প্যারাডাইস পেপারসে মুসা বিন শমসেরসহ ২০ বাংলাদেশির নাম

নিউজ ডেস্ক:
পানামা পেপারসের মতো আর্থিক কেলেঙ্কারির নতুন গোপন নথি প্যারাডাইস পেপারসের দ্বিতীয় তালিকায় দুর্নীতির দায়ে অভিযুক্ত ব্যবসায়ী মুসা বিন শমসেরসহ ২০ বাংলাদেশির নাম এসেছে। অনুসন্ধানী সাংবাদিকদের সংগঠন ইন্টারন্যাশনাল কনসোর্টিয়াম অব ইনভেস্টিগেটিভ জার্নালিস্টস (আইসিআইজে) বুধবার এ তালিকা প্রকাশ করে।

এ তালিকায় থাকা বাংলাদেশিরা ইউরোপের দ্বীপরাষ্ট্র মাল্টায় কোম্পানি খুলেছেন বলে তথ্য রয়েছে। তারা মাল্টায় কবে, কী নামে কোম্পানি রেজিস্ট্রেশন করেছেন- তা ওই নথিতে রয়েছে। তবে ব্যবসায়ীদের কে কত টাকা পাচার করেছেন সে সংক্রান্ত কোনো তথ্য প্রকাশিত নথিতে নেই।

প্যারাডাইস পেপারসের নতুন তথ্য মতে, মুসা বিন শমসের ২০১০ সালের ৪ মে মাল্টায় ভেনাস ওভারসিজ নামে একটি কোম্পানি খুলেছেন। তিনি এ কোম্পানির পরিচালক। ঠিকানা ঢাকার বনানী দেয়া আছে।

এছাড়া তালিকায় আরও যাদের নাম এসেছে তারা হলেন- ফজলে এলাহী চৌধুরী, ডাইনামিক এনার্জি হোল্ডিং, ৪২৪ ফার্স্ট ফ্লোর, রোড নং-৭, বারিধারা, ডিওএইচএস, ঢাকা। কেএইচ আসাদুল ইসলাম, ইন্ট্রিপিড গ্রুপ, ধানমন্ডি, ঢাকা। জুলফিকার আহমেদ, খালেদা শিপিং কোম্পানি, ১৩২ ধানমন্ডি আবাসিক এলাকা, রোড নং-৫, ধানমন্ডি, ঢাকা। তাজুল ইসলাম, তাজুল জেক্সিমকো ট্রেড ইন্টারন্যাশনাল, চাষাঢ়া, নারায়ণগঞ্জ। মোহাম্মদ মালেক, বেঙ্গল শিপিংলাইন, ১০১ আগ্রাবাদ, চট্টগ্রাম।

শাহনাজ হুদা রাজ্জাক, সাউদার্ন আইস শিপিং কোম্পানি, ঢাকা ইপিজেড। ইমরান রহমান, ওসান আইস শিপিং কোম্পানি, ইপিজেড ঢাকা। মোহাম্মদ এ আউয়াল, শামস শিপিং লিমিটেড, ৭৭ মাওলানা শওকত আলী রোড, লালখান, চট্টগ্রাম। এরিক জনসন আনড্রেস উইলসন, ডব্লিউ এমজি লিমিটেড, বাড়ি নম্বর-১৪, চতুর্থ তলা, রোড নং-১৩, সেক্টর-৪, উত্তরা, ঢাকা।

ফারহান ইয়াকুবুর রহমান, ইন্ট্রিডিপ গ্রুপ, হাউস-৫, রোড নং-৫১, গুলশান, ঢাকা। তাজুল ইসলাম, জেক্সিমকো ট্রেড ইন্টারন্যাশনাল, বালুর মাঠ, চাষাঢ়া, নারায়ণগঞ্জ। আমানুল্লাহ চাগলা, পদ্মা টেক্সটাইল, বাড়ি-৪৫৮, লেট-৮, ডিওএইচএস, বারিধারা, ঢাকা। মোহাম্মাদ আতিকুজ্জামান, নিউটেকনোলজি ইনভেস্টমেন্ট, বর্তমান অবস্থান মস্কো, রাশিয়া। মোহাম্মদ রেজাউল হক, ঠিকানা উল্লেখ নেই, বর্তমান অবস্থান মাল্টা। মোহাম্মদ কামাল ভূঁইয়া। তুহিন সুমন, জেক্সিমকো ট্রেড ইন্টারন্যাশাল, বালুর মাঠ, চাষাঢ়া, নারায়ণগঞ্জ। মাহতাবা রহমান, সেলকন শিপিং কোম্পানি, বাড়ি নং-৮৭, রোড নং-৬, পুরাতন ডিওএইচএস, বনানী, গুলশান, ঢাকা। ফারুক পালওয়ান, জেক্সিমকো ট্রেড ইন্টারন্যাশনাল, নারায়ণগঞ্জ এবং মাহমুদ হোসাইন, গ্লোবার এডুকেশন সিস্টেম, বর্তমান অবস্থান আয়ারল্যান্ড।

উল্লেখ্য, এর আগে ২০১৭ সালের ১৮ নভেম্বর প্যারাডাইস পেপারস প্রথম তালিকা প্রকাশ করে। সেই তালিকায় ব্যবসায়ী আবদুল আউয়াল মিন্টু ও তার পরিবারের কয়েকজন সদস্যসহ ১০ জন বাংলাদেশির নাম ছিল। এছাড়া ২০১৬ সালের এপ্রিলে প্রকাশিত একই সংগঠনের পানামা পেপারসের অর্থ পাচারের তালিকায় ছিল অন্তত ৫২ বাংলাদেশির নাম।

কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

ফেসবুকে মোবাইল নম্বর ও এনআইডি যাচাই চান মন্ত্রী

মেধাবীরা গালি দেন বেশি!

‘ডিজিটাল সিকিউরিটি আইন বুমেরাং হতে বাধ্য’

জলবায়ু পরিবর্তনের ঝুঁকিতে দেশের ১৩ কোটি ৪০ লাখ মানুষ

চট্টগ্রামে ফ্লাইট অবতরণের কারণ ব্যাখ্যা করল ইউএস-বাংলা

বাংলাদেশ এখন উন্নয়নশীল দেশের কাতারে

নাইক্ষ্যংছড়িতে পুলিশ-সন্ত্রাসী গুলিবিনিময়ঃ অপহৃত যুবক ও অস্ত্র তৈরীর সরঞ্জাম উদ্ধার

যুক্তরাষ্ট্রে গোপন বৈঠকে বসছেন সিনহা ও জামায়াত নেতা রাজ্জাক

আল্লাহ-আল্লাহ বলে চিৎকার করছিলেন তারা

মাথায় চলছিল কীভাবে যাত্রীদের নিরাপদে নামানো যায়

কক্সবাজারের ফ্লাইট ঘুরতে ঘুরতে নামলো চট্টগ্রামে (ভিডিও)

নৌকা জিতলেই পাহাড়ে উন্নয়ন হয়- বীর বাহাদুর 

নাইক্ষ্যংছড়িতে পরিস্কার পরিচ্ছনতা অভিযান

‘স্থগিত হচ্ছে চট্টগ্রাম কলেজ ছাত্রলীগের নবগঠিত কমিটি’

লামায় ত্রিশডেবা বিজিবি ক্যাম্প বহাল রাখার দাবিতে এলাকাবাসীর মানববন্ধন

উখিয়ার শীর্ষ ইয়াবা পাচারকারীসহ আটক ২

ইসলামাবাদে বিয়ের আগেই হবু স্বামীর আত্নহত্যা!

ব্রেকাপ

জেলার উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সাথে শিল্প মন্ত্রীর মতবিনিময়

মুক্তিপণ দিয়ে ছাড় পেল অপহৃত তারেক!