জালিয়াপালংয়ে মিথ্যা মামলা দিয়ে জমি দখলের চেষ্টা!

নিজস্ব প্রতিবেদক:
উখিয়ার জালিয়াপালং ইউনিয়নের সোনারপাড়া বাজারে মিথ্যা মামলা দিয়ে কোটি টাকা মুল্যের জমি দখলের পায়তারা শুরু করেছে একটি প্রভাবশালি মহল। এ কারণে ওই এলাকার অসহায় শফি আলম ও মোহাম্মদ নেছার সহ তিনজনের বিরুদ্ধে একই এলাকার মামলাবাজ ফরিদ আলম প্রকাশ গালু ফরিদ বাদি হয়ে উখিয়া থানায় একটি মিথ্যা মামলা দায়ের করেন।

ভুক্তভোগী শফি আলম জানান, ফরিদ আলম প্রকাশ গালু ফরিদের ভাড়াটে লোকজন নিয়ে শফি আলম গংয়ের মালিকানাধীন সোনারপাড়া বাজারের মার্কেটটি দখল করার চেষ্টা করছে। কিছুদিন আগে সে তার লোকজন নিয়ে হামলা চালিয়ে মার্কেটে ব্যাপক ভাংচুর ও ভাড়াটিয়া শাহাব উদ্দীনসহ শ্রমিকদের ব্যাপক মারধর করেছিল। তারপরও সে ক্ষান্ত হচ্ছে হয়নি। বরং এখনো দখল চেষ্টা ও হুমকি দিয়ে যাচ্ছে।

উক্ত মিথ্যা মামলার স্বীকার আরেক ভূক্তভোগি মোহাম্মদ নেছার জানান, স্থানীয় মৃত ইব্রাহিমের ছেলে ফরিদ আলম প্রকাশ গালু ফরিদ একজন মামলাবাজ ও দাঙ্গাবাজ। ওইদিন লোকজন নিয়ে আমাদের মার্কেটে যে হামলা চালিয়েছে, সই ঘটনাকে উল্টো সাজিয়ে শফি আলমসহ আমাদের বিরুদ্ধে উখিয়া থানায় একটি মিথ্যা মামলা দায়ের করেছে। তিনি স্থানীয় বিএনপি নেতা হয়েও উখিয়া থানা পুলিশকে ম্যানেজ করে সম্পূর্ণ বানোয়াট ও ভিত্তিহীন একটি মামলা দায়ের করা হয়।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ফরিদ আলম ওরফে গালু ফরিদ অনেক অপকর্মের হোতা। তার মধ্যে অন্যের জমি দখল করা তার নেশায় পরিণত হয়েছে। গায়ের জোর আর ভাড়াটে লোক নিয়ে অন্যের জমি দখলের মরিয়া হয়ে উঠেছে সে। এরকমর কয়েকটি ঘটনা ঘটেছে জানিয়েছে লোকজন। শুধু তাই নয়; সে একজন শীর্ষ মানবপাচারকারী। সাগর পথে মালয়েশিয়া লোক পাচার করে অনেক টাকার মালিক হয়েছে। এসব অপকর্মের কারণে মানবপাচারসহ তার বিরুদ্ধে ৮টি মামলা রয়েছে। যার নং- জিআর-১৯৪/০৬, জিআর-৪২/০৬, জিআর-৮৬/০৭, জিআর-১৮০/০৫, জিআর-৪৫/০৪, জিআর-৭৬/০৬, জিআর-২৭/০৬ (দ্রুতবিচার আইনের এই মামলায় ৬মাসের সাজা হয়), জিআর-২৫৯/১৩ (মানবপাচার)।

এদিকে কোন উপায়ন্তর না দেখে ভূক্তভোগী শফি আলম তার জমি রক্ষার্থে ১৮ ফেব্রুয়ারি কক্সবাজারের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালত এই ১৪৪ ধারা আদেশ জারি চেয়ে একটি দরখাস্ত দায়ের করেন। আদালত দরখাস্তটি আমলে নিয়ে উখিয়া উপজেলার জালিয়াপালং ইউনিয়নের সোনারপাড়ার ফরিদ আলম গং বিরুদ্ধে ১৪৪ ধারা জারি করেছে।

আবেদনে উল্লেখ করা হয়, উখিয়া জলার জালিয়াপালং ইউনিয়নের সোনারপাড়ার মৃত মো. ইব্রাহিমের পুত্র ফরিদ আলমের নেতৃত্বাধীন একটি পক্ষ একই এলাকার মৃত হাজী মছন আলীর পুত্র শফি আলম গংয়ের মালিকানাধীন ১১ শতক জমি (মৌজা- জালিয়াপালং, বিএস- ৬৭৩, সৃজিত বিএস- ১৭৪০, দাগ- ১৬৫৪) জমি জবর-দখলের চেষ্টা চালাচ্ছে। এর অংশ হিসেবে ইতিমধ্যে কয়েকবার হামলা ও দখল চেষ্টা চালিয়েছে। জবর-দখল চেষ্টাকারি ফরিদ আলম গং ভাড়াটে লোকজন নিয়ে সশস্ত্রভাবে ওই হামলা চালিয়েছিল। বর্তমানেও একই ভাবে ওই জমি দখল করার অপচেষ্টা করছে। এর প্রতিকার চেয়ে শফি আলম গং আদালতের শরণাপন্ন হন। আদালত তাদের আবেদনের প্রেক্ষিতে ওই জমিতে প্রবেশ না করতে ফরিদ গংয়ের বিরুদ্ধে ১৪৪ ধারা জারি করেন।

কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

তাহলে কী জাফর-আশেক-কানিজ-বদি পাচ্ছেন নৌকার টিকেট!

ইসলামাবাদে যাত্রীবাহী বাসের ধাক্কায় যুবক নিহত

‘নেতানিয়াহু, ট্রাম্প ও বিন সালমান শয়তানের ৩ অক্ষশক্তি’

উখিয়ায় অপহৃত যুবক উদ্ধার, দুই অপহরণকারী আটক

চ্যানেল কর্ণফুলীর কক্সবাজার প্রতিনিধি সেলিম উদ্দীন

‘পারস্পরিক কল্যাণকামিতার মাধ্যমেই সমৃদ্ধ রাষ্ট্র গঠন সম্ভব’

ধানের শীষে নির্বাচন করবে জামায়াত!

কুতুবদিয়ায় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা বিষয়ক মহড়া অনুষ্ঠিত

কক্সবাজারে আয়কর মেলা, তিনদিনে ৫৯ লাখ টাকা রাজস্ব আদায়

পোকখালীতে চিংড়ি ঘেরে ডাকাতির চেষ্টা, মালিককে কুপিয়ে জখম

মহেশখালীতে ৩দিন ব্যাপী কঠিন চীবর দানোৎসব শুরু

ইন্টারনেট সুবিধার আওতায় কক্সবাজার প্রেসক্লাব

আওয়ামীলীগ ভাওতাবাজিতে চ্যাম্পিয়ন : ড. কামাল

সত্য বলায় এসকে সিনহাকে জোর করে বিদেশ পাঠানো হয়েছে: মির্জা ফখরুল

সাতকানিয়ায় মাদকসহ আটক ২

কক্সবাজারে হোটেল থেকে বন্দী ঢাকার তরুণী উদ্ধার

৩০০ আসনে প্রার্থী চূড়ান্ত ইসলামী আন্দোলনের

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে খেলনা বেলুনের সিলিন্ডার বিস্ফোরণে আহত ৯

চকরিয়া আসছেন পুলিশের আইজি, উদ্বোধন করবেন থানার নতুন ভবন

না ফেরার দেশে গর্জনিয়ার জমিদার পরিবারের দুই মহিয়সী নারী