সংবাদদাতা:
উখিয়ার জালিয়াপালং ৪ নং ওয়ার্ডের ডেইলপাড়ায় ৭ম শ্রেণীতে পড়ুয়া মাদরাসা ছাত্র বলৎকারের শিকার হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। ১৬ ফেব্রুয়ারী রাতে ঘটনাটি ঘটলেও কৌশলে ধামাচাপা দিয়ে রাখে স্থানীয় প্রভাবশালীরা। বলৎকারের শিকার ছাত্রটি সোনারপাড়া দাখিল মাদরাসায় অধ্যয়নরত।
চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ৩ দিন পরে ১৯ ফেব্রুয়ারী জানাজানি হয়। এ বিষয়ে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদে ১৯ ফেব্রুয়ারী শালিস মীমাংসা বৈঠক হয় বলে স্থানীয় সুত্রে জানা গেছে। তবে, ঘটনার কোন সুরাহা হয়নি। উল্টো বলৎকারের হুমকির শিকার ভিকটিমের স্বজনেরা।
স্থানীয় শামসুল আলম ঘটনাটি ঘটায় বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ প্রসঙ্গে জানতে অভিযুক্ত শামসুল আলমকে ফোন করলে পাওয়া যায়নি।
এ প্রসঙ্গে জালিয়াপালং ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নুরুল আমিন জানান, এরকম একটি অভিযোগ ছিল। তা সমাধান হয়ে গেছে। কেমন সমাধান দেয়া হয়েছে? জিজ্ঞেস করলে তিনি কোন সদুত্তর দিতে পারেননি। শুধু বলেন, সমাধান দেয়া হয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •