে ইয়াবা সহ যুবক আটক, পুলিশে সোপর্দ

রহস্যজনক ওয়ালরাইটিংয়ে আতঙ্কঃ তদন্তে নেমেছে আইন শৃঙ্খলা বাহিনী

যে কারণে টাখনুর নিচে কাপড় পরা নিষিদ্ধ

ভবিষ্যত পৃথিবীর জন্য প্রস্তুতির ক্ষেত্র কক্সবাজারে

পেকুয়ায় প্রবাহমান খাল থেকে ৩ টি বাঁধ অপসারণ

চট্টগ্রামে বিএনপির মহাসমাবেশ সফল করুন -সরওয়ার জাহান চৌধুরী

মুফতি মাওলানা হাবিব উল্লাহ জেলা জামায়াতের ভারপ্রাপ্ত আমীর

অন্যায়ভাবে কর্মী ছাটাই করেছে সিলেট যুব একাডেমি

চট্টগ্রামে অধ্যক্ষের বাসায় চকরিয়ার তরুণীর ঝুলন্ত মরদেহ

উল্লাপাড়ায় ট্রেনের ধাক্কায় বর-কনেসহ ৮ জন নিহত

কোর্ট পুলিশের হাতে আইনজীবি নাজেহাল !

চকরিয়ায় বানভাসী মানুষের সীমাহীন কষ্ট : চরম দুর্ভোগ