নিজস্ব প্রতিবেদক
কক্সবাজার সদরের ইসলামপুর উত্তর নাপিতখালী এলাকায় মোস্তাক আহমদ (৪৮) নামে লবণচাষিকে পিটিয়ে-কুপিয়ে জখম করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। সোমবার (১৯ ফেব্রুয়ারী) বিকাল ৩ টার দিকে কৈলাশঘোনাস্থ লবণ মাঠে ঘটনা ঘটে। আহত মোস্তাক আহমদ ওই এলাকার মরহুম হাজি ইসলাম আহমদের ছেলে। তাকে গুরুতর অবস্থায় উদ্ধার করে জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনায় জড়িত কেউ আটক হয়নি।
কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. মোহাম্মদ শাহীন আবদুর রহমান চৌধুরী জানান, আহতের শরীরের বিভিন্ন অংশে কাটা ও ফুলাসহ জখম হয়েছে। যথাযথভাবে চিকিৎসাসেবা দেয়া হচ্ছে।
এদিকে সোমবার সন্ধ্যায় মোস্তাক আহমদকে জেলা সদর হাসপাতালে দেখতে গেলে জানিয়েছেন, প্রতিদিনের মতো তিনি লবণ মাঠে কাজ করছিলেন। হঠাৎ একই এলাকার মাওলানা মনজুর আলম, তার ছেলে আবু মোস্তাকিম তাসিন, কবির আহমদের ছেলে মুফিজুর রহমান, বাঁশকাটা এলাকার কবির আহমদের ছেলে বাবুল প্রকাশ গাজা বাবুলসহ ৬/৭ জন কাজ না করে চলে যেতে বলে ধাক্কা দেয়। এরপর তাদের হাতে থাকা দা, লোহার রড দিয়ে আঘাত করে। তাতে মেস্তাকের মাথা, হাত ও পায়ে মারাত্নক জখম হয়। খবর পেয়ে স্থানীয়দের সহায়তায় স্বজনেরা তাকে ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে জেলা সদর হাসপাতালে পাঠায়।
আহতের ছোট ভাই এডভোকেট জসিম উদ্দিন জানান, তাদের পারিবারিক কিছু জমি নিয়ে আদালতে মামলা চলছে। স্থানীয় পরিষদও এ বিষয়ে কোন সুরাহা করতে পারেনি। পরিষদ বলেছে, আদালতে বিচারাধীন বিষয়ে তাদের হস্তক্ষেপের সুযোগ নেই। তাতে ক্ষিপ্ত হয়ে হামলার ঘটনাটি ঘটানো হয় বলে অভিযোগ আহত মোস্তাক আহমদের স্বজনদের।
এ বিষয়ে কক্সবাজার সদর মডেল থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ ফরিদ উদ্দিন খন্দকার জানান, ঘটনার বিষয়ে তাদের কেউ অভিযোগ দেয়নি। লিখিত অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •