শাহেদ মিজান, সিবিএন:
বৃহত্তর চট্টগ্রামের সাবেক উন্নয়ন সমন্বয়কারী   (ডিডিসি-প্রতিমন্ত্রী মর্যাদা), কক্সবাজার সদর-মহেশখালী আসনের সাবেক সংসদ সদস্য ও বিএনপি নেতা মহেশখালীর মো. রশিদ মিয়া (৯৩) আর নেই (ইন্নালিল্লাহি—-রাজেউন)। বুধবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে  বার্ধক্যজনিত কারণে  ঢাকার ডেমরার নিজ বাসভবনে শেষ নি:শ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। তার জামাতা এড. মোস্তাক আহামদ সিবিএনকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এড. মোস্তাক আহামদ সিবিএনকে জানান, ২০১৫ সালে মহেশখালী থেকে গ্রেফতারের পর তাঁকে ঢাকা নিয়ে যাওয়া হয়। পরে তিনি জামিন পেয়ে ঢাকার নিজ বাসায় বসবাস করছিলেন। এই সময়ে বার্ধক্যজনিত কারণে তিনি প্রায় সময় অসুস্থ থাকতেন। তবে  গত একমাস ধরে তিনি বেশি অসুস্থ  হয়ে পড়েন। এই একমাসে তিনি প্রায় মুমূর্ষু অবস্থায় ছিলেন। খাওয়া-দাওয়া একেবারে করতো না।

তিনি সিবিএনকে আরো  জানান, রশিদ মিয়ার মরদেহ মহেশখালীতে আনার ব্যবস্থা করা হচ্ছে। আগামীকাল বৃহস্পতিবার আছরের পর তাঁর জানাযা  পুবিটিবলা মাদ্রাসা মাঠে অনুাষ্ঠিত হবে।

জানা গেছে, মানবতাবিরোধী অপরাধ মামলায় ২০১৫ সালের ১ মার্চ মহেশখালী থেকে রশিদ মিয়াকে গ্রেফতার করেন পুলিশ। গ্রেফতারের পর তাকে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-২- হাজির করা হয়। তাকে ও একই সাথে গ্রেফতার হওয়ার মহেশখালীর আরেক যুদ্ধাপরাধী এলডিপির নেতা কক্সবাজার চেম্বারের সাবেক সভাপতি সালামত উল্লাহ খানকে ট্রাইব্যুনাল কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। এরপর দুই মাস কারাভোগের পর অসুস্থতা ও বার্ধ্যক্য বিবেচনায় আদালত রশিদ মিয়াকে জামিন দেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •