ওসি পদায়নে ঘুষ নেন রেঞ্জ ডিআইজিরা

ডেস্ক নিউজ:

পুলিশের আইজির উপস্থিতিতে একজন এসপি পদমর্যাদার কর্মকর্তা হাটে হাঁড়ি ভেঙে দিলেন। ওই কর্মকর্তা আইজিপির দৃষ্টি আকর্ষণ করে বলেন, রেঞ্জ ডিআইজিরা ওসি পদায়নে ২০ থেকে ৫০ লাখ টাকা করে ঘুষ নেন। আবার পুলিশ সুপাররা এসআই, এএসআই ও কনস্টেবল পদায়নে ঘুষ নেন। ফলে এ ঘুষের টাকা উঠাতে গিয়ে ওসি থেকে শুরু করে নিচের পদের সদস্যরা মাদক বাণিজ্যসহ নানা অবৈধ কর্মকা-ে যুক্ত হন। ফলে মাদকবাণিজ্য বন্ধ করা যায় না। ওই কর্মকর্তা আরও বলেন, মাদক বাণিজ্য বন্ধ করতে হলে ওসি থেকে নিম্নপদে কর্মরতদের পদায়নে ঘুষ লেনদেন বন্ধ করতে হবে।
গতকাল রবিবার পুলিশ হেডকোয়ার্টার্সে অনুষ্ঠিত ত্রৈমাসিক অপরাধ সভায় আইজিপি ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী সভাপতিত্ব করেন। আইজিপি হিসেবে গত ৩১ জানুয়ারি দায়িত্ব গ্রহণের পর এটি তার প্রথম এ ধরনের সভা। এতে সব পুলিশ কমিশনার, রেঞ্জ ডিআইজি এবং পুলিশ সুপার উপস্থিত ছিলেন।

সভায় ঢাকা মহানগর পুলিশের তেজগাঁও জোনের ডিসি বিপ্লব কুমার সরকার উল্লিখিত তথ্য তুলে ধরেন। তিনি এও বলেন, কনস্টেবল পদে নিয়োগেও পুলিশ সুপাররা মোটা অঙ্কের অর্থ গ্রহণ করেন। ফলে শুরুতেই অস্বচ্ছ প্রক্রিয়ার ভেতর দিয়ে একজন পুলিশ সদস্য চাকরিতে যোগ দেন। এ ধরনের অবৈধ প্রক্রিয়া বন্ধ করতে ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য বিপ্লব কুমার সরকার আইজিপির দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। এ সময় তার বক্তব্যে হাততালি দিয়ে উপস্থিত কোনো কোনো কর্মকর্তা বাহবা দেন।
আইজিপি পুলিশ কর্মকর্তাদের উদ্দেশে বলেন, জনগণের মধ্যে একটি ধারণা রয়েছে, পুলিশের কোনো কোনো সদস্য মাদকবাণিজ্যের সঙ্গে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে সংশ্লিষ্ট। এতে পুলিশের ইমেজ নষ্ট হচ্ছে। এ ইমেজ পুনরুদ্ধারে পুলিশকে সব ধরনের মাদকের বিরুদ্ধে নিয়মিত অভিযান পরিচালনার নির্দেশ দেন। আর যারা মাদকবাণিজ্যের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট তাদের এ পথ থেকে সরে আসতেও কঠোর বার্তা দেন। তিনি এও বলেন, কোনো ব্যক্তির দায় পুলিশ বাহিনী নেবে না। এর পরই উন্মুক্ত আলোচনায় ডিসি বিপ্লব কুমার সরকার মাদকবাণিজ্যসহ পুলিশে নিয়োগ এবং পদায়নে রেঞ্জ ডিআইজি ও পুলিশ সুপারদের ঘুষ গ্রহণের তথ্য তুলে ধরেন। তিনিও আরও বলেন, পদোন্নতিতেও অর্থের লেনদেন হয়। এর পরই আইজিপি বলেন, পুলিশে নিয়োগ, পদোন্নতি এবং পদায়নে স্বচ্ছতা ফিরিয়ে আনা হবে।
আইজিপি দেশে বিরাজমান স্বাভাবিক আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি বজায় রাখতে নিষ্ঠা, পেশাদারিত্ব ও সততার সঙ্গে দায়িত্ব পালনের জন্য পুলিশ সদস্যদের নির্দেশ দেন। তিনি বলেন, সবার আন্তরিক সহযোগিতার ফলে আমরা একটি নিরাপদ বাংলাদেশ গঠন করতে সক্ষম হব।
আইজিপি বলেন, জঙ্গিবাদ নিয়ন্ত্রণে বাংলাদেশ পুলিশের অনন্য অবদান রয়েছে। বর্তমানে দেশে জঙ্গিবাদ নিয়ন্ত্রণে আছে। জঙ্গিরা যেন মাথাচাড়া দিয়ে উঠতে না পারে সে জন্য সবাইকে সজাগ ও সতর্ক থাকতে হবে। জঙ্গিবিরোধী কার্যক্রম আরও জোরদার করতে হবে।
পুলিশপ্রধান বলেন, মাদক নিয়ন্ত্রণ আমাদের জন্য বড় চ্যালেঞ্জ। অগ্রাধিকার ভিত্তিতে মাদক নিয়ন্ত্রণে কাজ করার জন্য তিনি মাঠপর্যায়ের কর্মকর্তাদের নির্দেশ দেন। তিনি আশা প্রকাশ করে বলেন, সবার সম্মিলিত প্রচেষ্টা ও আন্তরিক সহযোগিতায় আমরা মাদক নিয়ন্ত্রণে সক্ষম হব।
তিনি বলেন, কোনো সাধারণ ও নিরীহ মানুষ যেন হয়রানির শিকার না হয় সে দিকে খেয়াল রাখতে হবে। থানাকে পুলিশি সেবা প্রদানের অন্যতম কেন্দ্র হিসেবে গড়ে তুলতে হবে। মানুষের সঙ্গে ভালো আচরণ করতে হবে, তাদের সমস্যা ও অভাব অভিযোগ শুনতে হবে।
আইজিপি বলেন, আসন্ন কনস্টেবল নিয়োগে স্বচ্ছতা বজায় রাখতে হবে। যাতে এ নিয়োগ নিয়ে কোনো ধরনের অভিযোগ উত্থাপিত না হয়। তিনি বলেন, সবাই মিলে চেষ্টা করলে আমরা সুষ্ঠুভাবে কনস্টেবল নিয়োগ সম্পন্ন করতে পারব।
ড. জাবেদ পাটোয়ারী বাংলাদেশ পুলিশকে একটি সুশৃঙ্খল বাহিনী হিসেবে আখ্যায়িত করে বলেন, কোনো সদস্যের ব্যক্তিগত অপরাধের দায়ভার প্রতিষ্ঠান বহন করবে না। কোনো পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে কোনো ব্যক্তিগত অপরাধের অভিযোগ প্রমাণিত হলে তাকে ছাড় দেওয়া হবে না।
সভায় অক্টোবর-ডিসেম্বর ২০১৭ কোয়ার্টারের সার্বিক অপরাধ পরিস্থিতি সম্পর্কে আলোচনা করা হয়।
পর্যালোচনায় দেখা যায়, আলোচ্য সময়ে সারা দেশে ৫২ হাজার ৪৪৬টি মামলা রুজু হয়েছে, যা গত জুলাই-সেপ্টেম্বর ২০১৭ সময়ের তুলনায় কম। আলোচ্য সময়ে সারা দেশে খুন, নারী ও শিশু নির্যাতন, চোরাচালান, সড়ক দুর্ঘটনা, গাড়ি চুরির মামলা গত কোয়ার্টারের তুলনায় কমেছে। আলোচ্য সময়ে ডাকাতি মামলা বৃদ্ধি পেয়েছে।

সর্বশেষ সংবাদ

চট্টগ্রাম বিভাগীয় মহাসমাবেশ সফল করতে কক্সবাজার জেলা ছাত্রদলের প্রস্তুতি সভা

কক্সবাজার ও রামু উপজেলায় উন্নয়নের চমক দেখাতে চাই : এমপি কমল

শিলখালীতে বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি

চকরিয়া প্রেসক্লাব সভাপতি’র নিম্ন আদালতে স্থায়ী জামিন লাভ

অবশেষে মিন্নিকে গ্রেফতার দেখালো পুলিশ

নালা-নর্দমা ও ড্রেনে দখল করে তৈরী করা অবৈধ স্থাপনা অপসারণ

উখিয়ার দোছড়ী খালে নড়বড়ে সাঁকোতে মৃত্যুর ঝুঁকি নিয়ে চলাচল

পেকুয়ায় বন্যা আক্রান্তদের জন্য হোপ ফাউন্ডেশনের ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প

আগামীকাল এইচএসসি পরীক্ষার ফল প্রকাশ

রংপুরের পল্লী নিবাসে এরশাদের দাফন

অকার্যকর প্রতিষ্ঠানে পরিণত কক্সবাজার সাংস্কৃতিক কেন্দ্র

বন্যায় ডুবছে দক্ষিণ এশিয়া, নিহত শতাধিক

পরিবেশ, উপকূল ও মানুষের সুরক্ষা চাই

মহেশখালীর যত ঝুঁকি

মহেশখালীতে উন্নয়নের মহাযজ্ঞ

মারমেইড পিৎজা’র চাহিদা বাড়ছে

মিজান ও বাছিরের বিরুদ্ধে মামলার অনুমোদন

হাটহাজারীতে ছেলেধরা সন্দেহে ৩ ছিনতাইকারী গণধোলাইয়ের শিকার

সক্রিয় গরু চোর সিন্ডিকেট

সদর উপজেলা কমিউনিটি পুলিশিংয়ের সভা