সংবাদ বিজ্ঞপ্তি:
কক্সবাজার সরকারি কলেজে বর্ণাঢ্য আয়োজনে উদযাপিত হলো জাতীয় গ্রন্থাগার দিবস। সারাদেশের ন্যায় কক্সবাজার সরকারি কলেজের কেন্দ্রিয় গ্রন্থাগার কর্তৃপক্ষের উদ্যোগে ৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ তারিখ সকাল ১০ টায় শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের স্বতস্ফুর্ত অংশগ্রহণে বর্ণাঢ্য র‌্যালীর মাধ্যমে এ দিবসের কার্যক্রম শুরু হয়। র‌্যালী শেষে কলেজের কেন্দ্রিয় গ্রন্থাগারে জাতীয় গ্রন্থাগার দিবসের তাৎপর্য শীর্ষক এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। ইতিহাস বিভাগের প্রভাষক ও কেন্দ্রিয় গ্রন্থাগার পরিচালনা কমিটির সদস্য জনাব মোঃ জাহাঙ্গীর আলমের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র ধর্মগ্রন্থ হতে পাঠ করা হয়। এতে পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ও কেন্দ্রিয় গ্রন্থাগার পরিচালনা কমিটির আহ্বায়ক জনাব শফিউল আলমের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর এ.কে.এম ফজলুল করিম চৌধুরী, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপাধ্যক্ষ প্রফেসর পার্থ সারথি সোম, শিক্ষক পরিষদ স¤পাদক জনাব মুজিবুল আলম।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে কলেজ অধ্যক্ষ প্রফেসর এ.কে.এম ফজলুল করিম চৌধুরী বলেন, গ্রন্থাগার হচ্ছে জ্ঞানের ভান্ডার। জ্ঞানের প্রসারে গ্রন্থাগার মুখ্য নিয়ামক হিসেবে কাজ করে। তিনি বইকে অনন্ত যৌবনের সাথে তুলনা করে শিক্ষার্থীদেরকে বই পড়ার প্রতি উৎসাহিত করেন। ভবিষ্যতে এ কলেজে একটি আলাদা সুপরিসর গ্রন্থাগার ভবন নির্মাণের প্রতিশ্রুতি দেন এবং অতি শীঘ্রই কলেজের কেন্দ্রিয় গ্রন্থাগারের জন্য একটি ক¤িপউটার ও প্রয়োজনীয় বুক শেল্ফ সরবরাহের ঘোষণা দেন। বিশেষ অতিথি কলেজের উপাধ্যক্ষ প্রফেসর পার্থ সারথি সোমও গ্রন্থাগারের কর্মকান্ডের ভূয়সী প্রশংসা করেন এবং গ্রন্থাগার ব্যবহারের উপর গুরুত্বারোপ করে বক্তব্য প্রদান করেন।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন কলেজের গ্রন্থাগারিক জনাব নার্গিস ফাতেমা। এতে আরো বক্তব্য রাখেন রসায়ন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান জনাব বিপ্লব কান্তি পাল। আলোচনা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, অর্থনীতি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান জনাব কামরুল আহসান, রসায়ন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক জনাব মোঃ অহিদুল ইসলাম, রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের সহকারি অধ্যাপক জনাব আবুল মনসুর, গণিত বিভাগের প্রভাষক জনাব মোহাম্মদ নিজাম উদ্দীন ফারুকী, পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের প্রভাষক জনাব মোহাম্মদ কাসেম, রসায়ন বিভাগের প্রভাষক জনাব বিধান কুমার মুহুরী, ইতিহাস বিভাগের প্রভাষক জনাব নুরুল ইসলাম প্রমুখ।

আলোচনা অনুষ্ঠানের শেষে বিগত বছরে যেসব শিক্ষার্থী সবচেয়ে বেশি গ্রন্থাগারের বই ব্যবহার করেছে তাদের মধ্য থেকে ৩ জন কে পুরস্কৃত করা হয়। পুরস্কারপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীরা হলো- গণিত (সম্মান) ২য় বর্ষের ছাত্র মফিজ উদ্দিন, ইতিহাস (সম্মান) ২য় বর্ষের ছাত্রী হীরা চাকমা, একাদশ মানবিক বিভাগের ছাত্রী শাকিয়া ইয়াসমিন মোহনা।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •