ইমাম খাইর, সিবিএন:
কক্সবাজার জেলা আইনজীবী সমিতির বার্ষিক নির্বাচনে সদস্য পদে সমান ভোট পেয়েছেন সেই পুরনো জুটি এডভোকেট মো. ইছহাক (জিপি) ও এডভোকেট আবুল কালাম ছিদ্দিকী। তাদের প্রাপ্ত ভোট ৩০৬।

তবে, সমান ভোট হলেও লটারী করতে হয়নি। কারণ, ৯ সদস্য পদের মধ্যে বাকী ৭ জনের ভোট তাদের চেয়ে কম।

২০১৬ সালে জেলা বারের নির্বাচনে সভাপতি পদে তারা দুইজনই সমান ভোট পেয়েছিলেন।সমঝোতার ভিক্তিতে প্রথম ৬ মাস এডভোকেট মো. ইছহাক (জিপি) এবং শেষের ৬মাস এডভোকেট আবুল কালাম ছিদ্দিকী সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন। কাকতালিয়ভাবে তারা দুইজন ২০১৮ সালে সদস্য পদে নির্বাচন করেছেন। সমান ভোট পেয়ে আলোচনা সৃষ্টি করলেন।

একইভাবে সদস্য পদে সমান ২৭০ ভোট পাওয়ায় আবু মুছা মোহাম্মদ প্রথম ৬ মাস এবং ইমরুল কায়েস (মানিক)  শেষের ৬ মাস দায়িত্ব পালনের সিদ্ধান্ত হয়।

শনিবার (২৪ ফেব্রুয়ারী) সকাল ১০টা বেলা ২টা পর্যন্ত একটানা ভোট গ্রহন চলে। দীর্ঘ ভোট গননা শেষে রাত ১১টার দিকে ফলাফল ঘোষনা করেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার এম. শাহজাহান।

নির্বাচনে ১৭ পদের বিপরীতে দুই প্যানেলের হয়ে ৩৪ প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে।

সভাপতি-সম্পাদকসহ সংখ্যাগরিষ্ঠ পদে আওয়ামীলীগ সমর্থিত বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদ প্যানেল বিজয়ী হয়েছে।

অপরদিকে দুইজন সহ-সভাপতিসহ বিএনপি-জামায়াত সমর্থিতরা ৭ পদে বিজয়ী হয়েছে।

প্রতিদ্বন্দ্বি দুই প্যানেলের বাইরে সভাপতি পদে স্বতন্ত্র প্রার্থী মোহাম্মদ জাকারিয়া ১৮ ভোট পান।

এবারের ভোটার সংখ্যা ৬৩২। ভোট কাস্ট হয় ৫৮৪টি। গতবারের ভোটার সংখ্যা ছিল ৬৫২। অনুপস্থিত ছিল ৪৮ ভোট।

এতে প্রধান নির্বাচন কমিশনের দায়িত্বে ছিলেন এম. শাহজাহান। সহকারী প্রধান নির্বাচন কমিশনার ছিলেন বাবু শ্যামল কান্তি চৌধুরী।

নির্বাচন কমিশনার ছিলেন- মোহাম্মদ বাকের, মোহাম্মদ রাশেদুল ইসলাম, মোহাম্মদ নুর-উল আলম, ফরিদ আহমদ ও মোহাম্মদ সিরাজ উল্লাহ।

 

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •